তারেক মাসুদ সম্মাননা ৮ ডিসেম্বর

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিত্রনির্মাতা তারেক মাসুদের জন্মদিন উপলক্ষে দেশের চারজন গুণী ব্যক্তিকে আগামী ৮ ডিসেম্বর দেওয়া হবে তারেক মাসুদ সম্মাননা।
tareque masud
তারেক মাসুদ (৬ ডিসেম্বর ১৯৫৬ – ১৩ আগস্ট ২০১১)

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিত্রনির্মাতা তারেক মাসুদের জন্মদিন উপলক্ষে দেশের চারজন গুণী ব্যক্তিকে আগামী ৮ ডিসেম্বর দেওয়া হবে তারেক মাসুদ সম্মাননা।

এ বছর এ সম্মাননা পাচ্ছেন চলচ্চিত্র পরিচালনায় নাসির উদ্দিন ইউসুফ, সংগীতে খায়রুল আনাম শাকিল, অভিনয়ে রোকেয়া প্রাচী এবং সাহিত্যে টোকন ঠাকুর।

বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির পত্রিকা ‘মাদুলি’-র আয়োজনে প্রয়াত তারেক মাসুদের জন্মস্থান ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

‘মাদুলি’ পত্রিকার উপদেষ্টা সম্পাদক ও তারেক মাসুদের সহোদর সাঈদ মাসুদ সংবাদমাধ্যমকে জানান, ভাঙ্গা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করবেন তারেক মাসুদের মা নুরুন্নাহার মাসুদ। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া।

তারেক মাসুদ ১৯৫৬ সালের আজকের দিনে (৬ ডিসেম্বর) ভাঙ্গা উপজেলার নূরপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর প্রথম ফিচার চলচ্চিত্র ‘মাটির ময়না’ ২০০২ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসবে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিটিকস পুরস্কার এনে দেয়।

এর আগে, ১৯৯৫ সালে প্রামাণ্যচিত্র ‘মুক্তির গান’-এর মাধ্যমে তিনি দেশে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেন। তারেক মাসুদের অন্যান্য আলোচিত চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘আদম সুরত’ (১৯৮৯), ‘মুক্তির কথা’ (১৯৯৯), ‘অর্ন্তযাত্রা’ (২০০৬) ও ‘রানওয়ে’ (২০১০)।

উল্লেখ্য. ‘কাগজের ফুল’ শিরোনামে একটি চলচ্চিত্রের শুটিংয়ের কাজে তারেক মাসুদ তাঁর সহকর্মীদের নিয়ে পাবনার ইছামতী নদীর তীরে যান। শুটিংয়ের লোকেশন ঠিক করে ২০১১ সালের ১৩ আগস্ট দুপুরে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন তাঁরা। পথে মানিকগঞ্জ জেলার ঘিওরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি বাসের সঙ্গে তাঁদের বহনকারী মাইক্রোবাসটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে তারেক মাসুদ ও তাঁর দীর্ঘদিনের সহকর্মী বিশিষ্ট চিত্রগ্রাহক মিশুক মুনীরসহ আরও তিনজন দুর্ঘটনাস্থলেই মারা যান।

Comments

The Daily Star  | English

Iranian President Raisi feared dead as helicopter wreckage found

Iran's state television said Monday there was "no sign" of life among passengers of the helicopter which was carrying President Ebrahim Raisi and other officials

54m ago