ক্রিকেট

‘আমাদের পরিবারও জিজ্ঞেস করে, জিততে পারছ না কেন?’

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে হারিয়ে দিয়েছিল দুর্দান্ত ঢাকা। তাদের সেই জয় এখন স্রেফ দুর্ঘটনাই বলতে হবে। কারণ এরপর টানা ৮ ম্যাচই যে হেরেছে দলটি। বিপিএলের ইতিহাসে গড়েছে টানা হারের বিব্রতকর রেকর্ড।
Taskin Ahmed

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে হারিয়ে দিয়েছিল দুর্দান্ত ঢাকা। তাদের সেই জয় এখন স্রেফ দুর্ঘটনাই বলতে হবে। কারণ এরপর টানা ৮ ম্যাচই যে হেরেছে দলটি। বিপিএলের ইতিহাসে গড়েছে টানা হারের বিব্রতকর রেকর্ড। গত দুই ম্যাচ ধরে নেতৃত্বে থাকা তাসকিন আহমেদ বলেন, টানা হারে খুব অস্বস্তি হচ্ছে তাদের, মানসিকভাবেও কাবু হয়ে আছেন সবাই। এমনকি পরিবারের মানুষদের কাছ থেকেও বেহাল দশার জন্য কঠিন প্রশ্ন হজম করতে হচ্ছে তাদের।

শনিবার রাতে মিরপুরে ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে বিন্দুমাত্র লড়াই জমাতে পারেনি রাজধানী ঢাকার নামের দলটি। বরিশালের ১৮৯ রানের জবাবে ১৪৯ রানে থেমে ৪০ রানে হেরেছে তারা।

আসর থেকে বিদায় নিশ্চিত হওয়া ঢাকার বাকি আছে আর তিন ম্যাচ। স্রেফ এক জয় নিয়ে দলটির তলানিতে থাকা নিশ্চিত। সংবাদ সম্মেলনে এসে তাসকিন জানান এভাবে হারতে থাকায় মোরালি ডাউন অবস্থা হয় সবার,  'টুর্নামেন্টের ৭০ ভাগ শেষ। ওভারঅল দুইটা ম্যাচ ছাড়া বেশিরভাগ ভালো ক্রিকেট খেলা হয়নি। ব্যাটিংয়ে বেশিরভাগ ম্যাচে আমরা ফেল করেছি। আমার মনে হয় আরো ভালো ক্রিকেট খেলা উচিত ছিল। তাছাড়া হারতে থাকলে মোরালি ডাউন থাকে। তখন কিছু না কিছু মিসটেক হয়েই যায়। এখন দোষ বের করলে তো অনেক সমস্যা বের হবেই। তিনটা ম্যাচ আছে, ভালো ক্রিকেট খেলে যতটা শেষ করা যায়। ফ্রাঞ্চাইজিরা তো প্রত্যাশা করে আমরা জিতি।'

'এটা তো দলীয় খেলা। দুজন-চারজন কোনো না কোনো জায়গায় খারাপ খেলেই ফেলছে। নাম নিব না। কারণ এটা দলীয় খেলা। আজ এ খারাপ করেছে, কাল ও । একদিন আমি। এভাবে আমরা খারাপ করেছি। জেতা জেতা ম্যাচগুলো দুর্বলতার কারণে হেরে গেছি। এটা অবশ্যই ভালো অনুভূতি নয় অবশ্যই। আমাদের পরিবারও আছে। তারাও জিজ্ঞেস করে, "জিততে পারছ না কেন?" জিততে তো আমরাও চাই, ব্যাটিং বা বোলিং কোন না কোন জায়গায় হেরেই যাচ্ছি।'

এভাবে টানা হারতে থাকায় ফ্র্যাঞ্চাজির মালিক পক্ষ থেকে কোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতিতে পড়তে হচ্ছে কিনা, এমন প্রশ্নে ডানহাতি পেসার জানান, নিজেদের কাছেই আসলে বিব্রত হচ্ছেন তারা,  'ব্যবহার কেউ খারাপ করেনি। নিজেরই একটু লজ্জা লাগে। সবাই তো আসলে প্রত্যাশা করে সবাইকে নেয়। বিনিয়োগ করে অনেক আশা নিয়ে। যখন দল রেজাল্ট করে না নিজেরই খারাপ লাগে। আমি আমার দিক থেকে শতভাগ দিয়ে চেষ্টা করছি এটাই আমার হাতে আছে। মালিকপক্ষ খোঁজখবর নিচ্ছে। আজও লাঞ্চ হলো একসঙ্গে।'

দলের সম্ভাবনা শেষ হয়ে যাওয়ায় তাসকিন চান বাকি ম্যাচগুলোতে খেলোয়াড়রা যেন নিজেদের ক্যারিয়ারের কথা ভেবেই খেলেন,  'দলে বেশ কিছু খেলোয়াড় তো ভালো খেলেছে। নাঈম শেখ সর্বোচ্চ রান করেছে। শরিফুল সর্বোচ্চ উইকেট। ওরা যদি ভালো শেষ করতে পারে কিছু প্রাপ্তি তো থাকবেই। ভালো শেষ করলে একটু শান্তি পাওয়া যাবে। সবার তো ক্যারিয়ারের বিষয় আছে।  আইকন ক্রিকেটার হিসেবে প্রত্যাশা তো থাকে আমার কাছে। আমিও যেন একটু ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি।'

Comments