রাসায়নিক ভর্তি জাহাজে আগুন, শ্রীলঙ্কায় অ্যাসিড বৃষ্টির আশঙ্কা

গত সপ্তাহে কলম্বো সমুদ্র সৈকতের কাছে সিঙ্গাপুরের পতাকাবাহী একটি কার্গো জাহাজে আগুন লেগে নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড নির্গত হওয়ায় শ্রীলঙ্কায় সামান্য অ্যাসিড বৃষ্টি হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে।
SRI-LANKA.jpg
গত সপ্তাহে কলম্বো সমুদ্র সৈকতের কাছে একটি কার্গো জাহাজে আগুন লেগে নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড নির্গত হয়। ছবি: রয়টার্স

গত সপ্তাহে কলম্বো সমুদ্র সৈকতের কাছে সিঙ্গাপুরের পতাকাবাহী একটি কার্গো জাহাজে আগুন লেগে নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড নির্গত হওয়ায় শ্রীলঙ্কায় সামান্য অ্যাসিড বৃষ্টি হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, এমভি ‘এক্স-প্রেস পার্ল’ নামের ওই কার্গো জাহাজ গুজরাটের হাজিরা থেকে কলম্বো বন্দরে প্রসাধনী সামগ্রীর জন্য রাসায়নিক ও অন্যান্য কাঁচামালের চালান বহন করছিল। কলম্বো উপকূল থেকে ৯ দশমিক ৫ নটিক্যাল মাইল দূরে জাহাজটিতে আগুন লেগে যায়। ফলে গত ২০ মে কলম্বো বন্দরের বাইরে জাহাজটিকে নোঙ্গর করা হয়েছিল।

জাহাজটির ট্যাঙ্কগুলোতে ৩২৫ মেট্রিক টন জ্বালানী ছাড়াও ১ হাজার ৪৮৬টি কন্টেইনারে প্রায় ২৫ টন বিপজ্জনক নাইট্রিক অ্যাসিড ছিল।

মেরিন এনভায়রনমেন্ট প্রটেকশন অথরিটি’র (এমইপিএ) চেয়ারপারসন ধারশানি লাহান্দাপুরা বলেন, ‘আমরা লক্ষ্য করেছি যে, এমভি এক্সপ্রেস পার্ল থেকে নাইট্রোজেন ডাইঅক্সাইডের নির্গমন খুবই প্রবল। বর্ষার মৌসুমে এই গ্যাস নির্গত হওয়ার ফলে হালকা এসিড বৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা আছে।’

তিনি আরও জানান, বিশেষ করে উপকূলীয় এলাকার আশপাশের মানুষদের বেশি সতর্ক থাকতে হবে এবং কোনোভাবেই এই সময়ে বৃষ্টিতে ভেজা যাবে না।

এমইপিএ জানিয়েছে, জাহাজের আগুন এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে এবং দূষণের ঝুঁকি এড়াতে সৈকত পরিষ্কার করার জন্য কর্তৃপক্ষ যাবতীয় ব্যবস্থা নিয়েছে।

এদিকে, শ্রীলঙ্কা নৌবাহিনী কনটেইনার জাহাজে আগুন নেভাতে মঙ্গলবার উদ্ধারকারী জাহাজ পাঠিয়েছে ভারত।

ভারতীয় হাই কমিশন এই যৌথ দমকলের প্রচেষ্টা সম্পর্কে জানায়, বর্তমানে কেবল জাহাজের উপরের অংশে ভারী ধোঁয়া দেখা যাচ্ছে এবং সেটিও নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।

নেভির কমান্ডার নিশান্ত ওলুজেটেন জানান, জাহাজটি এখন অনেকটাই স্থিতিশীল আছে, এটি দুই ভাগে ভেঙ্গে পড়ার কোনও সম্ভাবনা নেই।

মঙ্গলবার ফায়ার অ্যালার্ম পাওয়া মাত্রই জাহাজে থাকা ২৫ জন ভারতীয়, চীনা, রাশিয়ান ও ফিলিপিনো ক্রুদের উদ্ধার করা হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English
fire incident in dhaka bailey road

Fire Safety in High-Rise: Owners exploit legal loopholes

Many building owners do not comply with fire safety regulations, taking advantage of conflicting legal definitions of high-rise buildings, according to urban experts.

9h ago