ক্রিকেট

‘মাশরাফি এখন বাংলাদেশ ক্রিকেটের কিছু না’

সিলেট স্ট্রাইকার্সের দলনেতা মাশরাফি বিন মর্তুজা কথা বলেছেন ক্যারিয়ারের ভবিষ্যৎ নিয়ে।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

দল হেরেছে টানা তিন ম্যাচ। অধিনায়ক হলেও তিনি পারফরম্যান্স দিয়ে রাখতে পারছেন না কার্যকর ভূমিকা। মূলত ফিটনেস ঘাটতির কারণে ভুগতে হচ্ছে তাকে। এমন পরিস্থিতিতে সিলেট স্ট্রাইকার্সের মাশরাফি বিন মর্তুজা কথা বলেছেন ক্যারিয়ারের ভবিষ্যৎ নিয়ে। তবে এই প্রসঙ্গ নিয়ে খুব বেশি আলোচনা হোক, সেটাও চাইছেন না তিনি।

গতকাল শুক্রবার বিপিএলের সিলেট পর্বের প্রথম দিনের দ্বিতীয় ম্যাচটি হয় লো স্কোরিং। তারপরও সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ৫২ রানের বড় ব্যবধানে জেতে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। তাদের ৮ উইকেটে ১৩০ রানের জবাবে ২২ বল বাকি থাকতে স্রেফ ৭৮ রানে গুটিয়ে যায় সিলেট।

একপেশে লড়াইয়ের পর সংবাদ সম্মেলন কক্ষে সিলেটের প্রতিনিধি হয়ে আসেন অভিজ্ঞ পেসার মাশরাফি। সেসময় কক্ষটি ছিল প্রায় ফাঁকা। তবে সম্প্রতি ফিটনেস নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়া মাশরাফিকে পেয়ে সেটা সংবাদমাধ্যমকর্মীদের উপস্থিতিতে ভরে উঠতে সময় লাগেনি। এরপর হয় দীর্ঘ ১২ মিনিট সংবাদ সম্মেলন, ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে এমন চিত্র বিরলই বটে। 

২০২০ সাল থেকে বাংলাদেশ জাতীয় দলের বাইরে আছেন মাশরাফি। খেলে যাচ্ছেন ঘরোয়া পর্যায়ে। ক্যারিয়ারের ভবিষ্যৎ নিয়ে মুখ খুললেও গণমাধ্যমের প্রতি তিনি বার্তা দিয়েছেন তরুণদের দিকে নজর দেওয়ার, 'টপিক শুধু আমার বিষয় না। আমাকে নিয়ে বাংলাদেশ দলে.... আপনার লেখার জন্য হতে পারে মাশরাফিকে ছয়টা প্রশ্ন করলেন। মাশরাফি এখন বাংলাদেশ ক্রিকেটের কিছু না।'

তিনি যোগ করেছেন, 'আপনাদের চিন্তা করতে হবে... বাংলাদেশ ক্রিকেটে পরবর্তী ১০ বছর যারা সার্ভিস দেবে তাদের নিয়ে চিন্তা করুন। তারা কী করছে, তাদের নিয়ে ভাবা। প্রশ্ন এগুলো নিয়ে... মানুষ যা খায় তা খাওয়াতে গেলে হবে না। বাংলাদেশ ক্রিকেটে কী কী উন্নতি হবে সেগুলো চিন্তা করতে হবে আপনাদেরও এবং সেগুলোই মানুষকে জানাতে হবে।'

আগামী বিপিএল খেলার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ৪০ পেরিয়ে যাওয়া মাশরাফি, 'হতে পারে। আমার পা যদি ঠিক থাকে, হতে পারে। কারণ, আমি আমার মতো করেই করতে চাই। এ বছর যদি পুরোদমে… গত বছর যেমন খেলেছি, সেরকম যদি পুরোদমে খেলতে পারতাম, তাহলে হয়তো চিন্তা করতাম। যেহেতু পুরোদমে (বোলিং) করতে পারছি না, আমি চিন্তা করব পরে।'

পায়ের চোটের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানিয়েছেন তিনি, 'গত বছর পর্যন্ত আমার পায়ে কোনো রকম সমস্যা হয়নি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে হঠাৎ চার মাস আগে ব্যথা অনুভব করি। আমি জানি না ঠিক কী জন্য হয়েছে। ডাক্তার দেখিয়েছি, ছোট একটা অপারেশন লাগবে। আমি নিজেও এবছর চাইনি (খেলতে), যেহেতু পুরো ফিট না। তবে ওই যে বললাম, সবকিছুতেই যদি-কিন্তু থাকে, কিছু চাওয়া-পাওয়ার ব্যাপার থাকে। খেলাটা চালিয়ে যাচ্ছি।'

গত বছরের মে মাসে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলার পর থেকে মাশরাফি ছিলেন মাঠের বাইরে। রাজনৈতিক ও নির্বাচনী কাজে কেটেছে তার সময়। বিপিএলের আগে জাতীয় নির্বাচন নিয়ে তুমুল ব্যস্ত ছিলেন তিনি। স্বাভাবিকভাবেই ফিটনেস ঘাটতি তাতে প্রবল হয়েছে।

Comments