সেই এলগারের ব্যাটে লিড দক্ষিণ আফ্রিকার

আগামী পরিকল্পনায় নেই জানতে পেরে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক অধিনায়ক ডিন এলগার।

আগামী পরিকল্পনায় নেই জানতে পেরে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক অধিনায়ক ডিন এলগার। সেই এলগারই প্রথম টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার ত্রাতা। তার সেঞ্চুরিতেই লিড পেয়েছে দলটি। এমনকি আরও বড় লিডের স্বপ্ন দেখছে প্রোটিয়ারা।

বুধবার সেঞ্চুরিয়নে ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে ১১ রানের লিড নিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এদিন ৫ উইকেট তুলে ২৫৬ রান করেছে তারা। এর আগে ভারতকে তাদের প্রথম ইনিংসে ২৪৫ রানে গুটিয়ে দিয়েছে স্বাগতিক দলটি।

তবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি প্রোটিয়াদের। ব্যক্তিগত ৫ রানেই ফিরে যান ওপেনার এইডেন মার্করাম। এরপর টনি ডি জর্জির ৯৩ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক চাপ সামলে নেন এলগার। জর্জিকে ফিরিয়ে এ জুটি ভাঙেন জাসপ্রিত বুমরাহ। এরপর দ্রুত কিগান পিটারসেনকেও তুলে নেন এই পেসার।

এরপর ডেভিড বেডিংহ্যামকে নিয়ে ফের আরও একটি দারুণ জুটি গড়েন এলগার। তৃতীয় উইকেটে ১৩১ রান যোগ করেন এ দুই ব্যাটার। এরপর অবশ্য ৫ রানের ব্যবধানে দুই উইকেট তুলে ম্যাচে ফেরে ভারত। বেডিংহ্যামকে বোল্ড করে দেন মোহাম্মদ সিরজা। আর কাইল ভেরেইনেকে উইকেটরক্ষক লোকেশ রাহুলের ক্যাচে পরিণত করেন প্রসিধ কৃষ্ণা।

তবে অপর প্রান্তটা ঠিকই আগলে রাখেন এলগার। তুলে নেন টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৪তম সেঞ্চুরি। শেষ পর্যন্ত ১৪০ রানে অপরাজিত রয়েছেন। ২১১ বলে ২৩টি চারের সাহায্যে এই রান করেন তিনি। বেডিংহ্যামের ব্যাট থেকে আসে ৫৬ রান। ৮৭ বলে ৭টি চার ও ২টি ছক্কায় এই রান করেন এই ব্যাটার। মার্কো ইয়ানসেন ৩ রানে এলগারের সঙ্গে ব্যাটিংয়ে রয়েছেন। ভারতের পক্ষে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন বুমরাহ ও সিরাজ।

এর আগে সকালে আগের দিনের ৮ উইকেটে ২০৮ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে ভারত। বৃষ্টির কারণে দ্বিতীয় দিনেও নির্দিষ্ট সময়ে খেলা শুরু হতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত শুরু হলে শেষ দুই উইকেট হারিয়ে এদিন আরও ৩৭ রান যোগ করে ভারত। যার ৩১ রানই করেছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটার লোকেশ রাহুল। মোহাম্মদ সিরাজকে নিয়ে নবম উইকেটে ৪৭ রানের মূল্যবান জুটি গড়েন এই ব্যাটার।

দারুণ এক সেঞ্চুরি তুলে নিজেও অনন্য এক কীর্তি গড়েছেন রাহুল। টেস্ট ক্যারিয়ারে অষ্টম সেঞ্চুরিটি সেঞ্চুরিয়নের মাঠে দ্বিতীয়। এর আগে কোনো বিদেশি ব্যাটার এই মাঠে একাধিক সেঞ্চুরি করতে পারেননি। শেষ ব্যাটার হিসেবে আউট হওয়ার আগে ১০১ রানের ইনিংস খেলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটার। ১৩৭ বলে ১৪টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে এই রান করেন তিনি।

আগের দিন পাঁচ উইকেট তুলে নেওয়া কাগিসো রাবাদা এদিন সুবিধা করতে পারেননি। এদিনের শেষ দুটি উইকেটের একটি নন্দ্রে বার্গার ও জেরাল্ড কোয়েটজি।

 

Comments

The Daily Star  | English
Bangladesh's economy is recovering

Inflation isn’t main concern of people: finance minister

Finance Minister Abul Hassan Mahmood Ali yesterday refused to accept that inflation is one of the main concerns of the people of the country

1h ago