মুক্তিযুদ্ধ

২৫ মে ১৯৭১: স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সম্প্রচার পুনরায় শুরু

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে ২৫ মে ঘটনাবহুল ও গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন। এদিন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের তৃতীয় পর্যায়ের সম্প্রচার শুরু হয়। এদিন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সরদার শরণ সিং লোকসভা অধিবেশনে বলেন, দেশে উদ্বাস্তু সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করেছে। এসময় তিনি উদ্বাস্তু সমস্যা সমাধানে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন। এদিন বাংলাদেশকে স্বীকৃতি প্রদানের বিষয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে আলোচনা করেন বিরোধী দলীয় নেতারা।

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে ২৫ মে ঘটনাবহুল ও গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন। এদিন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের তৃতীয় পর্যায়ের সম্প্রচার শুরু হয়। এদিন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সরদার শরণ সিং লোকসভা অধিবেশনে বলেন, দেশে উদ্বাস্তু সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করেছে। এসময় তিনি উদ্বাস্তু সমস্যা সমাধানে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন। এদিন বাংলাদেশকে স্বীকৃতি প্রদানের বিষয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে আলোচনা করেন বিরোধী দলীয় নেতারা। এদিন চাকমা রাজা ত্রিদিব রায় পাকিস্তানের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করেন। এদিন সামরিক কর্তৃপক্ষ ২১ নং সামরিক অধ্যাদেশ জারি করে। এদিন কুমিল্লার জোড়কাননে মুক্তিবাহিনীর অতর্কিত আক্রমণে হানাদারদের ২০ সৈন্য নিহত হয়। স্বাধীনতাবিরোধী আব্দুল মান্নানকে সভাপতি করে ভৈরবে ২৭ সদস্য বিশিষ্ট ভৈরব শান্তি কমিটি গঠন করা হয়।

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সম্প্রচার শুরু

২৫ মে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের তৃতীয় পর্যায়ের সম্প্রচার শুরু হয়। এর আগে  কলকাতার ৫৭/৮ বালিগঞ্জের একটি দোতলা ভবনে তৈরি করা হয় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের দপ্তর ও স্টুডিও। তবে ট্রান্সমিটারটি সীমান্তবর্তী কোনো এক গোপন স্থানে বিএসএফ-এর তত্বাবধানে স্থাপন করা হয়।

দিল্লিতে বাংলাদেশ বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা

২৫ মে দিল্লিতে বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দানের বিষয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে আলোচনা করেন দেশটির বিরোধী দলীয় নেতারা। এসময় বিরোধী দলীয় নেতারাই বাংলাদেশকে যতো দ্রুত সম্ভব স্বীকৃতি প্রদানের দাবি জানান। এদিন বাংলাদেশের স্বীকৃতি প্রদানের বিষয়ে লোকসভা ও রাজ্যসভা দুই জায়গাতেই আলোচনা হয়।

রাজ্যসভার আলোচনায় বক্তৃতা দেন জনসংঘের নেতা অটলবিহারী বাজপেয়ী, কেন্দ্রীয় শ্রম ও পুনর্বাসনমন্ত্রী রঘুনাথ কেসব খাদিলকর, আইনমন্ত্রী অশোককুমার সেন, নব কংগ্রেসের জে বি পট্টনায়েক, ভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টির নেতা দশরথ দেব, আর এস্পির ত্রিদিবকুমার চৌধুরীসহ অনেকে। এদিন বাংলাদেশ বিষয়ে আলোচনার জন্য লোকসভায় বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল চার ঘণ্টা, অন্যদিকে রাজ্যসভায় বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল ৫ ঘণ্টা।

লোকসভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সরদার শরণ সিং বলেন, বাংলাদেশকে স্বীকৃতি প্রদানের প্রশ্নে ভারতের কোনো আপত্তি নেই, কিন্তু কিছু বিষয় বিবেচনা করতে হবে। কারণ তাদের ভূখণ্ড কতোটুকু হবে, তাদের সরকারের তাদের ভূমিতে কর্তৃত্ব কতোখানি- এসব কিছু আমাদের বিবেচনায় রাখতে হবে। একই সঙ্গে বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দিলে আন্তর্জাতিক সমর্থন কতোখানি পাবে, পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক কেমন হবে এ সব কিছু আমাদের ভাবতে হবে। পরিস্থিতি এখনো আমাদের অনুকূলে নয়, তবু আমরা ভাবছি। এদিকে পূর্ববাংলা থেকে শরণার্থীরা দলে দলে ভারতে প্রবেশ করছে। এখন যদি শিগগির পূর্ববঙ্গে স্বাভাবিক পরিস্থিতি না ফিরে আসে তবে ভারতের উপরেই চাপ পড়বে। সুতরাং সব কিছু মিলেই আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

বাঙালি নাবিকের জাহাজ থেকে ভারতে আশ্রয় গ্রহণ

২৫ মে কলকাতা বন্দরে নোঙর করা ব্রিটিশ জাহাজ এসএল কুইলারা থেকে এর বাঙালি নাবিক আমির আহমেদ জাহাজ থেকে পানিতে ঝাঁপ দিয়ে ভারতে আশ্রয় গ্রহণ করেন। এই জাহাজে একমাত্র তিনিই বাঙালি ছিলেন। বাকি সব নাবিক ছিলেন পশ্চিম পাকিস্তানি। তিনি স্বেচ্ছায় নামতে গেলে, পশ্চিম পাকিস্তানি নাবিকেরা বাঁধা দিয়েছিলেন। এসময় আমির আহমেদ পানিতে ঝাঁপ দিয়ে চিৎকার করতে শুরু করলে কলকাতা বন্দরের কর্মকর্তা কর্মচারীরা তাকে উদ্ধার করেন। এরপর তিনি ভারতে আশ্রয় চাইলে তাকে তা দেয়া হয়।

ঢাকায় ২৫ মে

২৫ মে পূর্ব পাকিস্তানের সামরিক কর্তৃপক্ষ ২১নং সামরিক অধ্যাদেশ জারি করে। এর মাধ্যমে বাতিল করা হয় মিউনিসিপ্যাল কমিটি। জনপ্রতিনিধির জায়গায় ক্ষমতা দেয়া হয় সামরিক শাসনকর্তা ও তাদের মনোনীত রাজাকারদের।

২৫ মে ঢাকায় সরকারি এক বার্তায় বলা হয়, ভোলা থেকে নির্বাচিত প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য মোশাররফ হোসেন ওরফে শাহজাহান বেআইনি ঘোষিত আওয়ামী লীগের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করে পাকিস্তান সরকারের পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন। তিনি প্রেসিডেন্টের কার্যক্রমকে যুক্তিসঙ্গত অভিহিত করে এ ব্যাপারে সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

পাকিস্তানে ইন্দিরা গান্ধীর লোকসভায় বক্তৃতার বিরোধিতা

২৫ মে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর লোকসভায় আগের দিন দেয়া বক্তব্যের প্রতিবাদ জানায় পাকিস্তান। ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত পি কে আচার্যকে দেওয়া এক চিঠিতে পাকিস্তান বলে, কোনো প্ররোচনা ছাড়াই ইন্দিরা গান্ধী ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চান। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বশীল আচরণ করা উচিৎ।

২৫ মে পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খানের কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করায় পাকিস্তানের উর্দু পত্রিকা "আজাদ" এর সম্পাদক এবং পাকিস্তান ফেডারেল ইউনিয়ন অব জার্নালিস্টের সভাপতি আবদুল মালিককে এক বছরের কারাদণ্ড ও আর্থিক জরিমানা করে সামরিক আদালত। এর কয়েকদিন আগে আবদুল মালিক লাহোরে এক বক্তৃতায় ইয়াহিয়ার খানের সাম্প্রতিক পদক্ষেপ ও দায়িত্বহীনতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে সমালোচনা করেছিলেন।

দেশজুড়ে গণহত্যা, প্রতিরোধ ও বিবৃতি

২৫ মে রাতে মুক্তিবাহিনীর একটি দল বাটপাড়া জোরকাননের কাছে পাকিস্তানি হানাদারদের বহনকারী একটি ট্রাক ও একটি আরআর রাইফেল-এর জিপ অ্যামবুশ করে ধ্বংস করে। এতে হানাদার বাহিনীর ২০ জন সেনাসহ ট্রাক ও জীপ পুড়িয়ে দেয়া হয়।

২৫ মে মুক্তিবাহিনীর ছোট একটি দল কুমিল্লার শালদা নদীতে পাকিস্তানি হানাদারদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। মুক্তিবাহিনীর এ অভিযানে হানাদারদের এক জেসিও এবং পাঁচ সৈন্য নিহত হয়।

২৫ মে রাতে হানাদার বাহিনী ধরলা নদী পার হয়ে জয়মনিরহাট মুক্ত এলাকা দখলের জন্য প্রবল গোলাবর্ষণ করে।

২৫ মে পাকিস্তানি হানাদারেরা সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় অবস্থানরত মুক্তবাহিনীর  উপর হামলা চালায়। প্রথমে মুক্তিবাহিনী প্রতি আক্রমণ গড়ে তুললেও এক পর্যায়ে হানাদারদের প্রবল আক্রমণের মুখে পিছু হটে।

২৫ মে পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে নির্বাচিত এমএলএ চাকমা রাজা ত্রিদিব রায় পাকিস্তানের প্রতি আনুগত্য ঘোষণা করে বিবৃতি দেন।

২৫ মে আব্দুল মান্নানকে সভাপতি করে ভৈরবে ২৭ সদস্য বিশিষ্ট শান্তি কমিটি গঠন করা হয়।

২৫ মে পার্বতীপুর-জয়পুরহাট রেলপথের পাঁচবিবিতে পাকিস্তানি হানাদারদের সৈন্য বহনকারী একটি ট্রেনে অ্যামবুশ করে মুক্তিবাহিনী। এসময় রেলের ইঞ্জিন ও বগি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

২৫ মে মুক্তিযোদ্ধাদের গ্রেনেড হামলায় রাজশাহী শহরে পাওয়ার হাউসের একাংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

তথ্যসূত্র -

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের দলিলপত্র পঞ্চম, সপ্তম, অষ্টম, নবম, দ্বাদশ খণ্ড

দৈনিক পাকিস্তান, ২৬ মে ১৯৭১

দৈনিক অমৃতবাজার পত্রিকা ২৬ মে ১৯৭১

আহমাদ ইশতিয়াক [email protected] 

আরও পড়ুন-

২৪ মে ১৯৭১: ভারতের লোকসভায় বাংলাদেশ প্রসঙ্গে আলোচনা ও বিতর্ক

Comments

The Daily Star  | English

Free rein for gold smugglers in Jhenaidah

Since he was recruited as a carrier about six months ago, Sohel (real name withheld) transported smuggled golds on his motorbike from Jashore to Jhenaidah’s Maheshpur border at least 27 times.

9h ago