গণপূর্ত অফিসে অস্ত্রের মহড়া

পাবনার সেই ২ ঠিকাদারের অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল

পাবনার গণপূর্ত অফিসে অস্ত্রের মহড়া দেওয়ার ঘটনায় দুই ঠিকাদারের অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল করেছে পাবনা জেলা প্রশাসন। আজ বৃহস্পতিবার পাবনা জেলা প্রশাসন তাদের অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিলের আদেশ দেয়।
ছবি: সংগৃহীত

পাবনার গণপূর্ত অফিসে অস্ত্রের মহড়া দেওয়ার ঘটনায় দুই ঠিকাদারের অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল করেছে পাবনা জেলা প্রশাসন। আজ বৃহস্পতিবার পাবনা জেলা প্রশাসন তাদের অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিলের আদেশ দেয়।

পাবনা জেলা প্রশাসক কবির মাহামুদ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার মামুন ও লালুর অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল করা হয়।’

অস্ত্র আইনের শর্ত ভঙ্গ করায় নিয়ম অনুযায়ী তাদের অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

এ ঘটনায় গণপূর্ত বিভাগ কোনো মামলা না করলেও, পাবনা জেলা পুলিশ ঘটনার তদন্ত করে। তদন্ত শেষে তাদের অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিলের সুপারিশ করে গত মঙ্গলবার পাবনা জেলা প্রশাসনের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ।

গত ৬ জুন দুপুরে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাজী ফারুক, পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ আর খান মামুন ও জেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য শেখ লালুর নেতৃত্বে প্রায় ২৫ থেকে ৩০ জনের একটি দল একাধিক আগ্নেয়াস্ত্র হাতে নিয়ে গণপূর্ত ভবনে যান।

তারা গণপূর্ত ভবনের বিভিন্ন কক্ষে প্রবেশ করে নির্বাহী প্রকৌশলী আনোয়ারুল আজিমকে খুঁজতে থাকেন। কিছুক্ষণ পর তারা বের হয়ে যায়।

এ সময় আওয়ামী লীগ নেতা এ আর মামুন ও যুবলীগ নেতা শেখ লালু তাদের লাইসেন্স করা অস্ত্র নিয়ে ওই শো-ডাউনে অংশ নেন।

এ ঘটনার সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর মামুন ও লালু পাবনা সদর থানায় তাদের অস্ত্র জমা দেওয়ার পর সেগুলো জব্দ করা হয়।

এ দিকে, অস্ত্রের মহড়া দেওয়ার ঘটনায় দুই ঠিকাদারকে দলীয় পদ থেকে কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না, তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগ।

পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল আহাদ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘গণপূর্তের এ ঘটনায় পাবনা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা হাজি ফারুক ও পৌর আওয়ামী লীগের নেতা এ আর মামুনকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে তাদের কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।’

গতকাল বুধবার পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন:

অস্ত্র নিয়ে মহড়ার পর আজ সেই অস্ত্র জমা দিলেন ২ আওয়ামী লীগ নেতা

পাবনার ঘটনা সরকারি কাজে পেশিশক্তি ব্যবহারের চূড়ান্ত বহিঃপ্রকাশ: টিআইবি

Comments

The Daily Star  | English
Corruption Allegations Against NBR Official Matiur's Wife, Laila Kaniz Lucky

How Lucky got so lucky!

Laila Kaniz Lucky is the upazila parishad chairman of Narsingdi’s Raipura and a retired teacher of a government college.

10h ago