বাংলাদেশ-আয়ারল্যান্ড সিরিজ

বাংলাদেশের বিপক্ষে বিপিএলের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাবেন ক্যাম্ফার

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসা আয়ারল্যান্ড দল সোমবার সিলেটে প্রথম অনুশীলনে নামে। মঙ্গলবারও অনুশীলন করে বুধবার একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে তারা। ১৮ মার্চ প্রথম ওয়ানডের আগে নিজেদের তৈরি করার ভালো সুযোগই মিলছে।
Curtis Campher
সিলেটে অনুশীলনে কার্টিস ক্যাম্ফার। ছবি: বিসিবি

মাস দেড়েক আগেই বাংলাদেশে খেলে গেছেন কার্টিস ক্যাম্ফার। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামেই চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলেন তিনি। এবার আয়ারল্যান্ডের জার্সিতে একই ভেন্যুতে এসে চেনা আবহের উত্তাপ টের পাচ্ছেন এই অলরাউন্ডার। মাঠ, উইকেট সম্পর্কে ধারণা থাকায় বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ নিয়ে বেশ আশাবাদীও তিনি।

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসা আয়ারল্যান্ড দল সোমবার সিলেটে প্রথম অনুশীলনে নামে। মঙ্গলবারও অনুশীলন করে বুধবার একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে তারা। ১৮ মার্চ প্রথম ওয়ানডের আগে নিজেদের তৈরি করার ভালো সুযোগই মিলছে।

ব্যাটিং, বোলিং আর ফিল্ডিং অনুশীলন সেরে এই অলরাউন্ডার জানান ওয়ানডে সিরিজের আগে দারুণ প্রস্তুত হতে পারছেন তারা, 'খেলতে নামার আগে সিলেটে ফিরে বিপিএলের অভিজ্ঞতা অবশ্যই আমাকে সাহায্য করবে। আমরা একটি প্রস্তুতি ম্যাচ পাচ্ছি, এটা ভালো দিক। আমি এখানে দিন-রাতের ম্যাচ খেলেছি। ওয়ানডে ম্যাচও হবে দিবারাত্রির। কাজেই ভালো প্রস্তুতি আছে। বিপিএল খুব উপভোগ করেছি। ব্যক্তিগতভাবে আমার কাছে ভালো ব্যাপার যে আমি এখানকার দর্শকদের অভিজ্ঞতা, উইকেট সম্পর্কে ধারনা রাখি।'

গত ২৭ জানুয়ারি ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে চট্টগ্রামের হয়ে সিলেটের মাঠে খেলতে নেমেছিলেন ক্যাম্ফার। সেদিন ২৫ বলে ৪ বাউন্ডারি, ২ ছক্কায় ৪৫ রান করে আলো কাড়েন তিনি। মিডিয়াম পেসে অবশ্য সুবিধা করতে পারেননি।

বিপিএলে যেমন উইকেট দেখা গেছে, দ্বি-পাক্ষিক সিরিজে তেমনটা নাও থাকতে পারে। বাংলাদেশ-ইংল্যান্ডের সিরিজ দেখে তাই কিছুটা ধারণা নিতে চেয়েছেন তিনি। তবে সিলেটে নেমে মনে হচ্ছে উইকেট গড়পড়তা ভালোর দিকেই হবে,   'কন্ডিশন নিয়ে যদি বলি। আমি ইংল্যান্ড সিরিজের কিছু খেলা দেখেছি। বল খুব শার্প টার্ন করে। কাজেই আমরা টার্ন প্রত্যাশা করতে পারি। যদিও আমরা দেখতে পাচ্ছি ভালো ব্যাটিং উইকেট। আজ নেটেও দেখলাম খুব ভালোভাবে বল আসছে। আশা করি বলে-ব্যাটে ভালো লড়াই হবে। আবহাওয়া একটু গরম। আমরা মুখিয়ে আছি মানিয়ে নিয়ে খেলার।'

বাংলাদেশের বিপক্ষে সফরে এবার একটি টেস্টও খেলবে আয়ারল্যান্ড। সাদা পোশাকে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা ক্যাম্ফারও আছেন টেস্ট দলে, মুখিয়ে আছেন টেস্টে নামার। এমনকি বাংলাদেশকে টেস্টে হারিয়ে দেওয়ারও স্বপ্ন বুনছেন তিনি,  'যদি টেস্ট খেলার জন্য নির্বাচিত হই, অবশ্যই সেটা আমার ক্যারিয়ারের জন্য সেরা হাইলাইট হবে। অবশ্য টেস্ট সর্বোচ্চ ও শুদ্ধতম সংস্করণ। টেস্ট ক্রিকেট সবচেয়ে কঠিন, কঠিন লড়াই করতে হবে। বাংলাদেশের রেকর্ড ঘরের মাঠে দুর্দান্ত। টেস্টের অংশ হতে পারা হবে দুর্দান্ত। আশা করছি আয়ারল্যান্ডের প্রথম টেস্ট জয় এখানে আসবে।' 

১৮ মার্চ দুপুর ২টায় শুরু হবে বাংলাদেশ-আয়ারল্যান্ডের প্রথম ওয়ানডে। ২০ মার্চ একই সময়ে দ্বিতীয় ম্যাচ। ২৩ মার্চ দুপুর আড়াইটায় লড়বে দু'দল। ওয়ানডে সিরিজের সবগুলো ম্যাচই হবে সিলেটে।

Comments

The Daily Star  | English

Small businesses, daily earners scorched by heatwave

After parking his motorcycle and removing his helmet, a young biker opened a red umbrella and stood on the footpath.

1h ago