অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ

বিশ্বকাপ মঞ্চে ভারতের কাছে বড় ব্যবধানে হারল বাংলাদেশের যুবারা

শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকার ব্লুমফন্টেইনে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ৮৪ রানে ভারতের কাছে হেরেছে বাংলাদেশ।
Adarsh Singh

যুব এশিয়া কাপ জেতার পথে ভারতকে সেমিফাইনালে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে বিশ্বকাপ মঞ্চে ভারতীয়দের সঙ্গে পেরে উঠল না বাংলাদেশের যুবারা। একপেশে ম্যাচে বড় হারে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ শুরু করেছে মাহফুজুর রহমান রাব্বির দল।

শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকার ব্লুমফন্টেইনে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ৮৪ রানে ভারতের কাছে হেরেছে বাংলাদেশ। আগে ব্যাট করে ভারতের করা ২৫২ রানের জবাবে ২৪ বল আগে ১৬৭ রানে গুটিয়ে যায় জুনিয়র টাইগারদের ইনিংস।

বাংলাদেশের ইনিংস মুড়ে দিতে ২৪ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ভারতে হিরো সামি পান্ডে। এর আগে আদর্শ সিংয়ের ৭৬ ও উদয় শাহরানের ৬৪ রানে চ্যালেঞ্জিং পুঁজি পেয়েছিল ভারত। 

২৫২ রানের লক্ষ্যে নেমে সতর্ক শুরু করেছিলেন দুই ওপেনার আশিকুর রহমান শিবলি আর জিসান আলম। থিতু হয়ে জিসান ডানা মেলতে গিয়েই পড়েন কাটা। রাজ লিম্বার্নির বলে পয়েন্টে অভিষেকের দারুণ ক্যাচে পরিণত হয়ে ১৪ রানে থামেন তিনি।

তিনে নেমে চৌধুরী মোহাম্মদ রিজওয়ানের বিদায় বাজে শটে। স্পিনার সামি পান্ডের শর্ট বলে পুল করতে গিয়ে টাইমিং মিস করে বোল্ড হয়ে যান তিনি।

এশিয়া কাপের নায়ক শিবলিও টিকতে পারেননি। পান্ডের বলে তিনিও আউট হন ১৪ রান করে। আর্শিন কুলকার্নি এসেই ফিরিয়ে দেন আহরার আমিনকে। ৫০ রানে ৪ উইকেট খুইয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে বাংলাদেশের যুবারা।

দলের প্রবল চাপে প্রতিরোধ গড়েন আরিফুল ইসলাম-শিহাব জেমস। রান আনার গতি মন্থর হলেও বেশ অনেকটা সময় উইকেট পতন ঠেকিয়ে রাখেন তারা। ৪১ করা আরিফুলের আউটে এই জুটি যখন ভাঙে জুটিতে এসেছে ১১৮ বলে ৭৭ রান। এরপর জেমস ফিফটি করে কিছুটা লড়াই করেন, ম্যাচ জমানোর ধারেকাছেও যেতে পারেননি। আর কোন ব্যাটারই দেখাত পারেননি নিবেদন।

টস জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে অবশ্য শুরুটা ভালোই করেছিল বাংলাদেশ। দলের ১৭ রানে আর্শিন কুলকার্নিকে আউট করে ওপেনিং জুটি ভাঙেন মারুফ মৃধা। উইকেটরক্ষক আশিকুর রহমানের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে ৭৬ রান করেন আর্শিন।

পরের ওভারে মুশের খানকে বিদায় করেন মারুফ। তাকেও উইকেটরক্ষক আশিকুরের ক্যাচে পরিণত করেন এই পেসার। ৭ বলে ৩ রান করেন মুশের। এরপর আদর্শের সঙ্গে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক উদয়। তৃতীয় উইকেটে ১১৬ রানের জুটি গড়েন এ দুই ব্যাটার। তাতেই বড় পুঁজির ভিত পেয়ে যায় ভারতীয়রা।

দলের পুঁজি ১৪৭ রানে গেলে আদর্শকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙেন চৌধুরী মোহাম্মদ রিজওয়ান। তাকে রোহান উদ দৌলা বর্ষণের ক্যাচে পরিণত করেন এই পেসার। ফেরার আগে ৯৬ বলে ৬ চারে ৭৬ করেন তিনি। সঙ্গী হারিয়ে খানিক পর বিদায় নেন ৬৪ করা উদয়ও।

তবে প্রিয়াংশু মোলিয়া, আরাভেল্লি অবিনাশ ও শচিন দাসের মাঝারি তিন ইনিংসে আড়াইশ ছাড়িয়ে যায় ভারতের যুবারা। ওই রান টপকে যাওয়ার মতন ব্যাটিং করতে পারেনি লাল সবুজের প্রতিনিধিরা।

Comments

The Daily Star  | English

Wildlife Trafficking: Bangladesh remains a transit hotspot

Patagonian Mara, a somewhat rabbit-like animal, is found in open and semi-open habitats in Argentina, including in large parts of Patagonia. This herbivorous mammal, which also looks like deer, is never known to be found in this part of the subcontinent.

3h ago