রসায়নের ফাঁস হওয়া প্রশ্ন-উত্তরসহ নাটোরে ১০ পরীক্ষার্থী আটক

​নাটোরের লালপুরে রসায়নের ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্র ও উত্তরসহ ১০ জন পরীক্ষার্থীকে আটক করেছে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। আটকদের সবার মোবাইল ফোনে ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্র পাওয়া গেছে।

নাটোরের লালপুরে রসায়নের ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্র ও উত্তরসহ ১০ জন পরীক্ষার্থীকে আটক করেছে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। আটকদের সবার মোবাইল ফোনে ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্র পাওয়া গেছে।

গোপনীয় সূত্রে প্রশ্ন ফাঁসের খবর পেয়ে সকাল ৯টা ২০ মিনিটে লালপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নজরুল ইসলাম চাঁদপুর হাইস্কুল পরীক্ষা কেন্দ্রে অভিযান চালান। আমাদের নাটোর প্রতিনিধিকে তিনি বলেন, যেসব পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে তাদের সবার স্মার্টফোনে রসায়ন পরীক্ষার উত্তরসহ প্রশ্নপত্র পাওয়া গেছে।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট রাজ্জাকুল ইসলাম ও  র‍্যাপিড একশন ব্যাটালিয়েনের একটি দল প্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতদের ধরতে অভিযানে অংশ নেন।

ইউএনও জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক পরীক্ষার্থীদের উপজেলা সদরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ ব্যপারে তদন্ত করে প্রশ্নপত্র ফাঁসের মূল হোতাদের খুঁজে বের করা সম্ভব হবে বলে তার আশা।

এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস রোধে এখন পর্যন্ত বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরও কার্যত সব পরিকল্পনা ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়েছে। এখন পর্যন্ত সবগুলো পরীক্ষার আগে সকালে প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে গেছে যে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে এখন আগাম ঘোষণা দিয়ে প্রশ্নপত্র ফাঁস হচ্ছে।

সরকার গত ১২ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষাকেন্দ্রের ২০০ মিটারের মধ্যে মোবাইল ফোন বহন করার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এর আগে পরীক্ষা শুরুর আগে আড়াই ঘণ্টা মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সে সিদ্ধান্ত বদলও করা হয়েছিল। প্রশ্নফাঁসে জড়িতদের ধরিয়ে দেওয়ার জন্য পাঁচ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেও কোনো লাভ হয়নি। শেষ চেষ্টা হিসেবে এখন ধরপাকড় শুরু করেছে প্রশাসন।

Comments

The Daily Star  | English

Tk 127 crore owed to customers: DNCRP forms body to facilitate refunds

The Directorate of National Consumers' Right Protection (DNCRP) has formed a committee to facilitate the return of Tk 127 crore owed to the customers that remains stuck in the payment gateways of certain e-commerce companies..AHM Shafiquzzaman, director general of the DNCRP, shared this in

10m ago