বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ইমরান খান বিশ্বখ্যাত আলেফ হোল্ডিংয়ের চেয়ারম্যান

বিশ্বের বৃহত্তম ডিজিটাল মিডিয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর বৈশ্বিক অংশীদার আলেফ হোল্ডিংয়ের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন প্রযুক্তি খাতের বিনিয়োগকারী ও উদ্যোক্তা বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ইমরান খান।
ডিজিটাল মিডিয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর বৈশ্বিক অংশীদার আলেফ হোল্ডিংয়ের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ইমরান খান। ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের বৃহত্তম ডিজিটাল মিডিয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর বৈশ্বিক অংশীদার আলেফ হোল্ডিংয়ের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন প্রযুক্তি খাতের বিনিয়োগকারী ও উদ্যোক্তা বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ইমরান খান। 

আজ বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আলেফ হোল্ডিং এ তথ্য জানায়।

এতে বলা হয়, আলেফ এ বছর ১০০ কোটি ডলার রাজস্ব উপার্জনে আশাবাদী। নতুন বাজারে প্রবেশ করে, অতিরিক্ত অংশীদার যুক্ত করে এবং বহুমুখী সেবা ও প্রযুক্তি দেওয়ার মাধ্যমে ইমরান খান প্রতিষ্ঠানটিকে এই মাইলফলক অতিক্রম করতে সাহায্য করবেন।

ইমরান খান বলেন, আলেফের ব্যবসার ধরন অনন্য। 

তিনি বলেন, পাঁচ বছর আগে গ্যাস্টন টারাটুটা স্ন্যাপ-এর সাথে তার প্রতিষ্ঠানের একটি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি করার সময় তার সাথে প্রথম দেখা হয়। তখন থেকেই আমি এই প্রতিষ্ঠানের ওপর নজর রেখে আসছি, কারণ আলেফ-এর ব্যবসার ধরন অনন্য। এই প্রতিষ্ঠানের বৈশ্বিক অবকাঠামো স্থানীয় অভিজ্ঞতার সাহায্যে জোরদার হয়েছে। এর সাথে প্রতিষ্ঠানটি এমনভাবে উদ্ভাবনী প্রযুক্তির সমন্বয় ঘটায়, যা এই ক্ষেত্রে আর কোনো প্রতিষ্ঠান পারে না। তারা যে প্ল্যাটফর্মগুলোর প্রতিনিধিত্ব করছে, তার ব্যাপকতা আর যে বাজারেই তারা প্রবেশ করে, সেখানকার বিজ্ঞাপনদাতাদের ওপর তাদের ইতিবাচক প্রভাব দেখে আমি মুগ্ধ হয়েছি। এটি এমন একটি মডেল, যার প্রচুর উন্নতির সুযোগ আছে।

আলেফ হোল্ডিংয়ের সিইও গ্যাস্টন টারাটুটা জানান, ‘ইমরান বিপুল অভিজ্ঞতা নিয়ে আমাদের প্রতিষ্ঠানে আসছেন। আমাদের যাত্রার পরবর্তী ধাপের জন্য তার উদ্যোক্তা-চিন্তা ও বৈশ্বিক প্রযুক্তি বিষয়ক অভিজ্ঞতার সমন্বয় যথার্থ। ২০০৫ সালে মাত্র ৫০০০ ইউএস ডলার নিয়ে আমি এই ব্যবসাটি শুরু করেছি, আর আজ আমরা ১ বিলিয়ন ইউএস ডলার রাজস্ব নিয়ে বছরটি শেষ করার দিকে এগোচ্ছি। আলেফ-এ আমরা গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক সুযোগের সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছি এবং আমাদের লক্ষ্য অর্জনে সহায়তা ইমরান মুখ্য ভূমিকা পালন করবেন।

বাংলাদেশে জন্ম ও বড় হওয়া ইমরান খান ছোটবেলায় তুখর তার্কিক ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি শিক্ষার্থী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান এবং সেখানে ২০০০ সালে ডেনভার বিশ্ববিদ্যালয়ের ড্যানিয়েলস্‌ কলেজ অফ বিজনেস থেকে পড়াশোনা শেষ করেন। তিনি পৃথিবীর বৃহত্তম দুই টেক আইপিও, আলিবাবা এবং স্ন্যাপ-এর নেতৃত্ব দিয়েছেন। প্রগতিশীল প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করা নিয়ে ইমরান সুপরিচিত।

আলেফ হোল্ডিং ডিজিটাল মিডিয়া প্রতিষ্ঠান (যেমন- ফেসবুক, টুইটার, লিংকডইন, স্ন্যাপচ্যাট, টুইচ ও টিকটক) তাদের ওপর নির্ভরশীল বিজ্ঞাপনদাতাদের সাথে যুক্ত করে দেয়। এসব বিজ্ঞাপনদাতাদের মধ্যে বৈশ্বিক ব্র্যান্ড এবং উঠতি উদ্যোক্তাও রয়েছেন। বিশ্বের ৭০টির বেশি বাজারে প্রতিষ্ঠানটি ডিজিটাল মিডিয়ার প্রদানকৃত সুবিধাগুলো প্রতিটি কোণায় যাতে পৌঁছে যায় তা নিশ্চিত করে আসছে।    

 

Comments

The Daily Star  | English

BCL men 'beat up' students at halls

At least six residential students of Dhaka University's Sir AF Rahman were beaten up allegedly by a group of Chhatra League activists of the hall unit for "taking part" in the anti-quota protest tonight and posting their photos on social media

3h ago