আকাশ পথে জার্মানি থেকে ২৩টি অক্সিজেন প্ল্যান্ট আনছে ভারত

করোনাভাইরাসের তীব্র সংক্রমণের মধ্যে অক্সিজেন সংকট দেখা দেওয়ায় জরুরিভাবে জার্মানি থেকে ২৩টি মোবাইল অক্সিজেন প্ল্যান্ট আনতে যাচ্ছে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।
India.jpg
করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় তীব্র অক্সিজেন সংকটে পড়েছে ভারত। ছবি: রয়টার্স

করোনাভাইরাসের তীব্র সংক্রমণের মধ্যে অক্সিজেন সংকট দেখা দেওয়ায় জরুরিভাবে জার্মানি থেকে ২৩টি মোবাইল অক্সিজেন প্ল্যান্ট আনতে যাচ্ছে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

এনডিটিভি জানায়, প্রতিটি প্ল্যান্ট প্রতি মিনিটে ৪০ লিটার অক্সিজেন উৎপাদন করে। প্রতি ঘণ্টায় একেকটি প্ল্যান্ট ২ হাজার ৪০০ লিটার অক্সিজেন দেবে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রধান মুখপাত্র এ ভারত ভূষণ বাবু জানান, কোভিড-১৯ চিকিৎসায় সশস্ত্র বাহিনী মেডিকেল সার্ভিস (এএফএমএস) হাসপাতালে এই প্ল্যান্টগুলো স্থাপন করা হবে।

এর চার দিন আগে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং মহামারি মোকাবিলায় চিকিৎসা ব্যবস্থার অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় তিনটি পরিষেবা ও অন্যান্য প্রতিরক্ষা সংস্থাকে জরুরি আর্থিক সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দেন।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রধান মুখপাত্র বলেন, ‘২৩টি মোবাইল অক্সিজেন প্ল্যান্ট জার্মানি থেকে উড়িয়ে আনা হচ্ছে। এএইচএমএস হাসপাতালে কোভিড রোগীদের চিকিৎসায় এগুলো কাজে দেবে।’

এ প্ল্যান্টগুলো এক সপ্তাহের মধ্যে নিয়ে আসা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আরেক কর্মকর্তা জানান, প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের কাজ শেষ হওয়ার পর জার্মানি থেকে দ্রুত প্ল্যান্টগুলো নিয়ে আসার জন্যে ভারতীয় বিমানবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে।

এই কর্মকর্তা আরও জানান, পরবর্তীতে বিদেশ থেকে আরও অক্সিজেন প্ল্যান্ট সংগ্রহ করা যেতে পারে।

তিনি বলেন, ‘এই প্ল্যান্টগুলোর সুবিধা হলো এগুলো সহজেই বহন করা যায়।’

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও দুই হাজার ২৬৩ জন। এটিই এখন পর্যন্ত দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। করোনায় এ পর্যন্ত ভারতে মারা গেছেন এক লাখ ৮৬ হাজার ৯২০ জন।

একইসময়ে ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও তিন লাখ ৩২ হাজার ৭৩০ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এটিই এখন পর্যন্ত দেশটিতে ও বিশ্বে একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত।

ভারতে এখন পর্যন্ত মোট এক কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। সংক্রমণের দিক থেকে বিশ্বের মধ্যে ভারতের অবস্থান বর্তমানে দ্বিতীয়।

Comments

The Daily Star  | English

‘Narrow escape from crossfire’

With his hands tied, trader Abdul Basit was forced to get off a police van at Rarai village in Sylhet’s Zakiganj upazila in the dead of night on September 13, 2019.

7h ago