যুক্তরাষ্ট্রে অভ্যন্তরীণ পরিসরে মাস্ক পরার নির্দেশনা শিথিলের সময় এসেছে: ফাউসি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের জন্যে অভ্যন্তরীণ পরিসরে মাস্ক পরে থাকার যে নির্দেশনা আছে, তা শিথিলের কথা ভাবছে দেশটির সরকার।
ডা. অ্যান্থনি ফাউসি। ছবি: রয়টার্স

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের জন্যে অভ্যন্তরীণ পরিসরে মাস্ক পরে থাকার যে নির্দেশনা আছে, তা শিথিলের কথা ভাবছে দেশটির সরকার।

গতকাল রোববার যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসের পরিচালক ডা. অ্যান্থনি ফাউসি এবিসি নিউজকে এই নির্দেশনার বিষয়ে দ্রুত পরিবর্তন আসার আভাস দেন। আজ সিএনএনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

অভ্যন্তরীণ পরিসরে মাস্ক ব্যবহারের বাধ্যবাধকতা শিথিলের সময় এসেছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে ফাউসি বলেন, ‘আমিও তাই মনে করি। যেহেতু অনেক মানুষ টিকা নিয়েছে, আমার মনে হয় আপনারাও একই রকম ভাববেন।’

ফাউসি জানান, বাস্তব অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) এ সংক্রান্ত নির্দেশনাগুলো হালনাগাদ করবে।

এর আগে গত মাসে সিডিসি উন্মুক্ত জায়গায় মাস্ক পরে থাকার বাধ্যবাধকতার বিষয়টি শিথিল করে। কিন্তু, টিকা নিয়েছে কিংবা নেয়নি, দুই পক্ষের জন্যই শপিংমল, সিনেমা হল ও জাদুঘরের মতো অভ্যন্তরীণ জনসমাগমস্থলে মাস্ক পরে থাকার নির্দেশনা বহাল রাখা হয়।

‘আমরা যেহেতু অনেক মানুষকে টিকা দিতে পেরেছি, সেহেতু আমাদের আরও উদার হওয়া প্রয়োজন’, যোগ করেন ফাউসি।

একই দিনে সিবিএস টেলিভিশনে প্রচারিত ‘ফেস দ্য ন্যাশন’ অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও  ওষুধ প্রশাসনের সাবেক কমিশনার ডা. স্কট গটলিব বলেন, ‘যেহেতু করোনাভাইরাসের ঝুঁকি কমছে, মাস্ক পরার বাধ্যবাধকতা শিথিল করা উচিত।’

‘রাজ্যগুলোতে করোনার প্রাদুর্ভাব কম, টিকাদানের হার উচ্চ এবং সংক্রমণ পরীক্ষার ভালো সুযোগ আছে। তাই আমি মনে করি, আমরা বৃহত্তর পরিসরে অভ্যন্তরীণ বিধিনিষেধ শিথিল করার কাজ শুরু করতে পারি’, বলেন গটলিব।

Comments

The Daily Star  | English

'Why did they kill my father?'

Slain MP’s daughter demands justice, fair investigation

2h ago