লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি: ধারণা করা হচ্ছে উদ্ধার হওয়া ৩৩ জন বাংলাদেশি

লিবিয়া থেকে ইউরোপ যাওয়ার পথে মঙ্গলবার নৌকাডুবির ঘটনায় ৩৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের সবাই বাংলাদেশের নাগরিক বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় এখনো অন্তত ৫০ জন নিখোঁজ আছেন।
রয়টার্স ফাইল ফটো

লিবিয়া থেকে ইউরোপ যাওয়ার পথে মঙ্গলবার নৌকাডুবির ঘটনায় ৩৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের সবাই বাংলাদেশের নাগরিক বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় এখনো অন্তত ৫০ জন নিখোঁজ আছেন।

মঙ্গলবার তিউনিসিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি এ তথ্য জানিয়েছে।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মহাম্মেদ জিকরি জানান, নৌকা ডুবির ঘটনায় বেঁচে যাওয়া ব্যক্তিরা তিউনিশিয়ার দক্ষিণ উপকূলের কাছে একটি তেল খনির প্লাটফর্ম আঁকড়ে ধরেছিল। সেখান থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।

আন্তর্জাতিক সমুদ্রবিষয়ক সংস্থার (আইএমও) মুখপাত্র ফ্লাভিও ডি জিয়াকোমো এএফপিকে জানান, ধারণা করা হচ্ছে উদ্ধার হওয়া ৩৩ জনই বাংলাদেশের নাগরিক। এছাড়া অন্তত ৫০ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

গত রবিবার গাদাগাদি করে ৯০ জনের বেশি যাত্রী নিয়ে এটি লিবিয়ার জুয়ারা বন্দর থেকে ছেড়ে যায়।

কীভাবে নৌকাডুবি হয়েছে তার বিস্তারিত এখনো জানা যায়নি। তবে, কোস্ট গার্ডের নজর এড়াতে রাতের বেলা অস্থায়ী নৌকায় অতিরিক্ত যাত্রী তুলে নৌকাটি উত্তর আফ্রিকার উপকূল থেকে ইউরোপের দিকে যাত্রা করে বলে জানা গেছে।

তিউনিশিয়ার উদ্ধারকারীরা তাদের উদ্ধার করে জুয়ার বন্দর থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার উত্তরে জার্জিস বন্দরে নিয়ে যান।

ডি জিয়াকোমো বলেন, ‘এখনো নিখোঁজ বাকি ৫০ জনেরও বেশি যাত্রীর পরিচয় পাওয়া যায়নি।’

জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী, গত বছর ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে অন্তত ১২০০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

Comments