সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশনের নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি

সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। গত ১৪ জুন অনুষ্ঠিত সংগঠনটির সাধারণ সভায় নতুন কমিটি আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব নেয়।
রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা ও কুমার বিশ্বজিৎ।

সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। গত ১৪ জুন অনুষ্ঠিত সংগঠনটির সাধারণ সভায় নতুন কমিটি আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব নেয়।

আজ বুধবার সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ থেকে দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ১৪ জুন ‘সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’র চতুর্থ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। অস্থায়ী আহ্বায়ক কমিটির আহ্বায়ক রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যার সভাপতিত্বে অনলাইনে অনুষ্ঠিত এই সভায় দেশের বিভিন্ন প্রজন্মের ৫০ জন সংগীতশিল্পী অংশ নেন। সভার শুরুতেই বিগত সময়ে প্রয়াত সব সংগীতশিল্পীদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ও তাদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়। সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করা হয় সব বীর মুক্তিযোদ্ধাদের।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুগ্ম আহবায়ক কুমার বিশ্বজিৎ। হাসান আবিদুর রেজা জুয়েলের সঞ্চালনায় এরপর সব সদস্যদের কাছে বিগত ছয় মাসে সংগঠনের কার্যক্রম তুলে ধরা হয়। সংগীত সংশ্লিষ্ট তিন সংগঠনের চলমান ১৭ দফা দাবি নিয়ে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে দুই দফা বৈঠকের অগ্রগতির বিস্তারিত আলোচনাও হয় সভায়।

এরপর সংগঠনের উপদেষ্টা রফিকুল আলম ২০২১-২০২৩ সালের জন্য দুই বছর মেয়াদি কার্যনির্বাহী কমিটির নাম প্রস্তাব করেন। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি আগামী দুই বছরের জন্য দায়িত্ব গ্রহণ করে।

২৩ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, সহ-সভাপতি তপন চৌধুরী ও সামিনা চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক কুমার বিশ্বজিৎ। বাকিরা হলেন, সহ-সাধারণ সম্পাদক হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল, সাংগঠনিক সম্পাদক জয় শাহরিয়ার, অর্থ সম্পাদক চন্দন সিনহা, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক সোমনুর মনির কোনাল, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক কিশোর দাস, প্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক সাব্বির জামান, আইন ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মইদুল ইসলাম খান শুভ, দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক ইউসুফ আহমেদ খান। কার্যকরী সদস্যরা হলেন— রবি চৌধুরী, আঁখি আলমগীর, অনিমা রায়, আলিফ আলাউদ্দিন, লাবিক কামাল গৌরব, ইলিয়াস হোসেইন, সমরজিত রায়, পিন্টু ঘোষ, সন্দিপন দাস, সাজিয়া সুলতানা পুতুল ও সাহস মোস্তাফিজ।

এর পাশাপাশি ১৭ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা কমিটিও ঘোষণা করা হয়। এই কমিটিতে রয়েছেন— ফেরদৌসী রহমান, সৈয়দ আবদুল হাদী, নিয়াজ মোহাম্মদ চৌধুরী, খুরশীদ আলম, রফিকুল আলম, ফকির আলমগীর, লিনু বিল্লাহ, শাহীন সামাদ, রথীন্দ্রনাথ রায়, পাপিয়া সারোয়ার, ফেরদৌস আরা, তপন মাহমুদ, ইয়াকুব আলী খান, ফাতেমা তুজ জোহরা, আবিদা সুলতানা, কিরণ চন্দ্র রায় ও শাফিন আহমেদ।

সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত কমিটির সভাপতি রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা সমাপনী বক্তব্যে বাংলাদেশের সব সংগীতশিল্পীর আর্থিক ও নৈতিক অধিকার আদায়ে সংগঠন নিরলসভাবে কাজ করে যাবে বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

Comments

The Daily Star  | English

1.6m marooned in Sylhet flood

Eid has not brought joy to many in the Sylhet region as homes of more than 1.6 million people were flooded and nearly 30,000 had to move to shelter centres.

6h ago