কমিটমেন্ট থাকলে মিরপুরেও রান করা সম্ভব, দাবি মিরাজের

অথচ প্রথম দিনেই ১৫ উইকেটের পতন হয়েছে মিরপুর টেস্টে।

প্রথম দিনেই ১৫ উইকেটের পতন। নিজেদের প্রথম ইনিংসে ১৭২ রানে গুটিয়ে গেছে বাংলাদেশ। এরপর নিউজিল্যান্ডও হারিয়ে ফেলেছে সেরা পাঁচ উইকেট। তাতে প্রশ্ন উঠেছে, উইকেটে মিরপুরের এই উইকেটে আদৌ ভালো ব্যাটিং করা সম্ভব কি-না। তবে মেহেদী হাসানের মিরাজের দাবি, কমিটমেন্ট থাকলে এই উইকেটেও রান করা সম্ভব।

এর আগেও স্পিন সহায়ক উইকেট তৈরি করে বড় বড় দলগুলোর বিপক্ষে জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু প্রথম দিনেই ব্যাটারদের এতো অস্বস্তি নিয়ে ব্যাটিং করতে দেখা যায়নি। এদিন শুরু থেকেই বল শার্প টার্ন করতে থাকে। আবার কখনোও সোজা গিয়ে বিভ্রান্ত করেছে ব্যাটারদের। পাশাপাশি দেখা গিয়েছে আনইভেন বাউন্সও। তাতে ব্যাটিং করতে হিমশিম খেয়েছেন দুই দলের ব্যাটাররাই।

কিন্তু তারপরও কমিটমেন্ট থাকলে মিরপুরের এই উইকেটেও রান করা সম্ভব জানিয়ে মিরাজ বলেন, 'ব্যাটারদের জন্য একটু চ্যালেঞ্জিং। তবে কমিটমেন্ট থাকলে, আরও ভালোভাবে খেললে ভালো করা যাবে। প্রথম ৩০ ওভার অনেক চ্যালেঞ্জিং যখন বল নতুন থাকে। বল পুরনো হলে ব্যাটারদের সুযোগ বেড়ে যায়। বল পুরনো হয়ে গেলে আর তেমন সুবিধা থাকে না বোলারদের।'

মিরপুরে এদিন সকাল থেকেই আকাশ ছিলো কুয়াশায় ঢাকা। সূর্যের দেখা পাওয়া যায়নি শুরুতে। তবে সূর্যের দেখা যাওয়ার পর রোদ বাড়তে থাকলে কিছুটা সহজ হয় ব্যাটিং। ম্যাচের প্রথম ঘণ্টায় চার উইকেট হারালেও এরপর সাহাদাত হোসেন দিপুর সঙ্গে ৫৭ রানের জুটি গড়েছিলেন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। মুশফিক বিদঘুটে আউট না হলে সে জুটি হতে পারতো আরও লম্বা।

তবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এবার প্রথম টেস্ট সিলেটে খেলেছে বাংলাদেশ। উইকেট ভালো থাকায় সেখানে দুই ইনিংসেই তিনশর বেশি রান তুলেছেন টাইগার ব্যাটাররা। পরে স্পিনও ধরেছে। শেষ পর্যন্ত ১৫০ রানের জয় পায় বাংলাদেশ। এমন উইকেটই আদর্শ বলেছেন ক্রিকেট বোদ্ধারা। সেখানে এক ম্যাচে যেতেই মিরপুরে সেই টার্নিং উইকেট।

হোম এডভান্টেজ নিতেই এমনটা করেছেন বলে জানান মিরাজ, 'সিলেটের উইকেটও স্লো ছিল, ব্যাটাররা সহায়তা পেয়েছে পরে আবার স্পিনাররা সহায়তা পেয়েছে। আমরা তো মিরপুরে খেলে অভ্যস্ত। আমরা বাইরে গেলে প্রত্যেক দলই হোম এডভান্টেজ নিতে চায়। আমরাও একটু হোম এডভান্টেজ নেওয়ার চেষ্টা করছি।'

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ বলেই জয় পাওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন এই অলরাউন্ডার, 'যেহেতু টেস্ট ক্রিকেট, যেহেতু এগিয়ে আছি জিততে পারলে পয়েন্ট টেবিলে এগিয়ে থাকব। এটা টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা। দুটি ম্যাচই জিতলে দলের অবস্থান অনেক উপরে চলে যাবে। যতটুকু এডভান্টেজ আছে অবশ্যই নেওয়ার চেষ্টা করছি।'

তবে এতো ব্যাখ্যার পরও আরও কিছুটা ভালো উইকেটের প্রত্যাশা করলেন মিরাজ, 'আমার মনে হয় উইকেট আরেকটু ভালো হলে ভালো হয় ব্যাটারদের জন্য। এমন উইকেটে ব্যাটাররা অনেক সংগ্রাম করে। আমার মনে হয় এটা টিম ম্যানেজমেন্টের পরিকল্পনা। আমরা সিরিজে এগিয়ে আছি, অবশ্যই আমরা এই সুবিধা নিতে চাইব।'

Comments

The Daily Star  | English

$7b pledged in foreign funds

When Bangladesh is facing a reserve squeeze, it has received fresh commitments for $7.2 billion in loans from global lenders in the first seven months of fiscal 2023-24, a fourfold increase from a year earlier.

4h ago