খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার প্রয়োজন নেই: ডাক্তার

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্যে এই মুহূর্তে বিদেশে নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন নেই বলে আজ (৮ এপ্রিল) মন্তব্য করেছেন চিকিৎসকরা।
Khaleda Zia at BSMMU
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ৭ এপ্রিল ২০১৮, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে আনা হয়। ছবি: মোহাম্মদ আল মাসুম মোল্লা

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্যে এই মুহূর্তে বিদেশে নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন নেই বলে আজ (৮ এপ্রিল) মন্তব্য করেছেন চিকিৎসকরা।

খালেদার চিকিৎসার জন্যে গঠিত চার সদস্যের মেডিকেল বোর্ডের প্রধান এবং ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) অর্থোপেডিক বিভাগের অধ্যাপক এমএস জামান শাহীন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, “খালেদা জিয়ার জটিল কোন স্বাস্থ্যগত সমস্যা নেই। প্রাথমিকভাবে যা বোঝা যাচ্ছে, তাঁর চিকিৎসা দেশেই সম্ভব।”

গতকাল (৭ এপ্রিল) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্টগুলো দেখার পর পরবর্তী পদক্ষেপ জানানো হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

বিএনপি প্রধানকে গতকাল ঢাকার পুরনো কারাগার থেকে বিএসএমএমইউ-এ স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর আবার কারাগারে নিয়ে আসা হয়। সেখানে তিনি জিয়া অরফানেজ স্ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দোষী হয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারারুদ্ধ রয়েছেন।

বিএসএমএমইউ-এর পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল হারুন গতকাল দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, খালেদা জিয়োকে দেখে সুস্থ মনে হয়েছে। তবে তাঁর স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্টগুলো হাতে আসার পর তাঁর শারীরিক অবস্থা সঠিকভাবে জানা যাবে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ মার্চ খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়লে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে তাঁর নির্ধারিত সাক্ষাৎ স্থগিত করা হয়।

এরপর, দলের পক্ষ থেকে দাবি উঠে খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা করার।

পরে, ঢামেকের চারজন অধ্যাপককে নিয়ে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। গত ১ এপ্রিল বোর্ডের সদস্যরা কারাগারে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন।

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles running amok

The bus involved in yesterday’s accident that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not caved in to transport associations’ demand for allowing over 20 years old buses on roads.

5h ago