রাজ-শুভশ্রীর রিসেপশনে কে এলেন, কে এলেন না- চর্চা তুঙ্গে!

কলকাতার চলচ্চিত্র পরিচালক রাজ চক্রবর্তী ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী শুভশ্রী জুটির রাজকীয় বিয়ের পর রিসেপশন অনুষ্ঠান নিয়েও সমান তালে ঝড় বইছে বৈকি। অনুষ্ঠানে কে এলেন কে এলেন না- আলোচনার শুরু এখানেই।
Raj and Subhasree
বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে নবদম্পতি রাজ চক্রবর্তী ও শুভশ্রী। ছবি: স্টার

কলকাতার চলচ্চিত্র পরিচালক রাজ চক্রবর্তী ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী শুভশ্রী জুটির রাজকীয় বিয়ের পর রিসেপশন অনুষ্ঠান নিয়েও সমান তালে ঝড় বইছে বৈকি। অনুষ্ঠানে কে এলেন কে এলেন না- আলোচনার শুরু এখানেই।

কথা ছিল, ১৩ মে অনেক রথী-মহারথীর উপস্থিতিতেই রিসেপশন হবে কলকাতায়। সাধারণ ছুটির দিনগুলোতেই সাধারণত এ ধরণের অনুষ্ঠানের তারিখ রাখা হয়। যাতে করে আমন্ত্রিত অতিথিদের উপস্থিতি নিশ্চিত করা যায়।

তবে এ ক্ষেত্রে সেই হিসাবটি মেলেনি। ভারতে ছুটির দিন হলেও তারকা জুটির রিসেপশন পার্টিতে হাজির হননি অভিনেতা দেব, অভিনেত্রী মিমি, পায়েল সরকার এবং অবশ্যই অভিনেত্রী রুক্মিণী মৈত্র।

কেনো দেব গেলেন না- এ নিয়ে মুখরোচক গুঞ্জন ছড়িয়েছে গণমাধ্যমগুলোতে। কলকাতার একটি প্রভাবশালী বাংলা পত্রিকা বলছে, আসলে দেবের সঙ্গে শুভশ্রীর দীর্ঘ সম্পর্কের কথা সবাই জানত। প্রায় চার বছর সম্পর্ক ছিল দেব-শুভশ্রীর। আর এখন সম্পর্ক নেই সেটিও প্রায় চার বছর হয়ে গেল।

জনশ্রুতি রয়েছে, প্রাক্তন প্রেমিকার সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হলেও রাজ চক্রবর্তীর সঙ্গে সম্পর্ক ভালো রয়েছে অভিনেতা দেবের। তাই বিয়ের পরপরই ফোনে রাজ চক্রবর্তীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন দেব। তবে বিয়ে কিংবা রিসেপশন- কোনও আয়োজনেই ছিলেন না তিনি।

অভিনেত্রী মিমির সঙ্গে পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর বিয়ে পর্যন্তও নাকি ঠিক হয়ে গিয়েছিল; রাজ-মিমি-শুভশ্রীর ত্রিকোণ প্রেমের গল্প কলকাতার বহু গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয় বহুবার। মিমি না শুভশ্রী- কার সঙ্গে ঘর বাঁধছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী- এই ধরণের গুঞ্জন নির্ভর খবরের দৌড়েও পিছিয়ে ছিলো না কলকাতার বড় বড় মিডিয়া হাউজ। আর সেই কারণে মিমিকে পাওয়া যায়নি রাজ-শুভশ্রীর বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানে।

টালিগঞ্জের আকাশে কান পাতলে এখনও শোনা যাবে, পায়েল সরকারের সঙ্গেও দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল রাজ চক্রবর্তীর। তাই রাজ-শুভশ্রীর রিসেপশনে নেই অভিনেত্রী পায়েল সরকারও।

তবে রুক্মিণী কেনো গেলেন না- রাজের সঙ্গে তো তাঁরও খুব ভালো সম্পর্ক। কোনও বিতর্ক নেই তাঁদের সম্পর্ককে ঘিরে। তবে বিতর্ক রয়েছে দেব-শুভশ্রীর সম্পর্ককে নিয়ে। আর রুক্মিণী যেহেতু দেবের বর্তমান প্রেমিকা, সে কারণেই তাঁর প্রেমিকের প্রাক্তনীর বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে দেবকে কষ্ট দিতে চাননি অভিনেত্রী রুক্মিণী মৈত্র- কলকাতার গণমাধ্যম এমনটিই অনুমান করছে।

তবে রিসেপশনে উপস্থিত ছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, অরিন্দম শীল, রচনা ব্যানার্জি, জিৎ, কোয়েল মল্লিক, শ্রাবন্তি, নুসরাত জাহান, সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, অঙ্কুশ, পার্ণো, রুদ্র-নীল ঘোষ, শ্রীকান্ত মেহতা প্রমুখ।

আমন্ত্রিত মিডিয়া প্রতিনিধিদের বক্তব্য, সিনেমার গল্পের মতোই ছিল ওই রিসেপশন পার্টি। বড্ড বেশি ফিল্মি মনে হয়েছে। ঘরোয়া বিষয়টি একদমই উপস্থিত ছিল না। হয়তো নব্য দম্পতির এমনটিই ইচ্ছে ছিল।

রুপালি পর্দাই যাদের জীবন তাঁরা কী বাস্তবের সঙ্গে খুব একটা মিশতে পারেন!- এমন কথাও শোনা গেলো আমন্ত্রিত কয়েকজন মিডিয়াকর্মীর মুখে।

আরও পড়ুন:

রাজ-শুভশ্রীর রিসেপশনে প্রথম স্ত্রীর শুভেচ্ছাবার্তা!

Comments

The Daily Star  | English

Govt primary schools asked to suspend daily assemblies

The government has directed to suspend daily assemblies at all its primary schools across the country until further notice

39m ago