দলে না রেখেই সাব্বিরকে বার্তা, শুনানির পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

কেবল পারফরম্যান্স নয়, সাব্বির রহমানকে এশিয়া কাপের দলে না রাখার পেছনে মাঠের বাইরের ঘটনারও প্রভাব আছে বলে জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান। শৃঙ্খলতাজনিত কারণে এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের শুনানি হবে শনিবার। তারপরই আসবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।
Sabbir Rahman
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

কেবল পারফরম্যান্স নয়, সাব্বির রহমানকে এশিয়া কাপের দলে না রাখার পেছনে মাঠের বাইরের ঘটনারও প্রভাব আছে বলে জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান। শৃঙ্খলতাজনিত কারণে এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের শুনানি হবে শনিবার। তারপরই আসবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দলের কয়েকজন ক্রিকেটারের শৃঙ্খলতাজনিত ইস্যু নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলেন বোর্ড প্রধান।  বিসিবির ডিসিপ্লিনারি কমিটি শনিবার সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে তলব করেছে। এরমধ্যে অনেকদিন থেকে জড়ো হওয়া সাব্বিরের বিরুদ্ধে অভিযোগের মাত্রাই বেশি।

রাজশাহীতে জাতীয় ক্রিকেট লিগের ম্যাচে কিশোর পিটিয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে ছয় মাস নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সাব্বির। এর আগে বিপিএলে  গুরুতর শৃঙ্খলাভঙ্গ করায় মোটা অঙ্কের জরিমানাও করা হয়েছিল তাকে। তবু সংযত হননি এই ক্রিকেটার। সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের সময় এক ভক্তকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন তিনি।

বারবার দোষ করেও না শুধরানোয় সাব্বিরের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে বিসিবি। বোর্ড প্রধান জানিয়েছেন তার এশিয়া কাপের দলে না থাকাও এর একটা প্রভাব, ‘সাব্বিরকে তো ডিসিপ্লিনারি কমিটি থেকে ডাকা হয়েছে। এটার পরে সিদ্ধান্ত হবে। আর এখন তো সে স্কোয়াডে নাই, অবশ্য এর তো একটা প্রভাব আছেই।’

ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগ খতিয়ে দেখতে এরমধ্যে কাজ শুরু করেছে বিসিবি ডিসিপ্লিনারি কমিটি। তবে তার আগে দেওয়া হচ্ছে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ, ‘একজনকে আত্মপক্ষ সুযোগ না দিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক হবে না। সেজন্য ওরা ডেকেছে। কথা বলে সিদ্ধান্ত নেবে। যেটা হওয়া উচিৎ তেমন সিদ্ধান্তই আসবে।’

অভিযোগ প্রমাণিত হলে কি ব্যবস্থা, তা খোলাসা করে জানিয়ে দিয়েছেন নাজমুল, ‘চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আমার কাছে একটাই ন্যাশনাল টিমে নাই। সে জাতীয় দলে খেলতে পারবে না। এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যদি কেউ খেলতে না পারে, এরচেয়ে বেশি আর কি করতে পারব বলেন।’

শনিবার শুনানীর পর ফের শাস্তি পেতে পারেন সাব্বির। বিসিবি সূত্র থেকে জানা গেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে এবার নিষিদ্ধের শাস্তি পেতেই হচ্ছে সাব্বিরকে। তবে অন্য দুই ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের ব্যাপারে এরকম কোন সিদ্ধান্ত আসছে না। 

১০ লাখ টাকা যৌতুক চেয়েছেন বলে মোসাদ্দেকের স্ত্রী তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন, যদিও মোসাদ্দেক বলছেন স্ত্রীকে তিনি আগেই ডিভোর্স দিয়েছেন। বিসিবি প্রধানও ব্যাপারটা দেখছেন আলাদা চোখে,  'একটা ব্যাপার হলো, সব কিছুর মধ্যে বিসিবিকে জড়ালে হবে না। সবকিছু বিসিবির পক্ষে করাও সম্ভব না। যেমন, ডিভোর্স হয় না বাংলাদেশে? কেউ যদি কাউকে ডিভোর্স দিতে চায়, এটা নিয়ে আমরা কি করব! কেউ যদি একাধিক বিয়ে করে, আমাদের কিছু করার নেই। আমরা তো বলতে পারি না, ক্রিকেট যারা খেলে তারা একাধিক বিয়ে করতে পারবে না!'

নাসিরের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানান অভিযোগ নিয়ে হাজির হন এক তরুণী। বর্তমানে ইনজুরিতে থাকা এই ক্রিকেটারের বক্তব্য শুনবে ডিসিপ্লিনারি কমিটি। তবে যার বিরুদ্ধে অভিযোগ গুরুতর সেই সাব্বির রহমান এবার আর ছাড়া পাচ্ছেন না বলে ইঙ্গিত বিসিবি প্রধানের কথায়, 'তবে আমরা মনে করি, ক্রিকেটাররা আইডল। অনেকে তাদের অনুসরণ করে। অবশ্যই তাদের ভালো মানুষ হতে হবে। এটার জন্য যা যা করা দরকার, করতে হবে। কয়েকজনকে আমরা শাস্তি দিয়েছি, দিচ্ছি। যদি দেখি তা দিয়েও কাজ হচ্ছে না, তখন তো আমাদের কড়া শাস্তি দিতেই হবে। যদি আমরা মনে করি একটা জিনিস করা উচিত না কোনো খেলোয়াড়ের, সে যদি বারবার তা করতে থাকে, তখন কড়া সিদ্ধান্ত নিতেই হবে।'

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles running amok

The bus involved in yesterday’s accident that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not caved in to transport associations’ demand for allowing over 20 years old buses on roads.

10h ago