বিশ্বভারতী সফরে যেতে পারেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আগামী মে মাসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সফর করতে পারেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বভারতী যাবেন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: ফাইল ফটো

আগামী মে মাসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সফর করতে পারেন।

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন করতে তাঁর ভারত সফরে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসের দায়িত্বশীল একজন কর্মকর্তা এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশের সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের নেতৃত্বে ১৭ সদস্যের একটি দল শান্তিনিকেতনে অবস্থান করছে। গতকাল (১৭ এপ্রিল) সেই প্রতিনিধি দল সেখানে পৌঁছান। আজ বিশ্বভারতীর উপাচার্য সবুজ কলি সেনের সঙ্গে তাঁদের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

দায়িত্বশীল সূত্র থেকে বলা হচ্ছে, বিশ্বভারতীর সমাবর্তন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উপস্থিত থাকবেন। আর সেখানেই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে যৌথভাবে বিশ্বভারতীতে বাংলাদেশ ভবনের দ্বার উন্মোচন করা হবে।

ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ভবনের নির্মাণকাজের ৯০ শতাংশেরও বেশি সম্পন্ন হয়েছে। এখন এর সাজসজ্জার কাজ করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য জানিয়েছেন, “বাংলাদেশ ভবনের সমস্ত দায়িত্ব বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের কাছে ন্যস্ত থাকবে। সেখানে এখন শেষ মুহূর্তের কাজ চলছে। বাংলাদেশের একটি লাইব্রেরি স্থাপনের কাজ প্রায় সম্পন্ন। একটি মুর‌্যাল তৈরির কাজ চলছে।”

তবে সেখানে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কোন ভাস্কর্য স্থাপন করা হবে না বলেও তিনি জানান। কারণ কবিগুরুর কোন ভাস্কর্য স্থাপনের রীতি বিশ্বভারতীর নেই। বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি প্রতিকৃতির পাশে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ভাস্কর্য স্থাপনের অনুরোধ করেছিল।

এদিকে, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পাওয়ার পর দিল্লির বাংলাদেশ দূতাবাস এবং কলকাতার উপদূতাবাসের কর্মকর্তাদের মধ্যে ব্যস্ততা শুরু হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন শীর্ষ কূটনীতিক বলছেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর একদিনের বেশি হবে না। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে এই সফরের বিষয়ে চূড়ান্ত সম্মতি জানানো হয়েছে। তবে এখনো তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি।

আসাদুজ্জামান নূরের নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলটি ঢাকা ফেরার পরই এ মাসের শেষ দিকে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আরও একটি প্রতিনিধিদল বিশ্বভারতীর বাংলাদেশ ভবন পরিদর্শন করবে। একই সঙ্গে বাংলাদেশের সংশ্লিষ্ট কয়েকটি মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি দল পরপর কয়েকবার শান্তিনিকেতন পরিদর্শন করবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শান্তিনিকেতন সফরের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে দেশটির প্রতিনিধি দলগুলো সেই স্থান পরিদর্শন করবে বলেও নিশ্চিত করেছেন কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসের সেই দায়িত্বশীল কর্মকর্তা।

Comments

The Daily Star  | English

Babar Ali: Another Bangladeshi summits Mount Everest

Before him, Musa Ibrahim (2010), M.A. Muhit (2011), Nishat Majumdar (2012), and Wasfia Nazreen (2012) successfully summited Mount Everest. Mohammed Khaled Hossain summited Mount Everest in 2013 but died on his way down

1h ago