সফল অপারেশনের পর হাসপাতাল ছাড়লেন এরিকসেন

ইন্টার মিলানের এই মিডফিল্ডার বলেছেন, ‘বিপুল পরিমাণ শুভেচ্ছার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। এটা দেখতে পাওয়া ও অনুভব করাটা অসাধারণ।’
eriksen
ছবি: রয়টার্স

কার্ডিয়াক অ্যারেস্টের শিকার হওয়া ডেনমার্কের ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনের শরীরে ‘হার্ট স্টার্টার’ বসানোর অপারেশন সফল হয়েছে। হৃদস্পন্দন স্বাভাবিক রাখার এই যন্ত্র (আইসিডি) দেহের ভিতরে নিয়ে তিনি ইতোমধ্যে হাসপাতাল ছেড়েছেন।

শুক্রবার এরিকসেনকে উদ্ধৃত করে ডেনিশ ফুটবল ফেডারেশন (ডিবিইউ) একটি বিবৃতি দিয়েছে। ক্লাব পর্যায়ে ইন্টার মিলানের হয়ে খেলা এই মিডফিল্ডার বলেছেন, ‘বিপুল পরিমাণ শুভেচ্ছার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। এটা দেখতে পাওয়া ও অনুভব করাটা অসাধারণ।’

গত শনিবার রাতে ২০২০ ইউরোতে কোপেনহেগেনের পারকেন স্টেডিয়ামে ডেনমার্ক-ফিনল্যান্ডের ম্যাচ চলাকালে সবার বুকে কাঁপন ধরিয়েছিলেন এরিকসেন। প্রথমার্ধের ৪৩তম মিনিটে আচমকা কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে মাটিতে ঢলে পড়েছিলেন তিনি। মাঠে কিছুক্ষণ চিকিৎসা চলার পর তাকে স্ট্রেচারে করে নেওয়া হয়েছিল স্থানীয় একটি হাসপাতালে। সেখানে ছয়দিন কাটিয়ে ছাড়া পেয়ে বাড়িতে ফিরতে যাচ্ছেন তিনি। পরিবারের প্রিয়জনদের সান্নিধ্যে যাওয়ার আগে জাতীয় দলের সতীর্থদের সঙ্গে দেখা করেছেন ২৯ বছর বয়সী এই ফুটবলার।

eriksen
ছবি: এএফপি

ইউরোপের সর্বোচ্চ ফুটবল আসর থেকে ছিটকে যাওয়ার শঙ্কায় রয়েছে ডেনমার্ক। ১৯৯২ সালের চ্যাম্পিয়নরা নিজেদের মাটিতে দুই ম্যাচ খেলে দুটিতেই হেরেছে। ফিনল্যান্ডের কাছে অঘটনের শিকার হওয়ার পর শক্তিশালী বেলজিয়ামের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলেও হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। আগামী সোমবার রাতে পারকেন স্টেডিয়ামেই বি গ্রুপের বাঁচা-মরার ম্যাচে রাশিয়াকে মোকাবিলা করবে তারা।

সুস্থ হয়ে ওঠা এরিকসেন দলের জন্য গলা ফাটানোর অপেক্ষায় আছেন, ‘অপারেশন ভালোভাবে সম্পন্ন হয়েছে এবং পরিস্থিতি অনুসারে আমি ভালো করছি। আগের রাতের (বেলজিয়ামের বিপক্ষে) দুর্দান্ত একটি ম্যাচের পর ছেলেদের আবার দেখতে পেরে সত্যিই দারুণ লেগেছে। বলার অপেক্ষা রাখে না, রাশিয়ার বিপক্ষে আমি তাদের চাঙা রাখব।’

উল্লেখ্য, এরিকসেনের বুকে ইমপ্ল্যান্টেবল কার্ডিওভার্টার ডেফিব্রিলেটর (আইসিডি) বসানো হয়েছে। যা একটি ব্যাটারিচালিত ডিভাইস। এটি অনিয়মিত হৃদস্পন্দন শনাক্ত করতে এবং বৈদ্যুতিক শকের মাধ্যমে তা স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরাতে সক্ষম।

Comments

The Daily Star  | English

Death came draped in smoke

Around 11:30, there were murmurs of one death. By then, the fire, which had begun at 9:50, had been burning for over an hour.

5h ago