খেলা

বাংলাদেশের কোচ খুঁজে দিচ্ছেন কারস্টেন

গ্যারি কারস্টেনকে পরামর্শক হিসেবে চেয়ে আসছিল বিসিবি। আইপিএলে ব্যস্ত থাকায় সে আলাপ বেশি দূর গড়ায়নি। তবে বিসিবিকে কোচ নিয়োগে ঠিকই পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন এই দক্ষিণ আফ্রিকান। অনেকদিন থেকে প্রধান কোচ না থাকা বাংলাদেশের জন্যে এবার কোচ খুঁজে দিচ্ছেন কারস্টেনই। এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন।
গ্যারি কারস্টেন
গ্যারি কারস্টেন

গ্যারি কারস্টেনকে পরামর্শক হিসেবে চেয়ে আসছিল বিসিবি। আইপিএলে ব্যস্ত থাকায় সে আলাপ বেশি দূর গড়ায়নি। তবে বিসিবিকে কোচ নিয়োগে ঠিকই পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন এই দক্ষিণ আফ্রিকান। অনেকদিন থেকে প্রধান কোচ না থাকা বাংলাদেশের জন্যে এবার কোচ খুঁজে দিচ্ছেন কারস্টেনই। এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন।

ভারতকে বিশ্বকাপ জেতানো কোচ গ্যারি কারস্টেন এখন আর কোন জাতীয় দলের সঙ্গে যুক্ত নন। কাজ করেন বিভিন্ন ফ্রেঞ্চাইজি লিগে। এবার আইপিএলে ব্যাটিং কোচ হিসেবে কাজ করছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে। সেখানে কাজ করা অবস্থাতেই নাকি বাংলাদেশ কোচ কেমন হতে পারে তা নিয়ে ভাবছেন তিনি।

সোমবার রাতে গর্ডন গ্রিনিজের সম্মানে আয়োজিত নৈশভোজ শেষে কোচ নিয়োগ নিয়ে নতুন খবর দেন বোর্ড প্রধান, ‘সে (গ্যারি কারস্টেন) একটা পর্যবেক্ষণ করছে। বাংলাদেশের কোচ কি ধরনের হলে ভালো হয় সেটা তার মতো করে করছে। খেলোয়াড়দের সঙ্গে কথা বলছে, কোচিং স্টাফদের সঙ্গে, আমার সঙ্গে কথা বলছে।’

পরামর্শক হিসেবে কারস্টেনের সঙ্গে এখনো আনুষ্ঠানিক কোচ চুক্তি করেনি বিসিবি। তবে বিসিবি প্রধানের কথায় আভাস কোচ নিয়োগে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে এরমধ্যেই কাজ শুরু করেছেন তিনি, ‘সে তার প্রস্তাব দেবে (কোচের ব্যাপারে)। তার কাছে কিছু তালিকা রয়েছে। আমাদের তালিকা নিয়ে এবং তার তালিকা মিলিয়ে আমাদের কাছে একটি প্রেজেন্টেশন দেবে। তারপরও আমরা ফাইনাল করবো। আমাদের জন্য সেটা সুবিধা হবে।’

এবার আইপিএলে কারস্টেনের দলের অবস্থা তেমন সুবিধার না। তার দল প্লে অফে না উঠলে ২২ বা ২৩ তারিখে কারস্টেনের বাংলাদেশের আসার কথা জানান বোর্ড প্রধান, ‘এখন নির্ভর করছে আইপিএলের কি হয়। এখন যে অবস্থা  তাতে ২০-২২ তারিখে চলে আসার কথা। তবে এখান থেকে যদি কিছু ওলট-পালট হয় তাহলে হয়তো দু’একদিন পেছাতে পারে।’

চন্ডিকা হাথুরুসিংহে দায়িত্ব ছাড়ার পর কোচ নিয়োগ নিয়ে অনেকদিন থেকেই টানাপোড়ন চলছে। বিসিবিতে সাক্ষাতকার দিতে এসেছিলেন রিচার্ড পাইবাস ও ফিল সিমন্স। পরে দুজনেই আলাদা দুই দলে যুক্ত হয়ে গেছেন। পরবর্তীতে ইংল্যান্ডের ফারব্রেসের নাম শোনা গেলেই সে কোচ নিজেই ফিরিয়ে দেন প্রস্তাব। একাধিক সংক্ষিপ্ত তালিকা করেও কোচ নিয়োগ দিতে পারেনি বিসিবি। তবে বোর্ড প্রধান জানালেন আগের তালিকা আর নেই, এবার ছোট তালিকায় আছেন তিনজন। তাদের থেকে কোন আপত্তি নেই। কারস্টেনের সঙ্গে পরামর্শ নিয়ে একজনকে বেছে নিতে চায় বিসিবি, ‘ওই তালিকা এখন আর নেই। এখন ফ্রেশ লিস্ট তবে আগেও তারা লিস্টে ছিল। বড় সমস্যাটা হচ্ছে বেশির ভাগই কোচই ফুলটাইম থাকতে রাজি নয়। আমরা এখন যে তিন জনের শর্ট লিস্ট করেছি তারা সবাই ফুল টাইমের জন্যই।’

কারা আছেন সেই তালিকায় সে নাম বলেননি নাজমুল। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগেই টাইগারদের কোচ পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদি তিনি, ‘শর্ট লিস্টে কারা আছে সেটা এখন বলা যাবে না। তারা সবাই কোথাও না কোথাও আছেন। কাজেই পরে যদি না হয় তাহলে!’

‘এই মাসের মধ্যেই বিশেষ কিছু জানতে পারবেন। কারস্টেন আসলে জানতে চায় আমাদের জন্য কি ধরনের কোচ দরকার। জাতীয় দল, একাডেমির জন্য কি কোচ দরকার, প্রধান কোচ কেমন হওয়া উচিত এসব বিষয়গুলোর উপর ধারনা নিয়ে সে (কারস্টেন) একজনকে খুঁজে বের করতে চায়।’

 

Comments

The Daily Star  | English
BNP office in Nayapaltan

Column by Mahfuz Anam: Has BNP served its supporters well?

The BNP failed to reap anything effective from the huge public support that it was able to garner late last year.

12h ago