মিয়ানমার থেকে পালানো সাংবাদিক থাইল্যান্ডে গ্রেপ্তার

সেনা অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারে থেকে পালিয়ে যাওয়া তিন সাংবাদিক ও দুই অধিকারকর্মীকে থাইল্যান্ডে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের সংগঠন ও স্থানীয় পুলিশ জানায়, অবৈধভাবে দেশটিতে প্রবেশের দায়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারের সড়কে সেনাদের টহল। ছবি: রয়টার্স

সেনা অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারে থেকে পালিয়ে যাওয়া তিন সাংবাদিক ও দুই অধিকারকর্মীকে থাইল্যান্ডে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের সংগঠন ও স্থানীয় পুলিশ জানায়, অবৈধভাবে দেশটিতে প্রবেশের দায়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

থাইল্যান্ডের উত্তরে চিয়াং মাই প্রদেশের সান সাঁই জেলার পুলিশ প্রধান থাপানাপং চইরাঙ্গস্রি বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারের পাঁচ নাগরিককে অবৈধভাবে প্রবেশের জন্য গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাদেরকে আদালতে হাজির করা হবে।’

তিনি আরও জানান, আইন অনুযায়ী তাদেরকে নির্বাসনে পাঠানো হবে। তবে, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে তাদেরকে অভিবাসন কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তরের আগে ১৪ দিনের জন্য আটক রাখা হবে।

ডিভিবি (ডেমোক্রেটিক ভয়েস অব বার্মা) জানায়, রোববার ওই পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা থাই কর্তৃপক্ষের কাছে গ্রেপ্তারকৃতদের মিয়ানমারে ফেরত না পাঠানোর অনুরোধ করেছেন।

ডিভিবির নির্বাহী পরিচালক আয় চ্যান নাইং এক বিবৃতিতে বলেন, ‘মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হলে তাদের জীবন গুরুতর বিপদে পড়বে।’ তিনি জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশনারের কাছেও এ বিষয়ে সাহায্যের জন্য আবেদন জানান।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকে মিয়ানমারে কয়েক হাজার মানুষকে গ্রেপ্তার হয়েছে। পুলিশ ও সেনা বাহিনীর অভিযানে বহু সাংবাদিককেও গ্রেপ্তার করা হয়। ডিভিবিসহ বেশ কয়েকটি স্বতন্ত্র মিডিয়া সংস্থার লাইসেন্স প্রত্যাহার করা হয়েছে।

থাইল্যান্ডে গ্রেপ্তার হওয়া পাঁচ জন সেনা অভিযানের সময় সেখান থেকে পালিয়ে গেছেন।

Comments