আগুন লেগে ডুবে গেছে ইরানের নৌবাহিনীর বৃহত্তম জাহাজ

হরমুজ প্রণালীর কাছে আগুন লাগার পর ইরানের নৌবাহিনীর অন্যতম বৃহত্তম জাহাজটি ডুবে গেছে।
আগুন লাগার পর জাহাজটি থেকে দিনের বেলা তোলা ছবিতে কালো ধোঁয়া বের হতে দেখা গেছে। ২ জুন ২০২১। ছবি: রয়টার্স

হরমুজ প্রণালীর কাছে আগুন লাগার পর ইরানের নৌবাহিনীর অন্যতম বৃহত্তম জাহাজটি ডুবে গেছে।

আজ বুধবার রাতে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইরানের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, নিকটবর্তী একটি দ্বীপের নামানুসারে এই জাহাজটির নাম রাখা হয় খার্গ। যেটি মূলত তেল টার্মিনাল হিসেবে কাজ করে। স্থানীয় সময় বুধবার ভোরে এতে আগুন ধরে যায় এবং ২০ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে উদ্ধার কাজ চালিয়েও এটি রক্ষা করা সম্ভব হয়নি।

রাতে তোলা একটি ছবিতে দেখা গেছে যে, লাইফ জ্যাকেট পরিহিত ক্রুদের পেছনে আগুন জ্বলছে এবং তারা পালানোর চেষ্টা করছেন। দিনের বেলা তোলা আরেকটি ছবিতে দেখা গেছে সেখান থেকে ভারী ধোঁয়া বের হচ্ছে এবং তখনো আগুন জ্বলছিল।

ইরানের সেনাবাহিনী খার্গকে একটি ‘প্রশিক্ষণ জাহাজ’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে এবং নিশ্চিত করেছে যে, জাহাজটিতে প্রায় ৪০০ জন ক্রু এবং প্রশিক্ষণার্থী ছিল। তবে, তাদের সবাইকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় এক সেনা কর্মকর্তা দেশটির সংবাদ সংস্থা তাসনিমকে জানিয়েছেন, এ ঘটনায় ২০ জন সামান্য দগ্ধ হয়েছেন।

আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে কোনো কিছু এখনো জানানো হয়নি। তবে, একজন সেনা কর্মকর্তা ইরানের আইআরএনএ-কে জানিয়েছেন, ইঞ্জিন রুম থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় এবং জাহাজটির কিছু অংশ পুড়ে সমুদ্রে পড়ে যায়।

জাহাজটি রাজধানী তেহরান থেকে প্রায় ১,২৭০ কিলোমিটার (৭৯০ মাইল) দক্ষিণ-পূর্বে এবং হরমুজ প্রণালীর কাছাকাছি ডুবে যায়।

জাহাজটি ব্রিটেনে নির্মিত হয়েছিল এবং ইরানের ১৯৭৯ সালের বিপ্লবের কিছুদিন আগে চালু করা হয়েছিল। পরে কয়েক বছর আলোচনার পরে ১৯৮৪ সালে এটি ইরানের নৌবাহিনীতে প্রবেশ করে।

Comments

The Daily Star  | English

Can AI unlock productivity and growth?

If you watched Nvidia CEO Jensen Huang's remarkable presentation at Taipei Computex last month, you would be convinced that AI has ushered in a new Industrial Revolution, in which accelerated computing with the latest AI chips unleashed the power of doing everything faster, more efficiently, and with less energy

11m ago