ব্যাটে-বলে উজ্জ্বল সাকিব, জিতল হায়দরাবাদ

গুরুত্বপূর্ণ সময়ে নেমে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৫, পরে বল হাতে দামি ২ উইকেট। সাকিব আল হাসানের ব্যাটে বলে অবদান রাখার দিনে জয়যাত্রা অব্যাহত সানরাইজার্স হায়দরাবাদের।
Shakib Al Hasan
উইকেট পাওয়া সাকিবকে ঘিরে সানরাইজার্সের উল্লাস। ছবি: এএফপি

গুরুত্বপূর্ণ সময়ে নেমে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৫, পরে বল হাতে দামি ২ উইকেট। সাকিব আল হাসানের ব্যাটে বলে অবদান রাখার দিনে জয়যাত্রা অব্যাহত সানরাইজার্স হায়দরাবাদের।

এবারের আইপিএলে ধুঁকতে থাকা বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে সাকিবরা এবার হারিয়েছে ৫ রানে। আগে ব্যাট করে সানরাইজার্সের করা ১৪৬ রানে জবাবে শেষ বলে ছক্কার দাবি পূরণ করতে পারেনি বেঙ্গালুরু। থেমেছে ১৪১ রানে।

আগে থেকেই পয়েন্ট টেবিলের এক নম্বরে থাকা সাকিবদের দল এই ম্যাচ জিতে অবস্থান আরও পোক্ত করেছে। অন্যদিকে হারের বৃত্ত থেকে বেরুতে না পারা কোহলিরা পড়ে আছে ছয় নম্বরে।

নিজেদের মাঠে টস হেরে ব্যাটিং পেয়ে শুরুটা ভালো করেনি সানরাইজার্স। ৪৮ রানে টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে খুইয়ে বিপদে পড়েছিল তারা। অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসনের সঙ্গে জুটি বেধে সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেন সাকিব। পরিস্থিতি বিবেচনায় সাকিব ব্যাট করেছেন হিসেব কষে। ৩২ বলে ৫ চারে ৩৫ রান করে টিম সাউদির বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি।   ফর্মে থাকা উইলিয়ামসন ৩৯ বলে ৫৬ রানের ইনিংস খেলে দলকে লড়াইয়ের পূঁজি পাইয়ে দেন। শেষ দিকের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় টম মুডির শিষ্যরা থেমে যায় ১৪৬ রানে।

টুর্নামেন্টের সেরা বোলিং আক্রমণ নিয়ে আবারও অল্প রান টেকানোর মুন্সিয়ানা দেখিয়েছে সানরাইজার্স। ওপেন করতে নেমে সমানে বাউন্ডারি পেটাচ্ছিলেন পার্থিব প্যাটেল। তৃতীয় ওভারে বোলিং পেয়ে তাকে ফিরিয়ে প্রথম উইকেটটাই নেন সাকিব। অন্য দিকে ঝড় তুলে ফেলেছিলেন বিরাট কোহলি। তরতরিয়ে রান বাড়িয়ে ম্যাচ নিয়ে যাচ্ছিলেন নাগালের বাইরে। একটি ব্রেক থ্রো যখন ভীষণ দরকার তখনও সানরাইজার্সের ত্রাণকর্তা হয়ে মঞ্চে আবির্ভাব সাকিবের।

বেঙ্গালুরুর সেরা ব্যাটসম্যানের উইকেটো নেন তিনি। সাকিবের বলে চালাতে গিয়ে ইউসুফ পাঠানের হাতে জমা পড়েন কোহলি। থেমে যায় তার ৩০ বলে ৩৯ রানের ইনিংস। খানিকপরে ডি ভিলিয়ার্সকে গুগলিতে বোল্ড করে বেঙ্গালুরুকেই আদতে থামিয়ে দেন রশিদ খান।

টুর্নামেন্টে নজর কাড়া সানরাইজার্সের পেসাররা এদিনও ছিলেন তেতে। মাথা খাটিয়ে বল করে রান আটকেছেন, ফেলেছেন উইকেটও। ৪ ওভারে মাত্র ২০ রান দিয়ে সন্দীপ শর্মার ১ উইকেট। শেষের ওভারসহ ৪ ওভারে ২৭ দিয়ে ভুবনেশ্বর কুমারের ১টি আর ৪ ওভারে ২৫ রান দিয়ে সিদ্ধার্থ কাউল পান ১ উইকেট। ৩১ রানে ১ উইকেট নেন রশিদ খান।

 

Comments

The Daily Star  | English

Home minister says it's a planned murder

Three Bangladeshis arrested; police yet to find his body

2h ago