এমন হারের পরও রেফারিকে দুষছে মেক্সিকো

শেষ ষোলোর মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে রেফারিং নিয়ে সন্তুষ্ট হতে পারেননি মেক্সিকো কোচ হুয়ান কার্লোস ওসোরিও। সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে ব্রাজিলের প্রতি পক্ষপাতিত্ব করেছেন রেফারি, এমনটাই দাবি করেছেন তিনি।
মেক্সিকোর কোচ কার্লোস ওজারিও দুষছেন রেফারিকে

শেষ ষোলোর মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে রেফারিং নিয়ে সন্তুষ্ট হতে পারেননি মেক্সিকো কোচ হুয়ান কার্লোস ওসোরিও। সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে ব্রাজিলের প্রতি পক্ষপাতিত্ব করেছেন রেফারি, এমনটাই দাবি করেছেন তিনি।

ম্যাচের পর টেলিমুন্ডো’র সাথে কথা বলার সময় নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন মেক্সিকো কোচ ওসোরিও। অভিযোগের তীর সরাসরিই তুলেছেন রেফারি জিয়ানলুকা রচির দিকে, ‘আমার মতে রেফারি পুরোপুরিভাবে ব্রাজিলের প্রতি পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করেছেন। দেখে মনে হয়েছে ওদের ফরোয়ার্ডরা অপেক্ষা করেই ছিল কখন আমাদের খেলোয়াড়দের সংস্পর্শে আসবে, আর কখন ফাউল হবে। রেফারি ওদেরকে বারবারই সুরক্ষা দিয়েছে। আমার মনে হয় রেফারি একটু বেশিই জড়িয়ে গিয়েছিলেন ম্যাচের সাথে।’

শুধু রেফারি নয়, ওসোরিওর ক্ষোভের মুখে পড়েছেন ব্রাজিল সুপারস্টার নেইমারও, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে একজন খেলোয়াড়ের জন্য ম্যাচে প্রচুর সময় নষ্ট হয়েছে। এটা লজ্জাজনক। ফুটবলের জন্যই লজ্জার এটা। রেফারির বারবার খেলা থামানোর কারণে দ্বিতীয়ার্ধে আমরা খেলার ছন্দ হারিয়ে ফেলেছি। বারবার এভাবে খেলা আটকানো দেখতে দেখতে ক্লান্ত আমরা।’

নেইমারের ‘অভিনয়’ নিয়েও খুব ক্ষুব্ধ ওসোরিও, ‘ম্যাচের এক পর্যায়ে তো চার মিনিট খেলা বন্ধ রাখা হলো! খেলা দেখেছে এমন সব শিশু ও বিশ্ব ফুটবলের জন্যই এটা খুব বাজে দৃষ্টান্ত। ফুটবল শক্তিশালী খেলা, পুরুষ মানুষের খেলা। এই খেলায় এত অভিনয়ের কোন জায়গা নেই।’

এই নিয়ে টানা সপ্তমবারের মতো বিশ্বকাপের শেষ ষোলো থেকে বিদায় নিলো মেক্সিকো। ওসোরিও তাও বলছেন, হারার আগেই হেরে যাননি তাঁরা, ‘বল দখলের দিকে যদি তাকান, ব্রাজিলের ৪৭ শতাংশের বিপরীতে আমরা ৫৩ শতাংশ বল দখলে রেখেছি। আমার কাছে মনে হয়েছে ম্যাচটা খুবই ভারসাম্যপূর্ণ হয়েছে, একপেশে হতে দেইনি আমরা। মনে রাখতে হবে যে দ্বিতীয় গোলটা একদম শেষ মুহূর্তে হজম করেছি আমরা। মেক্সিকো হাল ছেড়ে দেয়নি, সমানভাবে লড়ে গেছে। কিন্তু ফাইনাল থার্ডে ব্রাজিল যে দক্ষতা দেখিয়েছে, আমরা সেটা পারিনি। আমরা শুরুটা খুব ভালো করেছিলাম, সুযোগও পেয়েছিলাম, কিন্তু সেগুলো কাজে লাগাতে পারিনি। ব্রাজিলের মতো এমন মানসম্পন্ন দলের বিপক্ষে সুযোগ কাজে না লাগাতে পারলে খেসারত দিতেই হবে।’    

Comments