স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে কারাগারে ফিরেছেন খালেদা জিয়া

স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএনপির চেয়ারপারসনকে কারাগারে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এর আগে শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে খালেদা জিয়াকে কারাগারে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল।
স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে কারাগারে খালেদা জিয়া
খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কেবিন থেকে রেডিওলোজি ও ইমেজিং বিভাগে নেওয়ার পথে ছবিটি তোলা হয়। ছবি: মোহাম্মদ আল-মাসুম মোল্লা

স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএনপির চেয়ারপারসনকে কারাগারে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এর আগে শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে খালেদা জিয়াকে কারাগারে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল।

বিএনপির মিডিয়া ইউংয়ের সদস্য শায়রুল কবীর দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, দুপুর দেড়টার দিকে খালেদা জিয়ার মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। এসময়ের মধ্যে খালেদার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা তার দুই মেয়ে—জাফিয়া রহমান ও জাহিয়া রহমানকে নিয়ে হাসপাতালে তার সঙ্গে দেখা করেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষার সময় তাকে ৫১২ নম্বর কেবিনে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

এর আগে গত ১ এপ্রিল খালেদার চিকিৎসার জন্য গঠিত চার সদস্যের মেডিকেল বোর্ড কারাগারে খালেদার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে। তখন চিকিৎসক দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, পুরনো ও নতুন মিলিয়ে বেশ কিছু স্বাস্থ্যগত জটিলতায় ভুগছেন তিনি। তবে এগুলোর মধ্যে কোনোটিই জটিল নয়।

গত ২৯ মার্চ কারাগারে খালাদার সাথে দেখা করতে গিয়েছিলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। কিন্তু অসুস্থতার কথা বলে সেদিন তাকে দেখা করতে দেওয়া হয়নি।

বিএনপি নেত্রীর জরুরি চিকিৎসা প্রয়োজন জানিয়ে শুক্রবার ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়ার হাঁটতে সমস্যা হচ্ছে। তিনি স্নায়বিক সমস্যায় ভুগছেন। খালেদার ব্যক্তিগত চিকিৎসককে তাকে দেখতে যাওয়ার অনুমতি দেওয়ারও দাবি জানিয়েছিলেন ফখরুল।

একই দিনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমেদ জাতীয় প্রেসক্লাবে আরেক অনুষ্ঠানে সরকারকে হুশিয়ার করে বলেন, কারাগারে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হলে সরকার দায়ী থাকবে।

খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে হাসপাতালে নেওয়া উপলক্ষে বিএসএমএমইউ এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। আশপাশের সব সড়কে যান চলাচল সীমিত করার পাশাপাশি পুলিশ, র‍্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রচুর সদস্য মোতায়েন করা হয়।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত অস্থায়ী একটি বিশেষ জজ আদালত গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন। রায় ঘোষণার পর পরই পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয় বিএনপি চেয়ারপারসনকে।

Comments

The Daily Star  | English

Finance is key to Bangladesh’s energy transition

Bangladesh must invest more in renewable energy and energy efficiency to reduce fossil fuel imports to reverse the increasing trajectory of the subsidy burden.

9h ago