খালেদাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে নেওয়ার দাবি

​বিএনপির চেয়ারপারসনের চিকিৎসা ও তার সাথে সাক্ষাতের বিষয় নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সাথে বৈঠক করেছেন বিএনপির দুজন জ্যেষ্ঠ নেতা। বৈঠকে তারা ইউনাইটেড হাসপাতালে খালেদা জিয়ার দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছেন।
খালেদা জিয়ার জামিনের আপিল শুনানি
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। স্টার ফাইল ছবি

বিএনপির চেয়ারপারসনের চিকিৎসা ও তার সাথে সাক্ষাতের বিষয় নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সাথে বৈঠক করেছেন বিএনপির দুজন জ্যেষ্ঠ নেতা। বৈঠকে তারা ইউনাইটেড হাসপাতালে খালেদা জিয়ার দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছেন।

বৈঠক শেষে নজরুল ইসলাম খান সচিবালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, একজন অসুস্থ মানুষকে যত দ্রুত চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব সেটা করা উচিত। আমরা আশা করি খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য কোথায় নেওয়া হবে সে ব্যাপারে আজকেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। যে আলোচনা হয়েছে তাতে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত আসবে বলে আমরা আশাবাদী।

অন্যদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপির নেতারা তাকে বলেছেন খালেদা জিয়ার এমআরআই করার জন্য বিশেষ ধরনের যন্ত্রের প্রয়োজন। শুধুমাত্র ইউনাইটেড হাসপাতালেই এমন এমআরআই যন্ত্র রয়েছে। এই জন্য খালেদা জিয়াকে ইউনাইটেড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য তারা অনুরোধ করেছেন।

এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের সাথে পরামর্শ করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে উল্লেখ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আজ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সচিবালয়ে যান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান ও ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ। বৈঠকে তারা বিএনপির চেয়ারপারসনের সুচিকিৎসা, তার সাথে সাক্ষাতের ব্যবস্থা ও মে দিবসে দলীয় কর্মসূচি নিয়ে অনুমতির জন্য আলোচনা করেন।

তিনি বলেন, শারীরিক অসুস্থতার জন্য খালেদা জিয়া দোতলা থেকে সিঁড়ি দিয়ে নিচে নেমে সাক্ষাৎ করতে পারছেন না। এই অবস্থায় তার নারী আত্মীয়দের দোতলায় গিয়ে সাক্ষাতের অনুমতি দেওয়ার জন্য আমরা অনুরোধ করেছি। আমাদের আশা তারা এটা করবেন। কারণ মানুষ অসুস্থ হলে আত্মীয়স্বজনকে দেখে খুশি হয়। আপনজনদের দেখলে রোগের উপশম হয়।

প্যারোলে মুক্তি দিয়ে দেশের বাইরে চিকিৎসার প্রসঙ্গ আসতেই কিছুটা উষ্মা প্রকাশ করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, এই প্রশ্ন আসে কেন আমি বুঝি না। তার চিকিৎসা আমরা এখানকার হাসপাতালে করার কথাই আমরা বলছি। এখানেই যদি চিকিৎসা হয়ে যায় তাহলে আর অন্য প্রশ্ন আসে কেন? আমি মনে করি উদ্দেশ্যমূলকভাবে কেউ কেউ এই প্রশ্ন তুলছেন। বাইরে তাকে পাঠানোর কোনো প্রশ্ন আসে না।

তিনি আরও বলেন, মে দিবসে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শ্রমিক দলের সমাবেশ করার অনুমতি চাওয়া হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে আমরা অনুরোধ করেছি, অনুমতি দেওয়ার জন্য যেন তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বলে দেন। আন্তর্জাতিক এই দিবস পালনে কাউকে বাধা দেওয়া উচিত হবে না বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

Comments

The Daily Star  | English

The ones who stayed for some extra cash

Workers who came to the capital or stayed back to earn some extra cash during the Eid-ul-Azha thronged Gabtoli and nearby areas for buses

2h ago