বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফর

সিরিজ হারলেও ‘ইতিবাচক অনেক কিছু’ দেখছেন শান্ত

প্রথম ম্যাচে ডিএলএস মেথডে ৪৪ রানে হারের পর দ্বিতীয়টিতে ৭ উইকেটে উড়ে যায় লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। এই নিয়ে দেশটিতে সাতটি ওয়ানডে সিরিজের সবগুলোই হারল বাংলাদেশ। সিরিজ তো বটেই একটা ম্যাচও জেতা হয়নি এখনো অবধি। 
Najmul Hossain Shanto
আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে রান পেলেও বাকি তিন ম্যাচে রান খরা নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাটে। একটু কি চিন্তায় বাংলাদেশের সহ-অধিনায়ক। ছবি: একুশ তাপাদার

সেই ২০০৭ সাল থেকে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে একটা টেস্ট জেতা ছাড়া কেবল হারই সঙ্গী বাংলাদেশের। এবারও ওয়ানডে সিরিজে লড়াই করতে না পেরে প্রথম দুই ম্যাচই হেরেছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। দেশটিতে বাংলাদেশের টানা ওয়ানডে হারের বিব্রতকর রেকর্ড বেড়ে হয়েছে এখন হয়েছে ১৮। তবে এবার হারলেও ইতিবাচক অনেক কিছু খুঁজে পাচ্ছেন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক শান্ত।

প্রথম ম্যাচে ডিএলএস মেথডে ৪৪ রানে হারের পর দ্বিতীয়টিতে ৭ উইকেটে উড়ে যায় লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। এই নিয়ে দেশটিতে সাতটি ওয়ানডে সিরিজের সবগুলোই হারল বাংলাদেশ। সিরিজ তো বটেই একটা ম্যাচও জেতা হয়নি এখনো অবধি। 

শুক্রবার নেপিয়ারে অনুশীলনে নামার আগে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে শান্ত জানান স্রেফ নেতিবাচক দিক না দেখে ইতিবাচক দিকে চোখ তাদের, 'আমার মনে হয় পরের ম্যাচ জেতার জন্য খেলব। আমরা শুরুতে একটা লক্ষ্য ঠিক করে এসেছিলাম, যেটা হয়নি। প্রথম ম্যাচ বৃষ্টির কারণে কিছুটা আনলাকি ছিলাম। দ্বিতীয় ম্যাচে সৌম্য দারুণ এক ইনিংস খেলেছে, রিশাদ ভালো বল করেছে। এখানেও ইতিবাচক অনেক কিছু ছিলো। শুধু নেতিবাচক না দেখেই এই বছর আমরা কোন কোন বিভাগে ভালো করলাম এই জিনিসগুলো দেখার দরকার আছে। রিশাদের বোলিং স্পেল দারুণ ছিলো, সৌম্যের কামব্যাক অসাধারণ ছিলো। শরিফুলের নতুন বলের বোলিং ভালো ছিলো। দল হিসেবে খেলতে পারলে ম্যাচ জেতা সম্ভব।'

নেলসনে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দলের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি ছিলো ওপেনার সৌম্যের ফিরে আসা। অনেকদিন ধরে আসা যাওয়ার মধ্যে থাকা ব্যাটার খেলেন ১৫১ বলে ১৬৯ রানের ইনিংস। এশিয়ান কোন ব্যাটারের কিউইদের মাঠে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস এটাই। সৌম্যের একার ঝলকে বাংলাদেশ করে ২৯১। নিউজিল্যান্ডের মাঠে ওয়ানডেতে এর আগে এত রান করেনি বাংলাদেশের কোন দল। কিন্তু দল হিসেবে জ্বলে উঠতে না পারায় জয় ধরা দেয়নি।

শান্ত ঘাটতি দেখছেন এখানে। শেষ ম্যাচে তাই দল হিসেবে জ্বলে উঠে অন্তত হোয়াইটওয়াশ এড়াতে চান তারা, কিউইদের মাঠে পেতে চান প্রথম জয়, 'এই দলটা আগের দলের থেকে একটু নতুন। সেই তুলনায় বেশ কিছু ভালো জিনিস ছিলো। ব্যক্তিগত দু'একটা পারফরম্যান্স হচ্ছে কিন্তু দল হিসেবে আমাদের পারফরম্যান্স আসে নাই। যেমন ধরেন সৌম্য একা ইনিংস ক্যারি করল, শুরুর দিকে ওরকম কেউ রান করেনি। এই ধরণের কন্ডিশনে বড় জুটি গুরুত্বপূর্ণ সেটাই কাল করার চেষ্টা করব। আর যেটা বললেন হোয়াইট ওয়াশের সামনে, দোয়া করেন যেন সেটা না হয়।'

শনিবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় শুরু হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে।

Comments