৫২ বছরের পুরনো স্মৃতি ফিরিয়ে আনলো বেলজিয়াম

দ্বিতীয়ার্ধে দুই গোল করে এগিয়ে গিয়েছিল জাপান। বেলজিয়ামের সোনালী প্রজন্মের ফুটবলারদের সামনে তখন আরও একবার খালি হাতে ফেরার শঙ্কা। কিন্তু সেই শঙ্কা সত্যি হতে দেয়নি বেলজিয়াম, নব্বই মিনিটের মধ্যেই জাপানকে তিন গোল ফিরিয়ে দিয়ে অবিশ্বাস্যভাবে জিতে নিয়েছে ম্যাচ। আর এতেই ৫২ বছরের পুরনো স্মৃতি ফিরিয়ে এনেছে রবার্তো মার্টিনেজের দল।
Belgium
রোমাঞ্চকর জয়ের পর বেলজিয়াম। ছবিঃ রয়টার্স

দ্বিতীয়ার্ধে দুই গোল করে এগিয়ে গিয়েছিল জাপান। বেলজিয়ামের সোনালী প্রজন্মের ফুটবলারদের সামনে তখন আরও একবার খালি হাতে ফেরার শঙ্কা। কিন্তু সেই শঙ্কা সত্যি হতে দেয়নি বেলজিয়াম, নব্বই মিনিটের মধ্যেই জাপানকে তিন গোল ফিরিয়ে দিয়ে অবিশ্বাস্যভাবে জিতে নিয়েছে ম্যাচ। আর এতেই ৫২ বছরের পুরনো স্মৃতি ফিরিয়ে এনেছে রবার্তো মার্টিনেজের দল।

দুই গোলে পিছিয়ে পড়েও নব্বই মিনিটের মধ্যেই তিন গোল করে ম্যাচ জিতেছে বেলজিয়াম, আর এতেই বিশ্বকাপ ইতিহাসের প্রায় অর্ধশতক পুরনো রেকর্ডবুকে নাড়া দিয়েছে তারা। গত ৫২ বছরে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে নির্ধারিত নব্বই মিনিটের মধ্যে ম্যাচ জিততে পারেনি কোন দল, যেটা কাল করে দেখালো বেলজিয়াম। সর্বশেষ এমন কীর্তি ছিল ইউসেবিওর পর্তুগালের। ১৯৬৬ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে তিন গোল পিছিয়ে পড়েও ইউসেবিওর জাদুতে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই ৫-৩ গোলে জিতেছিল পর্তুগাল।

নির্ধারিত সময়ের গণ্ডি পেরিয়ে অতিরিক্ত সময় বিবেচনা নিলেও ৪৮ বছর পর এমন কীর্তির পুনরাবৃত্তি দেখলো বিশ্বকাপ। ১৯৭০ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুই গোলে পিছিয়ে পড়েও অতিরিক্ত সময়ে গার্ড মুলারের গোলে ৩-২ ব্যবধানে ম্যাচ জিতে নিয়েছিল পশ্চিম জার্মানি।

আরও একটি ইতিহাস গড়েছে বেলজিয়াম। গোলের নেশায় মরিয়া বেলজিয়াম কোচ বদলি হিসেবে নামিয়েছিলেন মারুয়ান ফেলাইনি ও নাসির চাডলিকে। শেষ পর্যন্ত নাটকীয় এই ম্যাচে গোল পেয়েছেন দুজনেই। আর এতেই হয়ে গেছে ইতিহাস। বদলি হিসেবে নেমে দুই খেলোয়াড়ই গোল পেয়েছেন, এমন ঘটনা এই প্রথমবার দেখলো বিশ্বকাপ।

একটি ব্যক্তিগত রেকর্ড হয়েছে বেলজিয়ামের ডিফেন্ডার ইয়ান ভার্তোনঘেনেরও। দুই গোলে পিছিয়ে পড়া বেলজিয়ামকে প্রথম ম্যাচে ফিরিয়েছিলেন টটেনহামের এই ডিফেন্ডারই। বক্সের ভেতরে ১৮.৬ মিটার দূর থেকে হেডে বল জালে জড়িয়েছেন তিনি। বিশ্বকাপ ইতিহাসে হেডে সবচেয়ে দূর থেকে গোল করার রেকর্ড এটিই।

আরও পড়ুন ঃ চোখে জল নিয়েও ড্রেসিং রুম পরিষ্কার করেছেন জাপানিরা​

Comments