ইতালিতে ফারাজ স্মরণ

ইতালির বেনভেন্তোর রুম্মো হাইস্কুলে স্মরণ করা হলো গুলশানের হোলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলায় নিহত ফারাজ আইয়াজ হোসেনকে।
Faraaz honoured in Italy
ইতালির বেনভেন্তোর রুম্মো হাইস্কুলের প্রাঙ্গণে অবস্থিত ‘ন্যায়নিষ্ঠদের জন্য স্মৃতি উদ্যান’ বা গার্ডেন অব রাইচাসে ফারাজের নামে একটি গাছ রোপণ করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

ইতালির বেনভেন্তোর রুম্মো হাইস্কুলে স্মরণ করা হলো গুলশানের হোলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলায় নিহত ফারাজ আইয়াজ হোসেনকে।

স্কুলটি ফারাজকে ‘প্রথম ন্যায়নিষ্ঠ ব্যক্তি’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। স্কুলটির প্রাঙ্গণে অবস্থিত ‘ন্যায়নিষ্ঠদের জন্য স্মৃতি উদ্যান’ বা গার্ডেন অব রাইচাসে ফারাজের নামে একটি গাছ রোপণ করা হয়েছে।

ইউরোপিয়ান ডে অব দ্য রাইচাস উপলক্ষে গত ৬ মার্চ এ গাছ লাগানো হয়।

২০১৬ সালের ১ জুলাই ঢাকার গুলশানে হোলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলায় নিহত হন ফারাজ আইয়াজ হোসেন। ওই হামলার সময় অসামান্য সাহসিকতা দেখিয়ে নিজের জীবন উৎসর্গ করেন এই তরুণ। হামলা চলাকালে ফারাজকে (২০) বন্দিদশা থেকে মুক্তি দিতে চাইলেও তিনি তাঁর বন্ধুদের ফেলে আসতে অস্বীকৃতি জানান।

দ্য গার্ডেন অব রাইচাস ওয়ার্ল্ডওয়াইড (জিএনআরআইডব্লিউ) বা গ্যারিও ইতালির মিলানভিত্তিক একটি অলাভজনক সংগঠন। এটি গণহত্যা, মানবতাবিরোধী অপরাধ প্রতিরোধে কাজ করে থাকে। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ও মানবতার কল্যাণে অবদান রাখা মানুষের স্মৃতিরক্ষায় বৃক্ষরোপণ ও স্মৃতিফলক স্থাপন করে এই সংগঠনটি।

বেনভেন্তোর রুম্মো হাইস্কুলের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে ফারাজের মা সিমিন হোসেন বলেন, “মা হিসেবে আমি জানি এবং এই বিশ্বাসে বিশ্বাসী যে আমার ছেলে ফারাজ আমাকে অসম্ভব গর্বিত করেছে, যা ছিল আমার জন্য চিন্তারও অতীত। সে সাহস, বন্ধুত্ব ও মানবতার এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছে।”

সিমিন হোসেনের এই কথার জবাবে গ্যারিওর প্রতিনিধি এনসা নুনসিয়াতো এবং রুম্মো হাইস্কুলের শিক্ষার্থীরা বলেছেন, “চৈতন্যের উন্মেষণে মানুষ হিসেবে ফারাজ আমাদের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবেন। তিনি তেমন মানুষ ছিলেন, যিনি একসময় একটি সঠিক পথ খুঁজতেন, এমনকি তা নিজের জীবনের বিনিময়ে হলেও।”

উল্লেখ্য, হোলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলায় নয়জন ইতালীয়, সাতজন জাপানি, তিনজন বাংলাদেশি এবং একজন ভারতীয় নিহত হন।

Comments

The Daily Star  | English

Babar Ali becomes 5th Bangladeshi to summit Mount Everest

Today, at 8:30am local time (8:45am Bangladesh time), Babar Ali successfully summited Mount Everest, the highest peak in the world. He is the 5th Bangladeshi to achieve this feat

Now