উপরে ব্যাট করার সুযোগ আসবে না, এটাই বাস্তবতা: সাইফুদ্দিন

সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি সংস্করণের ঢাকা লিগ। মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সকাল ৯টায় আবাহনীর প্রথম প্রতিপক্ষ পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব।
Mohammad Saifuddin
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

কদিন আগে জাতীয় দলের হয়ে পাঁচ-ছয় নম্বরে ব্যাট করার ইচ্ছার কথা জানিয়েছিলেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। তবে জায়গা ফাঁকা না থাকায় বাস্তবে তা সম্ভব না, এটা ঠিকই বুঝেন তিনি। ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগেও অবশ্য বদলাচ্ছে না তার বাস্তবতা। তারকায় ভরা আবাহনী লিমিটেডে খেলেন বলেই ইচ্ছাপূরণের আভাস পাচ্ছেন না তিনি।

সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি সংস্করণের ঢাকা লিগ। মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সকাল ৯টায় আবাহনীর প্রথম প্রতিপক্ষ পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব।

শ্রীলঙ্কা সিরিজে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মাথায় চোট পেয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়েছিলেন। তার কনকাশন বদলি হিসেবে সেদিন খেলেন তাসকিন আহমেদ। শেষ ম্যাচেও সাইফুদ্দিনকে দেখা যায়নি। তবে সেই চোট একদম ঠিকঠাক।

পেস বোলিং এই অলরাউন্ডারকে রোববার মিরপুর একাডেমি মাঠে পাওয়া গেল প্রিমিয়ার লিগের প্রস্তুতিতে।

পেস অলরাউন্ডার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে ঘরোয়া ক্রিকেটে উপরে ব্যাট করা প্রয়োজন। প্রিমিয়ার লিগে তেমন কিছু দেখা যাবে কিনা জানতে চাইলে সাইফুদ্দিনের হতাশার উত্তর,  ‘সুযোগ আসবে না (উপরে ব্যাট করার), এটাই বাস্তবতা। শুধু শুধু বলে তো লাভ নেই! ঘুরে-ফিরে সাতেই ব্যাট করতে হবে। অবশ্যই টিম ম্যানেজমেন্ট আফিফের আগে আমাকে নামাবে না। তারপরও এক-দুইটা ম্যাচে সুযোগ দেওয়ার জন্য টিম ম্যানেজমেন্টকে অনুরোধ করবো।’

লিটন দাস, নাঈম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, আফিফ হোসেন। আবাহনীর ব্যাটিং লাইনআপের নামগুলোই বলে দেয় তাদের ব্যাটিং অর্ডার।

সাইফুদ্দিন তবু আশায় আছেন, দু’একটা ম্যাচে হলেও যদি উপরে খেলার সুযোগ আসে,  ‘যদি দল সুযোগ দেয়, যেহেতু গতবার আবাহনীর হয়ে ব্যাট হাতে দারুণ অবদান রেখেছি। যদি উনারা মনে করে তাহলে অবশ্যই। আমি ওপরে খেলতে আগ্রহী।’

জাতীয় দলে সুযোগ মেলে আট নম্বরে। আবাহনীতে সাতে ব্যাট করলেও করে দেখানোর সুযোগ থাকছে তার। ফিনিশার হিসেবে নিজেকে চাইলে মেলে ধরতে পারেন তিনি। তবে ‘ফিনিশার’ হিসেবে নিজের প্রতিষ্ঠা এখনো অনেক দূরে দেখছেন সাইফুদ্দিন নিজেই, ‘আজ-কাল বললাম আর এক সপ্তাহ বা মাসের মধ্যে সেরা ফিনিশার হয়ে যাব- এটা কঠিন। হয়ত ঘরোয়া ক্রিকেটে নিজেকে কিছুটা প্রমাণ করতে পেরেছি। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ফিনিশারের ভূমিকা পালন করতে হলে আরও বড় ভূমিকা পালন করতে হবে, আরও অনেক বেশি সুযোগ পেতে হবে; সেটা প্র্যাকটিস হোক বা ম্যাচে হোক।’

Comments

The Daily Star  | English

$7b pledged in foreign funds

When Bangladesh is facing a reserve squeeze, it has received fresh commitments for $7.2 billion in loans from global lenders in the first seven months of fiscal 2023-24, a fourfold increase from a year earlier.

4h ago