ক্রিকেট

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে ভারতীয়দের আধিক্য

মঙ্গলবার ২০২৩ সালের জন্য বর্ষসেরা ওয়ানডে দলের তালিকা প্রকাশ করেছে  আইসিসি। তাতে ভারত ছাড়াও আছেন অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা।
Men's ODI Team of the Year

বিশ্বকাপে আলো ছড়ানো তারকারাই জায়গা পেয়েছেন আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে। এই দলে সবচেয়ে বেশি ভারতের আছেন ছয়জন। মোট চার দেশের খেলোয়াড়রা জায়গা পেয়েছেন বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশে।

মঙ্গলবার ২০২৩ সালের জন্য বর্ষসেরা ওয়ানডে দলের তালিকা প্রকাশ করেছে  আইসিসি। তাতে ভারত ছাড়াও আছেন অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা।  ভারতের ছয়জনের বাইরে অস্ট্রেলিয়ার আছেন দুজন, দক্ষিণ আফ্রিকার দুজন ও নিউজিল্যান্ডের একজন।

বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে জায়গা পাওয়া সবাই বিশ্বকাপে ছিলেন দারুণ ছন্দে। প্রত্যেকেই দলের প্রভাব বিস্তার করা পারফরম্যান্স করেছেন। এই দলের অধিনায়ক করা হয়েছে বিশ্বকাপে একশোর বেশি স্ট্রাইকরেটে পাঁচশোর বেশি রান করা রোহিতকে।

বিশ্বকাপে দারুণ পারফর্ম করা ছাড়াও বছর জুড়ে ৫২ গড়ে ১২৫৫ রান করেন রোহিত। তার সঙ্গে ওপেনিংয়ে থাকছেন আরেক ভারতীয় শুভমান গিল। ২০২৩ সালে সবচেয়ে ১৫৮৪ ওয়ানডে রান করেছেন তিনি।

বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল ও ফাইনালের নায়ক ট্রেভিস হেডকে তিনে বেছে নেওয়া হয়েছে। বিরাট কোহলি বছর জুড়ে ১৩৭৭ রান করে সামলাবে চার নম্বর পজিশন।  পাঁচে আইসিসির পছন্দ ২০২৩ সালে ৫২.৩৪ গড়ে ১২০৪ রান করা নিউজিল্যান্ডের ড্যারেল মিচেল।  দক্ষিণ আফ্রিকার হেনরিক ক্লাসেন বিশ্বকাপে আলো ছড়িয়ে ছয় নম্বর পজিশন পেয়েছেন আইসিসির সেরা দলে।

দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডার মার্কো ইয়ানসেনকে সাত নম্বরে রেখেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। ব্যাটে-বলে আলো ছড়িয়ে প্রোটিয়াদের পারফরম্যান্সে প্রভাব রেখেছেন তিনি। অজি লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা ও ভারতীয় রিষ্ট স্পিনার কুলদীপ যাদবকে রাখা হয়েছে স্পিন অপশনে।  ভারতের দুই পেসার মোহাম্মদ সিরাজ ও মোহাম্মদ শামি আছেন পেস বোলিং বিভাগে।

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দল: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শুভমান গিল, ট্রেভিস হেড, বিরাট কোহলি, ড্যারেল মিচেল, হেনরিক ক্লাসেন, মার্কো ইয়ানসেন, অ্যাডাম জাম্পা, মোহাম্মদ সিরাজ, কুলদীপ যাদব, মোহাম্মদ শামি।

Comments

The Daily Star  | English

Work begins to breathe life into dying Ichamati

The long-awaited project to rejuvenate the Ichamati river began under the supervision of Bangladesh Army, bringing joy to the people of Pabna

26m ago