ইংল্যান্ডের জয়কে ‘স্মরণীয় ডাকাতি’ বললেন ম্যারাডোনা

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে রেফারিকে এক হাত নিয়েছিলেন কলম্বিয়ান অধিনায়ক রাদামেল ফ্যালকাও। তাদের দাবি মাঠে রেফারির সিদ্ধান্তগুলো ছিল পক্ষপাতিত্বমূলক। যার সবই গিয়েছে ইংলিশদের পক্ষে। এবার সঙ্গী খুঁজে পেলেন ফ্যালকাও। তাও কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনাকে। ইংল্যান্ডের এ জয়কে ‘স্মরণীয় ডাকাতি’ বলেছেন এ কিংবদন্তি।
Diego-Maradona
ফাইল ছবি : রয়টার্স

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে রেফারিকে এক হাত নিয়েছিলেন কলম্বিয়ান অধিনায়ক রাদামেল ফ্যালকাও। তাদের দাবি মাঠে রেফারির সিদ্ধান্তগুলো ছিল পক্ষপাতিত্বমূলক। যার সবই গিয়েছে ইংলিশদের পক্ষে। এবার সঙ্গী খুঁজে পেলেন ফ্যালকাও। তাও কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনাকে। ইংল্যান্ডের এ জয়কে ‘স্মরণীয় ডাকাতি’ বলেছেন এ কিংবদন্তি।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আগের দিন টাই-ব্রেকারে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে কলম্বিয়া। ম্যাচ শেষে ভেনুজুয়েলার তেলেসুর টিভি চ্যানেলের বিশ্বকাপ নিয়ে একটি প্রোগ্রামে ম্যারাডোনা বলেন, ‘আজকে আমি মাঠে স্মরণীয় ডাকাতি দেখলাম। কিছু সর্বনাশা ভুল একটি দলের বিপক্ষে।’

মূলত দ্বিতীয়ার্ধে ইংল্যান্ডের পক্ষে দেওয়া পেনাল্টির সিদ্ধান্ত নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ম্যারাডোনা। ওই সিদ্ধান্তে প্রতিবাদ করেছিলেন কলম্বিয়ানরাও। ভিএআরের সাহায্য চেয়েছিলেন। কিন্তু কিছুই মানেননি আমেরিকান রেফারি মার্ক গেইজার। তবে রিপ্লেতে দেখা গিয়েছে ওইখানে ফাউল আগে করেছিল ইংলিশ খেলোয়াড়ই। ভিএআর নিলে হয়তো সিদ্ধান্ত পরিবর্তন হতেও পারত।

ম্যারাডোনা এ বিষয়টিকেই তুলে ধরেন। পাশাপাশি রেফারি গেইজারের পক্ষপাতিত্বমূলক আচরণের আগের উদাহরণও তুলে ধরেন, ‘এখানে একজন ভদ্রলোক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন... একজন রেফারি, সে কে? যদি আপনি তার নাম গুগোল করেন তাহলে তার একটা ম্যাচও দেখবেন না যে ভালভাবে পরিচালনা করেছে... গেইজার, একজন আমেরিকান, কি কাকতালীয়।’

চলতি বিশ্বকাপেই গেইজারের ম্যাচ পরিচালনা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়। গত ম্যাচ নিয়ে মোট তিনটি ম্যাচ পরিচালনা করেছেন। প্রথম ম্যাচে তার উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন মরক্কোর খেলোয়াড়রাও। পর্তুগালের বিপক্ষে সে ম্যাচে বেশ কিছু সিদ্ধান্তে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ করেন তারা।

শুধু তাই নয়, কনকাকাফ অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে পানামা ও মেক্সিকোর একটি ম্যাচে ব্যাপক সমালোচনা হয়। ওই ম্যাচে পানামার একজন খেলোয়াড়কে ভুল লাল কার্ড দেখান। পেনাল্টিও দেন। যার কারণে মেক্সিকোর কাছে ২-১ গোলে হেরে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ স্বপ্নটা অনেকটাই ফিকে হয়ে গিয়েছিল পানামার। যদিও শেষ পর্যন্ত মূল পর্বে খেলেছে দলটি।

রেফারির ভুল সিদ্ধান্তেই কলম্বিয়ার বিদায় হয়েছে বলে মনে করেন ম্যারাডোনা। নিজে তাই দেশটির সমর্থকদের কাছে দুঃখও প্রকাশ করেন, ‘সকল কলম্বিয়ানদের আমি দুঃখ প্রকাশ করছি। আমি কলম্বিয়ার গোলে আনন্দ করেছিলাম যেমনটা আমি নিজের বেলায় করি।’  

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka brick kiln

Dhaka's toxic air: An invisible killer on the loose

Dhaka's air did not become unbreathable overnight, nor is there any instant solution to it.

13h ago