ভাষানটেকে দোকানে চুরি, প্রহরীর মরদেহ শেরেবাংলা নগরে

রাজধানীর ভাষানটেকের একটি দোকানে চুরি হওয়ার পর ওই দোকানের প্রহরীর মরদেহ আজ রোববার সকালে শেরেবাংলা নগর এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।
dead body
প্রতীকী ছবি। স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

রাজধানীর ভাষানটেকের একটি দোকানে চুরি হওয়ার পর ওই দোকানের প্রহরীর মরদেহ আজ রোববার সকালে শেরেবাংলা নগর এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রহরী সুজন মিয়ার (৪০) মরদেহ শেরেবাংলা নগর এলাকায় পড়ে ছিল। তার মাথায় আঘাতের চিহ্ন এবং গলায় একটি গামছা পেঁচানো ছিল।

পুলিশের ধারণা, চোরদের প্রতিরোধের চেষ্টা করলে তারা তাকে হত্যা করে মরদেহ শেরেবাংলা নগর এলাকায় ফেলে যায়।

শেরেবাংলা নগর থানার উপপরিদর্শক জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমরা জানতে পেরেছিলাম, ভাষানটেকের দোকানে একটি দল চুরি করতে এলে সুজন তাদের বাধা দেয়। একপর্যায়ে সুজনের মাথায় আঘাত করে তাকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যায় চোরেরা।’

তিনি আরও বলেন, ‘৬০ ফিটে পড়ে থাকা সুজনে মরদেহে গামছা পেঁচানো দেখে আমরা সন্দেহ করছি, তার গলায় ফাঁস দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।’

পুলিশ আজ সকালে তাকে উদ্ধার করে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ভাষানটেক থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার হোসেন জানান, কিশোরগঞ্জের বাসিন্দা সুজন কয়েকটি দোকানে প্রহরীর কাজ করতেন। আজ ভোর সাড়ে ৩টার দিকে অনিক মোটরস নামের একটি দোকান থেকে চোররা কিছু ব্যাটারি নিয়ে যায়।

তিনি বলেন, ‘দোকানের পাশের এক বাসিন্দা জানান, চুরির আগে সুজনকে চোরদের বাধা দিতে দেখেছেন। আমাদের ধারণা চোররা তাকে হত্যা করেছে।’

Comments

The Daily Star  | English

NBR suspends Abdul Monem Group's import, export

It also instructs banks to freeze the Group's bank accounts

2h ago