অধিনায়ক ধোনির ফেরার ম্যাচ রোমাঞ্চকর টাই

নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি তো আগেই বিশ্রামে। ফাইনালের আগে গুরুত্বহীন ম্যাচে বিশ্রাম মিলল এশিয়া কাপে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মারও। বিশ্রাম পেলেন শেখর ধাওয়ানও। তাই ৬৯৬ দিন পর ফের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। অধিনায়ক হিসেবে নিজের ২০০তম ম্যাচে। তবে ফেরাটা খুব একটা সুখকর হয়নি তার। অপেক্ষাকৃত দুর্বল আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পায়নি তারা। রোমাঞ্চকর টাই হয় ম্যাচটি।

নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি তো আগেই বিশ্রামে। ফাইনালের আগে গুরুত্বহীন ম্যাচে বিশ্রাম মিলল এশিয়া কাপে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মারও। বিশ্রাম পেলেন শেখর ধাওয়ানও। তাই ৬৯৬ দিন পর ফের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। অধিনায়ক হিসেবে নিজের ২০০তম ম্যাচে। তবে ফেরাটা খুব একটা সুখকর হয়নি তার। অপেক্ষাকৃত দুর্বল আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পায়নি তারা। রোমাঞ্চকর টাই হয় ম্যাচটি।

ম্যাচের শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ৭ রানের। উইকেটে সেট ব্যাটসম্যান রবিন্দ্র জাদেজা। প্রথম বল ডট দিলেও দ্বিতীয় বলে দারুণ এক চার মারেন জাদেজা। পরের বলে সিঙ্গেল নেন। চতুর্থ বলটা ভালো ভাবেই পার করে দেন ১০ নম্বর ব্যাটসম্যান খলিল আহমেদ। পঞ্চম বলেই ভুল করে ফেলেন জাদেজা। সিঙ্গেল না নিয়ে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে মিড উইকেটে ধরা পড়েন গুলবাদিন নাইবের হাতে। ফলে টাই-ই হয় ম্যাচের পরিণতি। এশিয়া কাপের ইতিহাসে এটাই একমাত্র টাই।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মোহাম্মদ শাহজাদের সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৫২ রান করে আফগানিস্তান। জবাবে দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল ও আম্বাতি রাইডুর শতরানের ওপেনিং জুটির পরও সব উইকেট হারিয়ে ২৫২ রানে থেমে যায় ভারতের ইনিংস।

২৫৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা পায় ভারত। দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল ও আম্বাতি রাইডু গড়েন ১১০ রানের জুটি। তবে এ জুটি ভাঙার পর গড়ে ওঠেনি বড় কোন জুটি। তাই বেশ সংগ্রাম করতে হয় ভারতকে। শেষ দিকে জাদেজার ব্যাট জ্বলে না উঠলে হারই দেখতে হতো দলটিকে।

৬৬ বলে ৬০ রানের ইনিংস খেলেন রাহুল। ৫টি চার ও ১টি ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান এ ওপেনার। আরেক ওপেনার রাইডুর ব্যাট থেকে আসে ৫৭ রান। ৪৯ বলে সমান ৪টি করে চার ও ছক্কায় এ রান করেন তিনি। এছাড়া তিন নম্বরে নেমে দীনেশ কার্তিক করেন ৪৪ রান। আফগানিস্তানের পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন রশিদ খান, আফতাব আলম ও মোহাম্মদ নবি।

এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মোহাম্মদ শাহজাদের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে দারুণ সূচনা পায় আফগানিস্তান। জাভেদ আহমেদির সঙ্গে ৬৫ রানের ওপেনিং জুটি গড়েন শাহজাদ। তাতে আহমেদির অবদান মাত্র ৫ রান। ওপেনিং জুটি ভাঙার পর দ্রুতই আরও তিনটি উইকেট হারিয়ে ফেলে আফগানরা। তবে এক প্রান্তে অনড় ছিলেন শাহজাদ।

পঞ্চম উইকেটে গুলবাদিন নাইবের সঙ্গে ৫০ রানের জুটি গড়েন শাহজাদ। এরপর মোহাম্মদ নবির সঙ্গে গড়েন ৪৮ রানের জুটি। তাতেই লড়াইয়ে পুঁজি পেয়ে যায় আফগানিস্তান। শেষ দিকে আগ্রাসী ব্যাটিং করেন নবিও। ফলে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৫২ রান সংগ্রহ করে দলটি।

ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরি তুলে এদিন ১২৪ রানের ইনিংস খেলেন শাহজাদ। ১১৬ বলের এ ইনিংসে ১১টি চার ও ৭টি ছক্কা মারেন এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। ৫৬ বলে ৬৪ রানের ইনিংস খেলেন নবি। ৩টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন এ অলরাউন্ডার। ভারতের পক্ষে ৪৬ রানের খরচায় ৩টি উইকেট নেন রবিন্দ্র জাদেজা। কুলদিপ যাদব নেন ২টি উইকেট।

Comments

The Daily Star  | English
Cyclone Remal | Sundarbans saves Bangladesh but pays a heavy price

Sundarbans saves Bangladesh but pays a heavy price

The Sundarbans, Bangladesh’s “silent protector”, the shield and first line of defense against natural disasters, has once again safeguarded the nation from a cyclone -- Remal.

12h ago