‘শেষ বলে জেতার পথ মেয়েরাই দেখিয়ে দিয়েছে’

বাংলাদেশের ক্রিকেটে শেষ বলে হারের দুঃখ জমতে জমতে যেন পাহাড় হয়ে গেছে। কখনো এশিয়া কাপ, কখনো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কিংবা কখনো দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। শেষ বলে গিয়ে আর সমীকরণ মেলাতে পারে না বাংলাদেশ। প্রথমবার এশিয়া কাপের ফাইনালে মেয়েরা শেষ বলেই ছিনিয়ে এনেছে জয়। আর এতেই শেষ বলের গেরো খোলার আশা দেখছেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন।
ছবি: স্টার

বাংলাদেশের ক্রিকেটে শেষ বলে হারের দুঃখ জমতে জমতে যেন পাহাড় হয়ে গেছে। কখনো এশিয়া কাপ, কখনো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কিংবা কখনো দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। শেষ বলে গিয়ে আর সমীকরণ মেলাতে পারে না বাংলাদেশ। প্রথমবার এশিয়া কাপের ফাইনালে মেয়েরা শেষ বলেই ছিনিয়ে এনেছে জয়। আর এতেই শেষ বলের গেরো খোলার আশা দেখছেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন।

রোববার এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতকে ৩ রানে হারিয়ে শিরোপা জিতে বাংলাদেশ। সোমবার এশিয়া কাপ নিয়ে দেশে ফেরে সালমা খাতুনের দল। রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে তাদের সংবর্ধনা দেওয়ার সময় বোর্ড প্রধান বলেন,  ‘ছেলেদের ক্রিকেট যদি দেখেন আমাদের মনে অনেক দুঃখ। আমরা শেষ বলে গিয়ে বারবার হারি। সেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের সঙ্গে খেলাটা আমরা চিন্তাই করিনি হারবে, কিছুদিন আগে নিদহাস ট্রফিতে ওই ম্যাচ হেরে যাব চিন্তাই করতে পারিনি। এত কাছে গিয়ে হার। এবং সর্বশেষ আফগানিস্তানের শেষ ম্যাচটা জিততে পারব না মনেই হয়নি। শেষ বলে আমরা পারছিলাম না। আমাদের ধারণা সেই দিন এখনো ঘুচে যাবে। মেয়েরাই আমাদের পথ দেখিয়ে দিয়েছে। ইনশাল্লাহ আমাদের ছেলের ফলটাও সামনে অনেক ভালো হবে।’

বোর্ড প্রধান জানান এবার এশিয়া কাপ নিয়ে পূর্ব প্রস্তুতি ছিল বিসিবির। তার ফল মিলেছে মাঠের খেলায়, ‘এই টুর্নামেন্ট নিয়ে আমাদের আগে থেকেই প্রস্তুতি ছিল। আগে বিদেশি কোচ কেবল ছেলেদের থাকত। মেয়েদের বেলায় আগেও দুবার বিদেশি কোচ এনেছি। এবার প্রত্যাশা অনুযায়ী কোচদের পারফর্ম না পেয়ে পুরো সেট বদল করেছি। দুজন ভারতীয় কোচ যোগ হয়েছে। শুধু তাই না, অস্ট্রেলিয়া থেকে সনদপাওয়া একজন মহিলা ফিজিও যুক্ত করেছি। ’

‘এশিয়া কাপজয়ী নারী ক্রিকেট দলের প্রত্যেককে অন্তত ১০ লাখ টাকা করে পুরস্কার দেয়া হবে। শুধু তাই নয়, যাদের পারফর্ম্যান্স ভালো ছিলো, তাদের জন্য আরও বেশি কিছু দেয়া হবে।’

Comments

The Daily Star  | English

PM visits areas devastated by Cyclone Remal

Prime Minister Sheikh Hasina today visited the most affected areas in the country's south by Cyclone Remal

30m ago