দহগ্রামে ভারত থেকে আসা ২৩ জনকে আটকের পর কোয়ারেন্টিনে

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম সীমান্তে ভারত থেকে অবৈধভাবে আসা ২৩ জনকে আটক করে দহগ্রাম হাসপাতালে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।
Lalmonirhat_DS_Map.jpg
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম সীমান্তে ভারত থেকে অবৈধভাবে আসা ২৩ জনকে আটক করে দহগ্রাম হাসপাতালে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

আটক ২৩ জনের মধ্যে ১০ জনই শিশু, পাঁচ জন নারী। এরা সবাই বেদে সম্প্রদায়ের।

আজ মঙ্গলবার বিকালে সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) তাদের আটক করে পুলিশের হাতে সোর্পদ করেন বলে নিশ্চিত করেছেন দহগ্রাম পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক।

তিনি বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে এখনো কোনো আইনি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে এ ব্যাপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

দহগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, নারী ও শিশুসহ আটক ২৩ জন ঢাকার সাভার এলাকায়। এক বছর আগে কাজের সন্ধানে তারা দহগ্রাম দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে যায়। ভারতে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় তারা ভারত থেকে দহগ্রাম সীমান্ত দিয়ে আবার বাংলাদেশে ফিরে আসে।

পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাইফুল ইসলাম দ্য বলেন, কোয়ারেন্টিনে থাকা লোকজনের ১৪ দিন পর স্যাম্পল সংগ্রহ করা হবে করোনা টেস্টের জন্য। রেজাল্ট আসার পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তারা কোয়ারেন্টিন মুক্ত হতে পারবে কিনা।

Comments