ক্রিকেট
নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

১৫-২০ রানের ঘাটতি ছিল: জ্যোতি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ইতিহাসে পরিসংখ্যান বিব্রতকর বাংলাদেশের। আগের আসরগুলোর হতাশার সঙ্গে এবার প্রথম ম্যাচের হারে টানা ১৩ হারের দেখা পেল লাল সবুজের দল।
Marufa Akter & Nigar Sultana Joty

মুরশিদা খাতুনের উইকেট দ্রুত হারালেও শামীমা সুলতানা আর সোবহানা মুশতারির ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু শুরুর আগেই সাবলীল গতি পরে আর টেনে নিতে পারেনি নিগার সুলতানা জ্যোতির দল। দিক হারিয়ে প্রতিপক্ষকে দিতে পারেনি চ্যালেঞ্জিং পুঁজি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার কাছে হারের কারণ হিসেবে ব্যাটিংকে দায় দিলেন অধিনায়ক।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ইতিহাসে পরিসংখ্যান বিব্রতকর বাংলাদেশের। আগের আসরগুলোর হতাশার সঙ্গে এবার প্রথম ম্যাচের হারে টানা ১৩ হারের দেখা পেল লাল সবুজের দল।

রোববার রাতে কেপটাউনে ১২৬ রান করে মারুফা আক্তারের তোপে প্রতিপক্ষের উপর চাপ বাড়ালেও পরে আর লড়াই করা যায়নি। ম্যাচ হারতে হয় ৭ উইকেটে।

খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে হাজির হয়ে জ্যোতি জানান, ব্যাটিংয়ে শেষ দশ ওভার বদলে দিয়েছে তাদের গতিপথ,  'প্রথমত আমার মনে হয়, ১৫-২০ রানের ঘাটতি ছিল আমাদের। এই ধরনের উইকেটে অন্তত ১৪০ রানের বেশি করতে পারলে দারুণ হতো। কারণ, তাদের ব্যাটিং বিভাগ অনেক শক্তিশালী। আমাদের শুরুটা ভালো ছিল, কিন্তু দশম ওভারের পর ভালো করতে পারিনি। ষষ্ঠ ওভারের পর বাউন্ডারি মারতে পারিনি আমরা। ওখানে আমাদের ঘাটতি ছিল এবং এটির মূল্যই দিতে হয়েছে আমাদের।'

বড় হারেও দলের প্রাপ্তি পেসার মারুফা। বয়সভিত্তিক পর্যায় থেকে উঠে আসা এই তরুণী স্যুয়িং বলের পসরায় আলো কাড়েন আলাদাভাবে। প্রথম দুই ওভারে কোন রান না দিয়েই তুলে নেন তিন উইকেট, সম্ভাবনা জাগান হ্যাটট্রিকের। তবে দলের বাকিরা ছিলেন না তার মতন ধারালো, ফিল্ডিংও হয় বিবর্ণ।

সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন তিনিও। বিদেশি গণমাধ্যম কর্মীরা তাকে অনেক প্রশ্ন করলেও অল্প বয়েসী এই ক্রিকেটার এরকম আনুষ্ঠানিকতায় ছিলেন না স্বাচ্ছন্দ্য। খুব সরল কথায় প্রকাশ করেন তার প্রতিক্রিয়া, 'ওখানে (অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে) আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলেছি। এমনভাবে খেলেছি যেন আপনাদের সঙ্গে (জাতীয় দলে) খেলার সুযোগ পাই।'

'(টানা দুই বলে উইকেট নিয়ে) অনেক ভালো লাগছিল।'

Comments