খেলা

গেইলের তাণ্ডবের দিনে বিবর্ণ সাকিব

অসাধারণ এক রেকর্ডের সামনে ছিলেন সাকিব আল হাসান। আর এক উইকেট পেলেই টি-টোয়েন্টিতে ৩০০ উইকেট আর চার হাজার রানের ডাবলস হয়ে যেত। ক্রিস গেইলের দানবীয় সেঞ্চুরির দিনে স্পেল পুরো করতে পারেননি সাকিব। বেদম মার খেয়েছেন দলের সবাই। স্বাভাবিকভাবেই হেরেছে তার দল।
cris gyle
এবারের আইপিএলে প্রথম সেঞ্চুরির পথে গেইলের শট। ছবি: বিসিসিআই

অসাধারণ এক রেকর্ডের সামনে ছিলেন সাকিব আল হাসান। আর এক উইকেট পেলেই টি-টোয়েন্টিতে ৩০০ উইকেট আর চার হাজার রানের ডাবলস হয়ে যেত। ক্রিস গেইলের দানবীয় সেঞ্চুরির দিনে স্পেল পুরো করতে পারেননি সাকিব। বেদম মার খেয়েছেন দলের সবাই। স্বাভাবিকভাবেই হেরেছে তার দল।

বৃহস্পতিবার মোহালিতে ক্রিস গেইলের ৬ষ্ঠ আইপিএল সেঞ্চুরিতে ৩ উইকেটে ১৯৩ করে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ওই রান তাড়া করতে নেমে ২০ ওভার খেলে ৪ উইকেটে ১৭৮ রানে থামে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। বোলিংয়ে দুই ওভারে ২৮ রান দেওয়া সাকিব ব্যাট হাতে ১২ বলে ২৪ করে অপরাজিত ছিলেন তিনি। তবে তার ইনিংস কেবল হারের ব্যবধানই কমিয়েছে।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে পাঞ্জাবকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন গেইল ও লোকেশ রাহুল। ১৮ রান করে রশিদ খানে বলে রাহুল ফিরলেও থামানো যায়নি গেইলকে। রশিদ খানের লেগ স্পিনের সব রহস্যকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে তাণ্ডব চালান তিনি। বেশিরভাগ ঝড় যায় রশিদের উপরই। তারা মারা ১১ ছক্কার ছয়টাই এসেছে রশিদের বলে। যার চারটা আবার এক ওভারের টানা চার বলে।

গেইলের ‘অত্যাচার’ সহ্য করেছেন সাকিবও। বেদম মার খেয়ে ২ ওভারে ২৮ রান দেওয়ার পর কেইন উইলিয়ামসন সাকিবের হাতে আর বল তোলে দেওয়ার সাহস করেননি। সুবিধা করতে পারেননি রশিদও, ৪ ওভার বল করে দিয়েছেন ৫৫ রান। তবে এমন দিনেও নিজের মান বজায় রাখেন ভুবনেশ্বর কুমার। ৪ ওভার পুরো করে মাত্র ২৫ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন তিনি।

ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইল ৬৩ বলে ১০৪ রানে অপরাজিত ছিলেন। যাতে ১১ ছক্কার সঙ্গে আছে একটাই চার। টি-টোয়েন্টিতে এটি গেইলের ২১তম সেঞ্চুরি। এবার আইপিএলে শুরুতে তাকে কেউ দলে নিচ্ছিল না। শেষ মুহূর্তে পাঞ্জাবে সুযোগ পেয়ে এই মৌসুমের প্রথম সেঞ্চুরিও করে নিলেন গেইল। শতকের পর সদ্যজাত সন্তানকে উৎসর্গ করে করেছেন বিশেষ উদযাপনও।

১৯৪ রানের লক্ষ্যে কখনই ম্যাচে ছিল না সানরাইজার্স। ৩৭ রানে ২ উইকেট হারানোর পর উইলিয়ামসন আর মানিষ পান্ডে চেষ্টা চালিয়েছিলেন। তাদের দুই ফিফটি দলের জন্য কেবল সান্ত্বনাই এনে দিয়েছে। ছয়ে নেমে তেমন কিছু করার পরিস্থিতি ছিল না সাকিবের। অশ্বীনের শেষ ওভারে টানা দুই ছয় মেরেছেন, তবে ততক্ষণে ম্যাচের ফল প্রায় নিশ্চিতই হয়ে গেছে। 

 

Comments

The Daily Star  | English
unbanked people in Bangladesh

Three out of four people still unbanked in Bangladesh

Only 28.3 percent had an account with a bank or NBFI last year, it showed, increasing from 26.2 percent the year prior.

2h ago