ডি-ভিলিয়ার্সের সেরা চারে নেই পাকিস্তান

উপমহাদেশে অনুষ্ঠিত আগের তিন বিশ্বকাপেই সেমি-ফাইনাল খেলেছে পাকিস্তান।

ভারত আইসিসি বিশ্বকাপ শুরু হতে এখনও ঢের সময় বাকি। তবে এরমধ্যেই এর দামামা বাজতে শুরু করেছে। সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়ন ও সেমি-ফাইনালিস্ট নিয়ে তর্কে মেতে উঠছেন সমর্থকরা। ক্রিকেট কিংবদন্তিরাও ভবিষ্যদ্বাণী করছেন। তবে সম্ভাব্য সেরা চারে পাকিস্তানকে রেখেছেন প্রায় সবাই-ই। সেখানে ব্যতিক্রম দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স।

ভারতের মাটিতে বিশ্বকাপ হওয়ায় উপমহাদেশের দলগুলোর সম্ভাবনা স্বাভাবিকভাবেই বেশি। স্বাগতিক ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানকে নিয়ে আশা দেখছেন খোদ ভারতীয়রাও। এর আগে সম্ভাব্য সেমি-ফাইনালিস্ট নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বাবর আজমদের সেরা চারে রেখেছেন বীরেন্দর শেবাগ। অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাকগ্রা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইলের তালিকাতেও ছিল পাকিস্তান।

উপমহাদেশে এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপ হয়েছে তিনবার। এই তিনবারই সেমি-ফাইনালে খেলেছে পাকিস্তান। তার উপর সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ক্রিকেট খেলছে পাকিস্তান। আসরটিও অনুষ্ঠিত হচ্ছে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে। যদিও দুই দেশের রাজনৈতিক বৈরিতার জন্য অনেক বছর থেকেই ভারতে খেলা হচ্ছে না তাদের। তবে কন্ডিশনে মিল তাদের শিরোপা দৌড়ে রাখছেন অনেকেই।

কিন্তু কিছুটা ভিন্ন পথে হেঁটে উপমহাদেশের বাইরে থেকেই তিনটি দল বাছাই করেছেন ডি ভিলিয়ার্স। নিজের ইউটিউব চ্যানেলের এক প্রশ্নোত্তর ভিডিওতে সম্ভাব্য সেরা চার নিয়ে এই প্রোটিয়া বলেন, 'উপমহাদেশীয় দলের বাইরে আমি তিনটি দলকে রাখছি, যা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ, তবে আমি এটাতেই থাকব।'

স্বাগতিক হওয়ায় একমাত্র ভারতকেই নিজের তালিকায় রেখেছেন ডি ভিলিয়ার্স। তাদের বিশ্বকাপ জয়ের সবচেয়ে বেশি সম্ভাবনাও দেখছেন তিনি। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড ও বিশ্বকাপের সবচেয়ে সফল দল অস্ট্রেলিয়া রয়েছে তার তালিকায়। এছাড়া নিজ দেশের সম্ভাবনাও দেখছেন তিনি, 'অবশ্যই ভারতকে রাখতে হবে। আমি তো মনে করি তারা আবারও বিশ্বকাপ জিতবে। এটা একটা রূপকথার বিশ্বকাপ হবে। সেমিফাইনালের ক্ষেত্রে ভারত, ইংল্যান্ড আর অস্ট্রেলিয়া—এই বিগ থ্রিকে রাখব আমি। যদিও পাকিস্তানের ভালো সম্ভাবনা আছে, তবু চার নম্বরে আমি দক্ষিণ আফ্রিকাকেই রাখব।'

অথচ বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বোচ্চ দৌড় সেমি-ফাইনাল পর্যন্ত। এবার বিশ্বকাপে জায়গা করে নিতেও বেশ কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে তাদের। কিন্তু তারপরও নিজ দেশের পক্ষে বাজী ধরছেন ডি ভিলিয়ার্স, 'ওদের জন্য কাজটা সহজ হবে না। তবে কখনোই "কখনো না" বলতে নেই। এটা বিশ্বকাপ, দক্ষিণ আফ্রিকার ওপর প্রত্যাশা কম। আর এটাই ওদের চাঙা করে তুলতে পারে। দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড়েরা খুবই প্রতিভাবান, কিন্তু দল হিসেবে খুবই কম মূল্যায়িত।'

আগামী অক্টোবর এবং নভেম্বর মাসে অনুষ্ঠিত হবে এবার বিশ্বকাপ। যেখানে মোট ১০টি দল অংশগ্রহণ করবে। ৫ অক্টোবর টুর্নামেন্টটি শুরু হবে এবং ১৯ নভেম্বর ফাইনাল ম্যাচ শেষ হবে এই আসর। সে ফাইনালে ভারত ও ইংল্যান্ড মোকাবেলা করবে বলে মনে করছেন ডি ভিলিয়ার্স, 'ফাইনালে খেলবে ভারত-ইংল্যান্ড। দলদুটি যদি একে অপরকে ফাইনালে পায়, চমৎকার একটা ম্যাচ হবে; যদিও সেখানে আমি দক্ষিণ আফ্রিকাকেই দেখতে চাই।'

Comments

The Daily Star  | English
inflation in Bangladesh

Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Bangladesh's annual average inflation crept up to 9.59% last month, way above the central bank's revised target of 7.5% for the financial year ending in June

3h ago