ক্রিকেট

তিনশ ছোঁয়া উদ্বোধনী জুটিতে ব্র্যাথওয়েট-তেজনারাইনের দুই রেকর্ড

ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রায় একশ বছরের টেস্ট ইতিহাসে প্রথমবারের এমন কিছুর দেখা মিলল। তিনশ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়লেন ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ও তেজনারাইন চন্দরপল। সেখানেই শেষ নয়। একবিংশ শতাব্দীর প্রথম উদ্বোধনী জুটি হিসেবে এক ইনিংসে ১০০ ওভারের বেশি ব্যাট করলেন তারা।
ছবি: টুইটার

ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রায় একশ বছরের টেস্ট ইতিহাসে প্রথমবারের এমন কিছুর দেখা মিলল। তিনশ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়লেন ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ও তেজনারাইন চন্দরপল। সেখানেই শেষ নয়। একবিংশ শতাব্দীর প্রথম উদ্বোধনী জুটি হিসেবে এক ইনিংসে ১০০ ওভারের বেশি ব্যাট করলেন তারা।

সোমবার স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বুলাওয়েয়ো টেস্টের তৃতীয় দিনে দুই কীর্তি গড়েন অধিনায়ক ব্র্যাথওয়েট ও তেজনারাইন। ১১৪.১ ওভার টেকে তাদের উদ্বোধনী জুটি। বিচ্ছিন্ন হওয়ার আগে তারা স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ৩৩৬ রান। বলাই বাহুল্য, ক্যারিবিয়ানদের টেস্ট ইতিহাসে শুরুর জুটিতে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড এটি।

সাদা পোশাকে উদ্বোধনী জুটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের আগের সর্বোচ্চ ছিল ২৯৮ রান। ১৯৯০ সালের এপ্রিলে সেই কীর্তি গড়েছিলেন গর্ডন গ্রিনিজ ও ডেসমন্ড হেইন্স। অ্যান্টিগার সেন্ট জনসে স্বাগতিকদের প্রতিপক্ষ ছিল ইংল্যান্ড। ৩৩ বছর পর গ্রিনিজ ও হেইন্সকে ছাড়িয়ে গেলেন ব্র্যাথওয়েট ও তেজনারাইন।

বৃষ্টিবিঘ্নিত চলমান টেস্টে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম দিনে বিনা উইকেটে ১১২ রান তোলে ক্যারিবিয়ানরা। সেদিন দুজনই অপরাজিত ছিলেন ৫৫ রানে। দ্বিতীয় দিন শেষে তাদের সংগ্রহ বেড়ে দাঁড়ায় বিনা উইকেটে ২২১ রান। ডানহাতি ব্র্যাথওয়েট হাঁকান ক্যারিয়ারের ১২তম সেঞ্চুরি। মাত্র তৃতীয় টেস্ট খেলতে নামা বাঁহাতি তেজনারাইন পান প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদ।

ছবি: টুইটার

প্রথম দুই দিন ধৈর্যশীল ব্যাটিং উপহার দেন ব্র্যাথওয়েট ও তেজনারাইন। তৃতীয় দিনের শুরু থেকে চালিয়ে খেলতে থাকেন তারা। ইনিংসের ১০৭তম ওভারে গ্রিনিজ ও হেইন্সকে পেছনে ফেলেন দুজনে। জিম্বাবুয়ের অভিষিক্ত পেসার ব্র্যাড ইভান্সকে ফাইন লেগ দিয়ে চার মারেন ব্র্যাথওয়েট। তাতেই পূরণ হয় দলীয় ৩০০ রান।

আগের বলেই অবশ্য ভাঙতে পারত জুটি। বাড়তি বাউন্সে চমকে গিয়েছিলেন ব্র্যাথওয়েট। তবে ফিরতি ক্যাচ লুফে নিতে পারেননি ইভান্স।

ব্র্যাথওয়েট ১৬৭ রানে জীবন পেয়ে এগোতে থাকেন ডাবল সেঞ্চুরির দিকে। কিন্তু সেখানে তাকে পৌঁছাতে দেননি বাঁহাতি স্পিনার ওয়েলিংটন মাসাকাদজা। ১১৫তম ওভারে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন তিনি। থামে ৩১২ বলে তার ১৮২ রানের ইনিংস। তিনি মারেন ১৮টি চার।

টেস্টে শুরুর জুটিতে ১০০ ওভারের বেশি খেলার ঘটনা শেষবার দেখা গিয়েছিল গত শতাব্দীতে। ২০০০ সালের জুলাইতে মারভান আতাপাত্তু ও সনাথ জয়সুরিয়া ১১৪.২ ওভার টিকে যোগ করেছিলেন ৩৩৫ রান। ক্যান্ডিতে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার প্রতিপক্ষ ছিল পাকিস্তান।

১৪৩ ওভারে ৬ উইকেটে ৪৪৭ রান তুলে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দলনেতা না পারলেও তেজনারাইন নিজের প্রথম সেঞ্চুরিকে ডাবল সেঞ্চুরিতে রূপ দিয়ে অপরাজিত থাকেন ২০৭ রানে। ৪৬৭ বলের ইনিংসে তিনি মারেন ১৬ চার ও ৩ ছক্কা। শেষ ওভারে ওয়েলিংটনকে মিড অফ দিয়ে ছক্কা মেরে দুইশ স্পর্শ করেন তিনি।

Comments