৩ বার অনুরোধের পরও সভায় উপস্থিত হননি স্বাস্থ্যের ডিজি, সংসদীয় কমিটির ক্ষোভ

জাতীয় সংসদের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম উপস্থিত না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সংসদীয় কমিটি।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজি ডা. খুরশীদ আলম। ছবি: ভিডিও থেকে নেওয়া

জাতীয় সংসদের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম উপস্থিত না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

আজ রোববার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির এ বৈঠকে কোভিড-১৯ মহামারি শুরুর পর এ পর্যন্ত কত টাকার মাস্ক ও কিট ক্রয় করা হয়েছে, ভ্যাকসিন সংকট মোকাবিলায় কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, ভ্যাকসিন জিটুজি নাকি এজেন্টের মাধ্যমে আনা হচ্ছে, কোভিড-১৯ মোকাবিলায় আইসিউ ও অক্সিজেনের বর্তমান অবস্থা ও সম্ভাব্য সংকট থেকে উত্তরণ নিয়ে আলোচনা করা হয়।

বিস্তারিত এই আলোচনায় স্বাস্থ্যের ডিজি উপস্থিত না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করে কমিটি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কমিটির একজন সদস্য দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘বৈঠকে উপস্থিত থাকার জন্য ডিজিকে তার পিএসের মাধ্যমে কমপক্ষে তিনবার অনুরোধ জানানো হয়েছে। তারপরও তিনি কমিটির বৈঠককে গুরুত্ব দেননি। আজ অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা ছিল। কমিটির সভাপতি এ নিয়ে ডিজির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মন্ত্রণালয়কে পরামর্শ দিয়েছেন। যদি ব্যবস্থা নেওয়া না হয়, তবে বিষয়টি সংসদে অধিবেশনে উত্থাপন করা হতে পারে বলে সভাপতি মিটিংয়ে জানান।’

কমিটির সদস্য আব্দুল আজিজ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘স্বাস্থ্যের ডিজি বৈঠকে না আসায় কমিটির পক্ষ থেকে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে।’

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, কমিটির সদস্যরা করোনা মোকাবিলায় সংসদীয় কমিটির সদস্য এবং সমাজের ‘আইকন’ ব্যক্তি, যেমন: ইমাম, পুরোহিত, ফাদার, তারকা খেলোয়াড়দের অন্তর্ভুক্ত না করায় অসন্তোষ জানান। 

কমিটির পক্ষ থেকে বর্তমানে করোনাভাইরাসের ইন্ডিয়ান ভ্যারিয়েন্ট আরও দক্ষভাবে মোকাবিলা করার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।

বৈঠকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য ‘প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা’ এখনো না পৌঁছানোয় অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়। কমিটি সহজতর প্রক্রিয়ায় যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে দ্রুততম সময়ে তাদের পরিবারের কাছে প্রণোদনার অর্থ পৌঁছানোর সুপারিশ করেছে।

কমিটির সদস্য আব্দুল আজিজ বলেন, ‘অনেকে আমাদের কাছে অভিযোগ করেছেন যে, তারা প্রণোদনা পাননি। অনেক ধরনের জটিলতা তৈরি হচ্ছে। এই মানুষগুলো মারা গেছেন। তাদের পরিবার নিঃস্ব। তারা যদি প্রণোদনা ঠিকমত না পান, পরিবার কষ্টে থাকছে। আমরা মন্ত্রণালয়কে বলেছি- দ্রুত এই প্রণোদনা যাতে সংশ্লিষ্টদের পরিবারের কাছে পৌঁছায়।’

সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৈঠকে দেশের সব জনগণকে টিকার আওতায় নিয়ে আসার লক্ষ্যে টিকা উৎপাদন প্রক্রিয়ায় দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে তথ্য বিভ্রান্তি এড়াতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য প্রদান ও পর্যালোচনা শুধু স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রদানের লক্ষ্যে অন্যান্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে সহযোগিতা করার অনুরোধ করা হয়। বৈঠকে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।

শেখ ফজলুল করিম সেলিমের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, আ ফ ম রুহুল হক, মো. আব্দুল আজিজ, সৈয়দা জাকিয়া নুর, রাহগির আলমাহি এরশাদ (সাদ এরশাদ) এবং মো. আমিরুল আলম মিলন অংশ নেন।

Comments

The Daily Star  | English

Israeli occupation 'affront to justice'

Arab states tell UN court; UN voices alarm as Israel says preparing for Rafah invasion

27m ago