প্রবাসে

টিকা নিয়ে আগস্ট থেকে কুয়েতে প্রবেশ করতে পারবেন প্রবাসীরা

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় টানা পাঁচ মাসের নিষেধাজ্ঞা পর কুয়েতে প্রবাসীদের প্রবেশের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আগামী ১ আগস্ট থেকে টিকা নেওয়া বৈধ প্রবাসীরা কুয়েতে প্রবেশের অনুমতি পাবেন বলে গতকাল বৃহস্পতিবার সরকারি ঘোষণায় জানানো হয়।
kuwait_Airport.jpg
করেনাকালে কুয়েত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় টানা পাঁচ মাসের নিষেধাজ্ঞা পর কুয়েতে প্রবাসীদের প্রবেশের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আগামী ১ আগস্ট থেকে টিকা নেওয়া বৈধ প্রবাসীরা কুয়েতে প্রবেশের অনুমতি পাবেন বলে গতকাল বৃহস্পতিবার সরকারি ঘোষণায় জানানো হয়।

সরকারের মুখপাত্র তারিক আল-মাজরাম ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জানান, যারা ফাইজার-বায়োএনটেক, মর্ডানা বা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার দুটি ডোজ বা জনসন ও জনসন টিকার একটি শট পেয়ে পেয়েছেন তারা কুয়েতে প্রবেশ করতে পারবেন। কুয়েতে প্রবেশের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করা আরটি-পিসিআর পরীক্ষায় করোনা নেগেটিভ সনদ প্রবাসীদের সঙ্গে রাখতে হবে। কুয়েতে প্রবেশের পর সাত দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। কুয়েতে দ্বিতীয় দফায় আরটি-পিসিআর পরীক্ষার পরে কোয়ারেন্টিন শেষ হবে।

তিনি আরও বলেন, প্রবাসীদের প্রত্যাবর্তনের প্রক্রিয়া এবং বিমানবন্দরে ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে আরও বিস্তারিত তথ্য আগামী কয়েক দিনের মধ্যে ঘোষণা করা হবে।

টিকা নেওয়ার প্রমাণপত্র দেওয়ার জন্য কুয়েত মোবাইল আইডি বা ইমিউন অ্যাপ্লিকেশনগুলো ব্যবহার করার আহ্বান জানিয়েছেন তারিক আল-মাজরাম।

এখন টিকা নেওয়া প্রবাসীরা কুয়েত ফিরে যেতে পারবেন এবং কেউ চাইলে কুয়েত থেকে নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার পরিকল্পনাও করতে পারেন। এতদিন নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা বাংলাদেশসহ ৩৬টি দেশের শুধুমাত্র স্বাস্থ্যকর্মী, কূটনীতিক ও গৃহকর্মীদের প্রবেশে অনুমতি ছিল।

গত ১০ মে থেকে বাংলাদেশসহ চারটি দেশ থেকে সরাসরি বাণিজ্যিক ফ্লাইট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। সে ক্ষেত্রে টিকা নেওয়া প্রবাসী কর্মীদের সরাসরি কুয়েত ফেরা আপাতত সম্ভব না-ও হতে পারে। বিকল্প হিসেবে ট্রানজিট নিয়ে ফেরা সম্ভব হবে কি না সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট সিদ্ধান্ত হয়নি।

কুয়েতে নতুন ধরনের করোনভাইরাস সংক্রমণের হার বেড়েছে। গত সপ্তাহ ধরে দৈনিক শনাক্ত এক হাজার ৩০০ ছাড়িয়েছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে এ পর্যন্ত তিন লাখ ৩৪ হাজার ২১৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে এক হাজার ৮৪২ জন মারা গেছেন এবং তিন লাখ ১৫ হাজার ৬৪৫ জন সুস্থ হয়েছে।

এজাজ মাহমুদ, ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক

 

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka Airport Third Terminal: 3rd terminal to open partially in October

HSIA’s terminal-3 to open in Oct

The much anticipated third terminal of the Dhaka airport is likely to be fully ready for use in October, enhancing the passenger and cargo handling capacity.

9h ago