খুবই বাজে ক্রিকেট খেলেছি: মাশরাফি

আগের তিন ম্যাচেই বড় বড় জয়। শ্রীলঙ্কাকে প্রথম দেখায় ১৬৩ রানে গুড়িয়ে পেয়েছিল নিজেদের ইতিহাসেরই সবচেয়ে বড় জয়। উড়তে থাকা বাংলাদেশ ফাইনালের আগে পড়ল বিব্রতকর পরিস্থিতিতে।
Mashrafee Mortaza
ফাইল ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আগের তিন ম্যাচেই বড় বড় জয়। শ্রীলঙ্কাকে প্রথম দেখায় ১৬৩ রানে গুড়িয়ে পেয়েছিল নিজেদের ইতিহাসেরই সবচেয়ে বড় জয়। উড়তে থাকা বাংলাদেশ ফাইনালের আগে পড়ল বিব্রতকর পরিস্থিতিতে। মাত্র ৮২ রানে গুটিয়ে সেফ্র উড়ে গেছে লঙ্কানদের কাছে। এমন হারের পর অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা কোন অজুহাতের দিকেই গেলেন না। 

বোনাস পয়েন্টসহ দুই ম্যাচ জিতেই ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল বাংলাদেশ। জয়ের ধরনে কি অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস জমা হয়েছিল? মাশরাফি বললেন দলের কারো মধ্যেই এমন মানসিকতা দেখেননি তিনি, ‘সত্যি কথা বলতে কি কাল রাতে বলেন না আজকেও সবাই যখন একসঙ্গে ছিলাম। কাল রাতেও যখন মিটিং হয়েছে। কারো ভেতর এমন দেখিনি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এমন থাকার (অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী) সুযোগ ছিল না, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তো না-ই।’

টস জিতে আগে ব্যাট করে মাত্র ২৪ ওভারে ৮২ রানে অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ। ১২তম ওভারেই সেই রান নিয়ে নেন শ্রীলঙ্কান দুই ওপেনার। এমন হারের একটাই ব্যাখ্যা আছে অধিনায়কের কাছে, ‘যেটা বলতে পারেন আমরা খুবই বাজে ক্রিকেট খেলেছি। আমার কাছে মনে হয় এটা বলাই ঠিক। আবার এটা বলতে পারি যে একটা বাজে দিন গিয়েছে। আমি বলব বাজে ক্রিকেট খেলেছি।’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারতেই পারে বাংলাদেশ। তাতে সমস্যা নেই, অধিনায়কের আপত্তি হারের ধরন নিয়ে, ‘আমরা জানি যে শ্রীলঙ্কা আমাদের হারাতে পারে। কিন্তু এভাবে আমরা হারব সেটা কেউই প্রত্যাশা করিনি। এটাতো তো সত্যি। ড্রেসিং রুমের কেউই এটা বিশ্বাস করবে না যে আমাদেরকে শ্রীলঙ্কা হারাতে পারে না। শেষ তিন ম্যাচ এভাবে খেলার পর এভাবে হারব সেটা হয় না।’

ফাইনালের আগে এমন হারেও ইতিবাচক দিক পাচ্ছেন মাশরাফি। এমন পরিস্থিতিতে পড়লে কি করতে হবে তার শিক্ষাও নিতে চান এই ম্যাচ থেকে, ‘এখনো আমাদের ইতিবাচক ক্রিকেট খেলতে হবে। হয়তোবা ফাইনালের আগে এটা আমাদের জন্য ভালো একটা ওয়েকআপ কল ছিল। অমাদের নার্ভটা আরেকটু শক্ত হবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Clashes rock Shanir Akhra; 6 wounded by shotgun pellets

Panic as locals join protesters in clash with cops; Hanif Flyover toll plaza, police box set on fire; dozens feared hurt

1h ago