সমালোচনা শুনতেও ভালো লাগে সৌম্যের

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকে বছর দুয়েক টানা আলো ছড়িয়েছিলেন সৌম্য সরকার। বাংলাদেশকে জিতিয়েছেন বড় বড় ম্যাচ। বাহবা কুড়িয়েছেন অনেক। সেই ফর্ম যখন হুট পড়ল তখন আবার ধেয়ে এলো সমালোচনার ঝড়। মিষ্টি কিংবা তেতো, কথা যাই হোক। মানুষ তাকে নিয়ে চিন্তা করছে এই ভেবে ভালো লাগে সৌম্যের।
Soumya sarkar
ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকে বছর দুয়েক টানা আলো ছড়িয়েছিলেন সৌম্য সরকার। বাংলাদেশকে জিতিয়েছেন বড় বড় ম্যাচ। বাহবা কুড়িয়েছেন অনেক। সেই ফর্ম যখন হুট পড়ল তখন আবার ধেয়ে এলো সমালোচনার ঝড়।  মিষ্টি কিংবা তেতো, কথা যাই হোক। মানুষ তাকে নিয়ে চিন্তা করছে এই ভেবে ভালো লাগে সৌম্যের।

সব ফরম্যাটেই তামিম ইকবালের ওপেনিং সঙ্গী হিসেবে পোক্ত হয়ে গিয়েছিলেন সৌম্য। ফর্মে হারানার পর একে একে জায়গা হয়েছে নড়বড়ে। টেস্টের পর বাদ পড়েছেন ওয়ানডে দল থেকে। টিকে আছেন কেবল টি-টোয়েন্টিতে। দক্ষিণ আফ্রিকা সফর আর শ্রীলঙ্কা সিরিজে ছিলেন ধারাবাহিক। কিন্তু নিদহাস কাপে আবার রান পাননি। আবারও শুনছেন তেতো কথা। আর এতে তিনি মোটেও নাখোশ নন,  ‘আমার কাছে তো ভালোই লাগে, ভালো খেলতেছি, খারাপ খেলতেছি, আমাকে নিয়েই সবাই চিন্তা করতেছে। এটাও একটা ভালো জিনিস। দুইটা দুরকম। ভালো খেললে যেমন কথা বলে, খারাপ খেলার পর কথাটা একটু ভিন্ন।’

সমালোচনাকে ইতিবাচক হিসেবে নিতে চান এই ওপেনার। খারাপ খেললে যে গালমন্দ শুনতে হবে এই বাস্তবতা বুঝে গেছেন এতদিনে, ‘যদি ইতিবাচকভাবে নেই যে, ভালো খেললে ওই মানুষগুলোই আবার ভালো কথা বলবে। সবারই কথা বলার অধিকার আছে। ভালো খেললে তারা ভালো কথা বলবে, খারাপ খেললে তারা খারাপ বলবে। এসব শোনা লাগবে। আমি চেষ্টা করি, আমি কি করতে পারছি, কতটুকু দিতে পারছি, আমি নিজে যদি খুশি থাকি, তাহলে তাদের কথা শুনলে ভালো লাগবে।’

এবার কেন্দ্রীয় চুক্তিতেও সৌম্যকে শুনতে হয়েছে খারাপ খবর। বাজে ফর্মের কারণে তাকে চুক্তিতে রাখেনি বিসিবি। তা নিয়ে নাকি চিন্তাই করছেন না তিনি, ‘না, চুক্তি থেকে বাদ পড়ছি ওই রকম কোনো কিছু চিন্তা করিনি। ওটা তো আমার হাতে না। তাদের যদি ইচ্ছা হয় যে, আমি ভালো খেললে তারা নিবে। চিন্তা করে কোনো লাভ নাই।’

আফগানিস্তান সিরিজের ক্যাম্পের আগে খানিকটা বিশ্রামের সুযোগ পেয়েছেন ক্রিকেটাররা। সৌম্য অবশ্য সময়টা কাজে লাগাতে চান স্কিল ট্রেনিং করে, ‘কাজ করা হচ্ছে। আমার যারা স্যার আছেন, আগে বিকেএসপির স্যার, বিসিবিতে ফাহিম স্যার, আমি সবার সাথে কথা বলে কাজ করতেছি। আমার যেখানে যেখানে ঘাটতি আছে স্যাররা যেগুলো বলছে ওইগুলো নিয়ে বেশি কাজ করছি। তাছাড়া স্কিল নিয়ে একটু বেশি মনোযোগ দিচ্ছি।’

‘হ্যাঁ, খারাপ সময় আসছে। আমার কাছে মনে হয় ভালো হয়েছে, খারাপটা তাড়াতাড়ি আসছে। আমি এখনো থেকে যদি রিকভার করতে পারি তাহলে আমার জন্য ভালো হবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Mohammadpur Geneva Camp: Narcos clashing over new heroin spot

Mohammadpur Geneva Camp, where narcotics trade is rampant, has been witnessing clashes every day since the day after Eid-ul-Fitr.

12h ago