গিল-জুরেলের ব্যাটে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সিরিজ নিশ্চিত করল ভারত

প্রথম ইনিংসের নায়ক জুরেল ৬১তম ওভারে টম হার্টলির বলে দুই রান নিয়েই নিশ্চিত করেন জয়। রাঁচিতে সোমবার তৃতীয় টেস্টে ৫ উইকেটে ইংল্যান্ডকে হারায় ভারত।
ভারত বনাম ইংল্যান্ড
ছবি: বিসিসিআই

লক্ষ্যটা ছিলো ছোট, তবে উইকেট ক্রমশ কঠিন হয়ে পড়ায় সেই ছোট লক্ষ্যই হয়ে পড়ে চ্যালেঞ্জিং। শোয়েব বশিরের তোপ সামলে কঠিন পরিস্থিতি থেকে অবশ্য অনায়াসে পরে ভারতকে জেতালেন শুভমান গিল আর ধ্রুব জুরেল।

প্রথম ইনিংসের নায়ক জুরেল ৬১তম ওভারে টম হার্টলির বলে দুই রান নিয়েই নিশ্চিত করেন জয়। রাঁচিতে সোমবার তৃতীয় টেস্টে ৫ উইকেটে ইংল্যান্ডকে হারায় ভারত। পাঁচ টেস্টের সিরিজের প্রথমটি ইংল্যান্ড জিতলেও বাকি তিনটি জিতে যায় স্বাগতিকরা। ধর্মশালায় শেষ টেস্ট পরিণত তাই অনেকটা আনুষ্ঠানিকতায়।

১৯২ রান তাড়ায় আগের দিন বিনা উইকেটে ৪০ রান তুললেও এদিন ১২০ রানে পড়ে ৫ উইকেট। ৬ষ্ঠ উইকেটে পরে ১৩৬ বলে অবিচ্ছিন্ন ৭২ রানের জুটিতে কাজ সারেন গিল-জুরেল।

১২৪ বলে ৫২ রানে অপরাজিত ছিলেন গিল। ৭৭ বলে ৩৯ করে দারুণ অবদান জুরেলের। প্রথম ইনিংসে দলের প্রবল চাপে ৯০ রান করায় ম্যাচের সেরা পারফর্মারও ভারতের কিপার ব্যাটার।

আগের দিন বিকালে পাওয়া দারুণ শুরু এদিনও টেনে আনেন রোহিত শর্মা-যশভি জয়সওয়াল।  প্রথম ঘণ্টা পার করে অনায়াসে রান বাড়াতে থাকেন দুজন। তাদের বিচ্ছিন্ন করার কোন পরিস্থিতি তৈরি করতে পারছিল না ইংল্যান্ড। ১৮তম ওভারে গিয়ে জয়সওয়ালের আলগা শট করে দেয় সুযোগ। জো রুটের বলে রান বাড়ানোর চেষ্টায় আউটসাইড এজড হয়ে শর্ট থার্ডম্যানে ক্যাচ দেন জয়সওয়াল। ৩৭ করে ফেরেন সিরিজের সেরা ব্যাটার। ৮৪ রানে প্রথম উইকেট হারায় ভারত।

রোহিত আরেক প্রান্তে ফিফটি করে দিচ্ছিলেন আস্থা। তাকে উইকেটের পেছনে ক্যাচ বানিয়ে একশোর আগে দ্বিতীয় শিকার ধরেন টম হার্টলি। চারে নেমে ব্যর্থ রজত পাতিদার। সিরিজে নিজেকে প্রমাণ করতে না পারা ডানহাতি ব্যাটার শোয়েব বশিরের বলে শর্ট লেগে ক্যাচ দিয়ে আউট হন কোন রান না করে। বিনা উইকেটে ৮৪ থেকে ১০০ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে ভারত।

লাঞ্চের আগে বাকিটা সময় অবশ্য আর বিপদ বাড়াতে দেননি শুভমান গিল-রবীন্দ্র জাদেজা।

লাঞ্চের পর টানা দুই শিকার ধরেন বশির। জাদেজাকে ক্যাচ বানানোর পর প্রথম বলেই আউট করে দেন সরফরাজ খানকে। ১২০ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে নড়ে উড়ে ভারতের ইনিংস।

এরপরই মহা গুরুত্বপূর্ণ সেই জুটি। একপাশে উইকেটের পতন দেখে নিজেকে গুটিয়ে নেন গিল। সময় নিয়ে থিতু হয়ে ঝুঁকি-মুক্ত পথে এগুনো জুরেলও. ৬ষ্ঠ উইকেট জুটিতে  জমাট অবস্থা তৈরি করে ভারত।

দুই ইনিংসে মিলিয়ে ৮ উইকেট পেলেও এই দুজনকে আলগা করতে পারেননি বশির। হার্টলিও কাজে লাগাতে পারেননি উইকেটের সহায়তা। লক্ষ্যটা খুব বড় না থাকায় এক সময় চাপ হয়ে পড়ে হালকা। সেটা সহজেই সামলে দলকে জেতার দিকে এগিয়ে নেন ভারতের তরুণ দুই ব্যাটার।

আগামী ৭ মার্চ ধর্মশালায় পঞ্চম ও শেষ টেস্টে মুখোমুখি হবে দু'দল।

Comments

The Daily Star  | English

BCL men conduct late-night 'search of RU hall carrying rods, sticks’

Leaders and activists of Bangladesh Chhatra League's Rajshahi University unit searched different halls of the university early today carrying rods, stamps and sticks, students said

11m ago