নেইমার দাঁড়ালে দাঁড়ায় ব্রাজিল

রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি ব্রাজিল। পারেননি নেইমারও। উল্টো ফাউলের স্বীকার হওয়ার পর প্রতিক্রিয়াটা একটু বেশি দেখিয়ে হয়েছেন সমালোচনার স্বীকার। যা চলছে এখনও। তবে পরোক্ষভাবে এ সমালোচনা থামানোর অনুরোধ জানিয়েছেন এ পিএসজি তারকা। নিজের ভুল বুঝতে পেরে বদলে গিয়েছেন বলেও দাবি তার। স্পন্সর জিলেটের একটি অনুষ্ঠানে এমনটাই বলেছেন এ তারকা।
নেইমার দাঁড়ালে দাঁড়ায় ব্রাজিল

রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি ব্রাজিল। পারেননি নেইমারও। উল্টো ফাউলের স্বীকার হওয়ার পর প্রতিক্রিয়াটা একটু বেশি দেখিয়ে হয়েছেন সমালোচনার স্বীকার। যা চলছে এখনও। তবে পরোক্ষভাবে এ সমালোচনা থামানোর অনুরোধ জানিয়েছেন এ পিএসজি তারকা। নিজের ভুল বুঝতে পেরে বদলে গিয়েছেন বলেও দাবি তার। স্পন্সর জিলেটের একটি অনুষ্ঠানে এমনটাই বলেছেন এ তারকা।

ব্রাজিলের নিউক্লিয়াস নেইমার। তাকে কেন্দ্র করেই দলটি স্বপ্ন দেখেছিল বিশ্বকাপে। স্বরূপে থাকা নেইমার একাই পারেন প্রতিপক্ষকে ধসিয়ে দিতে। তাই নেইমারের ঘুরে দাঁড়ানো মানেই ব্রাজিলের ঘুরে দাঁড়ানো। তাই সিদ্ধান্তটা সমালোচকদের হাতেই ছেড়ে দিলেন এ ব্রাজিলিয়ান, ‘আপনি পাথর ছোড়া চালিয়ে যেতে পারেন। অথবা আপনি এটা বাইরে ছুড়তে পারেন এবং আমাকে ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করতে পারেন। যখন আমি আমার বন্ধুদের সঙ্গে দাঁড়াই ব্রাজিলও আমার সঙ্গে দাঁড়ায়।’

বিশ্বকাপে একটু বেশিই ফাউল করা হয়েছে নেইমারকে। এক সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষেই হয়েছেন ১০ বার। যা গত ২০ বছরে কোন একক খেলোয়াড়কে ফাউল করার রেকর্ডও বটে। আর ব্রাজিল বিশ্বকাপে তো তাকে আঘাত করে বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে দেওয়া হয়। তাই নিজেকে বাঁচাতে কিছুটা কৌশলের আশ্রয় নিতেই পারেন নেইমার। তাই ফাউল হওয়ার পর মাঝে মধ্যেই প্রতিক্রিয়াটা বেশি ছিল তার।

কিন্তু আঘাতটা তো তিনি পেয়েছেন। তারপরও কেন সমালোচনা? নেইমারের ভাষায়, ‘বুট দিয়ে পারা দেয়। মেরুদণ্ডে লাথি লাগে। পায়ের পাতায় চাপা দেয়। আপনারা হয়তো ভাবেন আমি বাড়াবাড়ি প্রতিক্রিয়া করি। মাঝেমধ্যে আমি করি। কিন্তু সত্যি কথা হচ্ছে আমি মাঠে ভুগি। আমি কিসের মধ্যে দিয়ে যাই সেটা ধারণাও আপনাদের নেই।’

‘আপনারা হয়তো ভাবেন আমি অনেক বেশি পড়ে যাই। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে আমি পড়ে যাই না। আমাকে ফেলে দেওয়া হয়। আপনাদের সমালোচনা মেনে নিতে আমি সময় নিয়েছিলাম। আয়নায় নিজেকে দেখার জন্য সময় নিয়েছিলাম এবং এখন আমি একজন নতুন মানুষ। আমি এখন খোলা মন নিয়ে এখানে আছি।’ – যোগ করে আরও বলেন নেইমার।

সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচিত নেইমার। এমনকি সমালোচনা করেছে গণমাধ্যমও। আর তাই গণমাধ্যমে এড়িয়ে চলেছেন নেইমার। কিন্তু তাতে সমালোচনার পরিমাণ আরও বেড়েছে। এর ব্যাখ্যাও দিয়েছেন নেইমার, ‘গণমাধ্যমে কথা না বলে যখন চলে যাই, কারণ এটা নয় যে আমি শুধু জিততে পছন্দ করি। এর কারণ আমি এখনও আপনাদের হতাশ করতে শিখিনি। যখন আমি অভদ্রের মতো আচরণ করি, তার কারণ এটা নয় যে আমি বখে যাওয়া একজন। এর কারণ আমি এখনও আমার হতাশা কীভাবে কাটিয়ে উঠতে হয় জানা নেই।’

Comments

The Daily Star  | English

MP Azim murder: Indian police team arrives in Dhaka today

A team of Indian police is set to arrive in Dhaka today to investigate the death of Jhenaidah-4 Awami League lawmaker Anwarul Azim Anar, who was murdered in Kolkata

17m ago