শীর্ষ খবর
প্রবাসে

জর্ডানে ফিলিস্তিনিদের জন্য বাংলাদেশের ওষুধ সামগ্রী হস্তান্তর

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ফিলিস্তিনের জনগণের জন্য সহায়তা হিসেবে পাঠানো ওষুধ সামগ্রী হস্তান্তর করা হয়েছে। বাংলাদেশের বিকন গ্রুপ থেকে এসব ওষুধ পাওয়া গেছে বলে জানানো হয়েছে।
বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান হাশেমাইট চ্যারিটি সংস্থার মহাসচিব ড. হুসেইন শিবলির কাছে বাংলাদেশ সরকারের এই সাহায্য হস্তান্তর করেন। ছবি: বাংলাদেশ দূতাবাস

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ফিলিস্তিনের জনগণের জন্য সহায়তা হিসেবে পাঠানো ওষুধ সামগ্রী হস্তান্তর করা হয়েছে। বাংলাদেশের বিকন গ্রুপ থেকে এসব ওষুধ পাওয়া গেছে বলে জানানো হয়েছে। 

আজ সোমবার জর্ডানের রাজধানী আম্মানে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান হাশেমাইট চ্যারিটি সংস্থার মহাসচিব ড. হুসেইন শিবলির কাছে বাংলাদেশ সরকারের এই সাহায্য হস্তান্তর করেন। এসময় জর্ডানে ফিলিস্তিন দূতাবাসের প্রতিনিধিরা উপস্থিতি ছিলেন।

ফিলিস্তিনিদের কাছে সহায়তা পৌঁছানোর জন্য জর্ডান হাশেমাইট চ্যারিটি ফাউন্ডেশনই একমাত্র সংস্থা, যারা জর্ডান সরকার ও দখলদার ইসরাইলি সরকারের সঙ্গে সমন্বয় করে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণের মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রাপ্ত সহায়তা ফিলিস্থিন ভূখণ্ডে পৌঁছে দেয়।

রাষ্ট্রদূত জানান, ওষুধ সামগ্রীর সঙ্গে অর্থ সহায়তা হিসেবে বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া ৫০ হাজার ডলার ফিলিস্তিনি সরকারের রাষ্ট্রীয় কোষাগারে ইতোমধ্যে জমা দেওয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে হাশেমাইট চ্যারিটি ফাউন্ডেশনের মহাসচিব ড. হুসেইন শিবলি ওষুধ সামগ্রী পাঠানোর জন্য বিকন গ্রুপসহ বাংলাদেশ সরকারের প্রতি  ধন্যবাদ জানান।

তিনি বলেন, ‘মুসলিম ভ্রাতৃত্বের অনন্য নজির হিসেবে বাংলাদেশ ফিলিস্তিনের জনগণের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশ সরকার প্রদত্ত চিকিৎসা সহায়তা ফিলিস্তিনি জনগণের মানসিক শক্তিকে দৃঢ় করবে।’

ড. হুসেইন শিবলি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানবিক উদারতার কথা উল্লেখ করে তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

ফিলিস্তিনের জনগণের জন্য বাংলাদেশের পাঠানো ওষুধ সামগ্রী। ছবি: বাংলাদেশ দূতাবাস

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বাংলাদেশ রাষ্ট্রের অভ্যুদয়ের পর থেকেই ফিলিস্তিনের বিষয়ে সবসময় সোচ্চার এবং ফিলিস্তিনিদের প্রতি সহমর্মিতা ও সমর্থন জানিয়ে আসছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতিসংঘে প্রদত্ত তার প্রথম ভাষণেও ফিলিস্তিনিদের প্রতি একাত্মতা পোষণ করে সব দখলদারিত্বের অবসানের আহ্বান জানিয়েছিলেন।’

‘তারই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর যোগ্য উত্তরসূরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি বাংলাদেশের সুদৃঢ় অবস্থান বজায় রেখেছেন। বিশ্বের সব নিপীড়িত ও শোষিত মানুষের প্রতি বাংলাদেশের অকুণ্ঠ সমর্থন রয়েছে এবং সব দখলদারিত্বের অবসান চায়’, বলেন নাহিদা সোবহান।

ফিলিস্তিনি দূতাবাসের প্রতিনিধি তার দেশের জনগণের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতার জনক শেখ মুজিবুর রহমান ফিলিস্তিনির অবিসংবাদিত নেতা ইয়াসির আরাফাতের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সর্ম্পকের কথা স্মরণ  করে বলেন, ‘মানবিক আদর্শের দুই মহান নেতার উত্তরসূরিরা আজও উভয় দেশের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ধরে রেখেছেন। বাংলাদেশ তার আদর্শিক অবস্থান এবং ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি তার সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছে।’

জর্ডানস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ফিলিস্তিনের জনগণের জন্য সাহায্য হিসেবে প্রেরিত ওষুধ সামগ্রী হস্তান্তর করেছে।

Comments

The Daily Star  | English

All animal waste cleared in Dhaka south in 10 hrs: DSCC

Dhaka South City Corporation (DSCC) has claimed that 100 percent sacrificial animal waste has been disposed of within approximately 10 hours

4h ago