করোনাভাইরাস

শনাক্তের হার ৯.৮৯ শতাংশ, মৃত্যু ৩৭

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৩৭ জন। এর আগে গতকাল ৪১ ও গত পরশু ৫০ জন মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১১ হাজার ৮৩৩ জন।
প্রতীকী ছবি। সংগৃহীত

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৩৭ জন। এর আগে গতকাল ৪১ ও গত পরশু ৫০ জন মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১১ হাজার ৮৩৩ জন।

একই সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও এক হাজার ৬৮২ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট শনাক্ত হয়েছেন সাত লাখ ৭০ হাজার ৮৪২ জন।

আজ শুক্রবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত অ্যান্টিজেন ও আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে ১৭ হাজার ১৩টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনায় আক্রান্ত আরও এক হাজার ৬৮২ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার নয় দশমিক ৮৯ শতাংশ। গতকাল ও গত পরশু এই হার ছিল যথাক্রমে আট দশমিক ৪৪ শতাংশ ও ১৩ দশমিক ৮০ শতাংশ।

আজ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৩৭ জনের মধ্যে ২৩ জন পুরুষ ও ১৪ জন নারী। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে তাদের মধ্যে একজনের বয়স ৩১-৪০ বছরের মধ্যে, পাঁচ জনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে, ১১ জনের বয়স ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ও ষাটোর্ধ্ব ২০ জন।

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ১৭৮ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন সাত লাখ চার হাজার ৩৪১ জন। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত ৫৫ লাখ ৯৯ হাজার ২৭৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯১ দশমিক ৩৭ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৪ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে সারাদেশে মোট আইসিইউ শয্যার সংখ্যা এক হাজার ৭২। এর মধ্যে বর্তমানে ফাঁকা রয়েছে ৬২৯টি। এখন পর্যন্ত সারাদেশে ৫৮ লাখ ১৯ হাজার ৮৫৪ জনকে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। আর ৩৩ লাখ ১৩ হাজার ৪২৪ জনকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে।

 

আরও পড়ুন:

শনাক্তের হার কমে ৮.৪৪ শতাংশ, মৃত্যু ৪১

আজ মৃত্যু ৬১ শনাক্ত ১৯১৪

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৬৫ শনাক্ত ১৭৩৯

আজ মৃত্যু ৬৯ শনাক্ত ১৩৫৯

Comments

The Daily Star  | English

Trees are Dhaka’s saviours

Things seem dire as people brace for the imminent fight against heat waves and air pollution.

5h ago